ব্রণ দূর করতে অ্যালোভেরার ব্যবহার

টিউন বিভাগ অন্যান্য
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

আসসালামু আলাইকুম। ব্রণের সমস্যায় অনেকে আছেন। প্রাকৃতিক উপায়ে ঘরে বসে সহজে ব্রণ থেকে মুক্তির বিষয় উল্লেখ করা হলো. ব্রণ মুখের সৌন্দর্য কমিয়ে দেয়। ব্রণ নিয়ে মেয়েরা বিরক্ত হয়। বিভিন্ন প্রসাধনী ব্যবহার করে। অনেক সময় দেখা যায় সমাধানের চেয়ে সমস্যা আরো বাড়ে। তাই প্রাকৃতিক উপায়ে ঘরে বসে ব্রণ দুর করতে পারবেন অ্যালোভেরা (ঘৃতকুমারী)সাহায্যে

অ্যালোভেরা তে রয়েছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট, ভিটামিন
সি, ই এবং এ। এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়। এতে থাকা অ্যাসিড ব্রনের ব্যাকটেরিয়াকে দূর করে।

১)গাছ থেকে অ্যালোভেরা নিয়ে পরিষ্কার করে নিন। তার মধ্যে থেকে জেল নিন। এবার মুখ পরিষ্কার করে লাগান ব্রণের জায়গাগুলোতে। ১৫ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

২)অ্যালোভেরা সাথে ভিটামিন ই ক্যাপসুল (রাতে) মুখে লাগিয়ে রাখতে পারেন। সকালে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

৩)অ্যালোভেরা জেলের সাথে ১/২ চামচ লেবুর রস ব্যবহার করতে পারেন

৪)অ্যালোভেরা, চা, আদা ও দারুচিনি মুখে লাগান। এতে ব্রণ কমে যাবে।

৫)সামান্য হলুদ দিয়ে অ্যালোভেরা মুখে ব্যবহার করতে পারেন। (যাদের মুখে অ্যালোভেরা বা হলুদ ব্যবহারে এলার্জি আক্রমণ হয়) তারা ব্যবহার করবেন না।

চুলের যত্নে এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। চুল পড়া আমাদের প্রধান সমস্যা। অ্যালোভেরা জেল চুল পড়া কমায় ও চুলের খুশকি দুর করতে সাহায্য করে। এতে রয়েছে ছত্রাকনাশক উপাদান যা ত্বকের চুলকানি দূর করে। ফলে খুশকি দুর হয়।

১)অ্যালোভেরা জেলে রয়েছে এক ধরনের ময়েশ্চারাইজা। যা চুল কে মৃসণ ও উজ্জল করে। এটি প্রাকৃতিক উপাদান হিসেবে চুল পড়া কমায় ও চুলের আর্দ্রতা ধরে রাখে।

২)অ্যালোবেরা জেলের সাথে পেয়াজের রস মিশিয়ে চুলে লাগালে চুল পড়া কমে৷ তাছাড়াও বেকিং সোডা, লেবুর রস, পেয়াজের রস৷ সাইডার ভিনেগারে সাথে অ্যালোভেরা মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরী করুন। এই মিশ্রন টি সপ্তাহে দুই বার ব্যবহার করতে পারেন। চুলে ব্যবহার করার সময় ২০/২৫ মিনিট রেখে দিবেন। তারপর ধুয়ে ফেলুন।

৩)অ্যালোভেরা তে রয়েছে প্রোটি, মিনারেল ও ভিটামিন। যা চুলের গোড়া মজবুত করতে সাহায্য করে ও চুলকে বড় করে।

৪)তেলের সাথে অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে ব্যবহার করা যায়।
৫)যারা চুলে নিয়মিত মেহেদী পাতা লাগান৷ তারা মেহেদীর সাথে অ্যালোভেরা যোগ করতে পারেন। মেহেদী পাতা চুলের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ উপাদান৷ চুলের রং আরো বেশি কালো ও মজবুত করে। চুলের বৃদ্ধিতে ও সাহায্য করে থাকে। তাই দুই টি উপাদান এক সাথে ব্যবহারের ফলে আরো ভালো ফল পেতে পারেন।

মুখে ব্রণ দেখা দিলে নখ দিয়ে ব্রণের জায়গায় হাত দিবেন না। এতে জায়গায় জীবাণু সৃষ্টি হবে এবং দাগ হয়ে যাবে। ব্রণ বিভিন্ন কারণে হয়ে থাকে। দুশ্চিন্তা তার মধ্যে অন্যতম কারণ। তাই ব্রণ থেকে মুক্তি পেতে দুশ্চিন্তা বন্ধ করুন। বেশি বেশি পানি পান করুন। কম পানি খাওয়ার ফলে যেমন অনেক ধরনের রোগ হয় তেমনি, ব্রণের সমস্যা ও বাড়ে৷ বেশি বেশি সবজি ও ফল জাতীয় খাবার খান। বেশি তেল ও চর্বি জাতীয় খাবার খাবেন না৷ নিয়মিত মশলা জাতীয় খাবার মুখে। ব্রণের সৃষ্টি করে। তাই এজাতীয় খাবার থেকে বিরত থাকুন।

Level 1

আমি ইফাত শারমিন। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 10 টি টিউন ও 6 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 3 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস