বাংলাদেশে মোটরসাইকেল সিকিউরিটি

আস্‌সালামু আলাইকুম

আশাকরি সবাই আল্লাহর অশেষ রহমতে ভালো আছেন।

আজকে আমি আলোচনা করবো আমার পছন্দের একটি মোটরসাইকেল সিকিউরিটি নিয়ে। আমি মোটরসাইকেলে রিমোট ইম্মোবিলাইজার ব্যবহার করলেও একটু চিন্তা হতো যখন মোটরসাইকেল রেখে রিমোট রেঞ্জের বাইরে থাকতাম। রিমোট ইম্মোবিলাইজার ব্যবহার করলে মোটরবাইক কেউ স্টার্ট করতে পারবে না এবং যদি কেউ টাচ করে তাহলে বাইক ও রিমোটে এলার্ম বাজবে। এই এলার্ম নির্ধারিত দূরত্ব পর্যন্ত কাজ করে (প্রায় ৫০০ মিটার)। তো যখন আমি বাইক রেখে ৫০০ মিটার এর বেশি দূরে যেতাম তখন একটা ছোট দুশ্চিন্তা কাজ করতো। আবার খোঁজাখুঁজি শুরু করলাম। বাজারে বিভিন্ন রকমের সিকিউরিটি সিস্টেম ছিলো। দেখলাম GPS এটার একটা সমাধান হতে পারে। কিন্তু জিপিএস এ বাইকে এলার্ম দেয় না। তাই এটাও আমার মনোপূতঃ হলো না। খোঁজ কন্টিনিউ থাকলো। প্রায় ১০ - ১২ টা বিভিন্ন লক যাচাই বাছাই করে শেষ পর্যন্ত পেয়ে গেলাম Tasslock Combo মোটরসাইকেল সিকিউরিটি। একদম আমি যা চাচ্ছিলাম সব কিছুই আছে এতে। রিমোট ইম্মোবিলাজার আর জিপিএস এর অদ্ভুত এক কম্বিনেশন। সাথে আছে ৩ লেয়ার বিশিষ্ট নিরাপত্তা। দেরি না করে ইন্সটল করে নিলাম বাইকে। এরপর যেকোনো জায়গাতে বাইক রেখে যেতে আমার মোটেও দুশ্চিন্তা হয় না। এতে আছে Two Way semi-automatic remote immobilizer sensor + GPS Tracker। আমি আমার মোবাইল ফোন দিয়ে পৃথিবীর যেকোনো প্রান্ত থেকে ইঞ্জিন লক আনলক করতে পারি। ট্র্যাকিং সুবিধা তো আছেই। সবচেয়ে মজার বিষয় হচ্ছে আমার বাইক যেখানেই থাকুক না কেন কেউ ধরলে বা চুরি করার চেষ্টা করলে আমার মোবাইল ফোনে কল আসে। সাথে আছে রিমোট ইম্মোবিলাইজার সেন্সর চাবি অফ করে বাইক থেকে নেমে গেলে অটোমেটিক ইঞ্জিন ইম্মোবিলাইজ হয়ে যায়। তখন রিমোট ছাড়া অরিজিনাল চাবি দিয়েও বাইক আনলক করা যায় না। বরং চাবি দিলে বাইকে বিকট শব্দে এলার্ম বাজে। মাঝে মাঝে অফিসের পার্কিং এর গার্ডরা আমাকে বিচার দেয় যে আমার বাইক নাকি অনেক জোরে সাউন্ড করে। এখন কেউ ভয়ে আমার বাইকের আশেপাশে দিয়ে হাটেও না। চলুন দেখে নেয়া যাক Tasslock Combo ডিভাইসের কিছু সুবিধাঃ

১. Two Way remote immobilizer + GPS ট্র্যাকার যার মাদ্ধমে রিমোট ছাড়াও মোবাইল দিয়ে লক করা যায়। নেটওয়ার্ক বা ইন্টারনেট না থাকলেও। এমনকি বাটন ফোন দিয়েও করা যায়।
২. মোবাইল থেকে বাইক লক করে দিলে রিমোট বা অরিজিনাল চাবি দিয়েও স্টার্ট দেয়া সম্ভব না।
৩. সারাদিনের মাইলেজ, ট্র্যাক রেকর্ড সব দেখতে পাই।
৪. আছে জিওফেন্স সুবিধা। ছোটভাই বাইক নিয়ে কথায় যায় সবই দেখতে পাই।
৫. রিমোট ও বাইক দুইটাই সাইলেন্ট করা যায় যাতে মিটিং বা নামাজের মতো গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ব্যাঘাত না ঘটে। তখনও বাইকের নিরাপত্তা ১০০% কাজ করবে।

এছাড়াও আরো অনেক ফিচার আছে যা মোটরসাইকেলকে সম্পূর্ণ নিরাপদে রাখে। আজকে এই পর্যন্তই। কথা হবে আগামী টিউনে।

আল্লাহ হাফেজ

Level 0

আমি ফুনসুখ ওয়াংড়ু। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 2 সপ্তাহ 6 দিন যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 1 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস