সাসSaaS বলতে আমরা কি বুঝি এবং এর সুবিধাগুলো কি কি?

টিউন বিভাগ অন্যান্য
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

পরিসেবা হিসেবে সফটওয়ার(SaaS- Software as a service) হল একটা সফটওয়ার বিতরণ মডেল যেখানে একজন সরবরাহকারী(Provider) সফটওয়ারটি তার নিজস্ব সার্ভারে হোস্ট/ইনস্টল করে এবং সফটওয়ারটির পরিসেবা ইন্টারনেটের মাধ্যমে তার গ্রাহকদের নিকট পৌঁছে দেয়। ক্লাউড কম্পিউটিং এর প্রধান তিনটি বিভাগের মধ্যে পরিসেবা হিসেবে সফটওয়ার (SaaS) অন্যতম এবং অপর দুইটি হল পরিসেবা হিসেবে পরিকাঠামো(IaaS) এবং পরিসেবা হিসেবে প্ল্যাটফর্ম (PaaS)।

পরিসেবা হিসেবে সফটওয়ার (SaaS) ব্যবস্থায় সরবরাহকারী(Provider) গ্রাহকদেরকে তার নিজস্ব সার্ভারে হোস্ট করা এপ্লিকেশনটির নেটওয়ার্ক ভিত্তিক প্রবেশাধিকার প্রদান করে। এপ্লিকেশনটির সোর্স কোড সকল গ্রাহকদের জন্য একই থাকে এবং এপ্লিকেশনটির সাথে নতুন কোন বৈশিষ্ট্য যুক্ত হওয়ার সাথে সাথে তা সকল গ্রাহকের নিকট পৌঁছে যায়। সার্ভিস লেভেল এগ্রিমেন্টের (SLA) উপর ভিত্তি করে প্রতিটি মডেলে গ্রাহকদের তথ্য স্থানীয়ভাবে জমা হয় ক্লাউডে অথবা হাইব্রিডে(স্থানীয়ভাবে এবং ক্লাউড উভয়টিতে)। এপ্লিকেশন প্রোগ্রামিং ইন্টারফেস(এপিআই) ব্যবহার করে ব্যবহারকারী প্রতিষ্ঠান সাস(SaaS) এপ্লিকেশনকে অন্যান্য সফটওয়ারের সাথে সমন্বিত করতে পারে। উদাহরণ স্বরূপ: একটি কোম্পানি সাস(SaaS) সরবরাহকারী এপিআই(API) এর মাধ্যমে সাস (SaaS) এর সেবা সমূহের সাথে তার নিজস্ব সফটওয়ারের সেবা সংযুক্ত করতে পারে।

সাস(SaaS) সিস্টেম ব্যবহারের সুবিধা:

গতানুগতিক বিজনেস সফটওয়ার ইনস্টলেশন মডেল এর তুলনায় সাস(SaaS) বেশ কিছু বাড়তি সুবিধা প্রদান করে যেমন:

১। সর্বনিম্ন প্রারম্ভিক খরচ: সাস(SaaS) মূলত সাবস্ক্রিপশন-ভিত্তিক পরিসেবা প্রদান করে এবং এটার কোন ধরনের পারম্ভিক লাইসেন্স ফি না থাকায় অগ্রিম খরচ (upfront cost) অনেক কম। সফটওয়ার পরিচালনাকারী আইটি অবকাঠামোটি পরিচালিত হয় মূলত সাস (SaaS) সরবরাহকারীর দ্বারা। ফলে গ্রাহকদের হার্ডওয়্যার এবং সফটওয়ার রক্ষণাবেক্ষণের খরচ অনেক কমে আসে।

২। দ্রুত কনফিগারেশন এবং ডেপ্লয়মেন্ট: সাস (SaaS) এপ্লিকেশন আগে থেকেই ক্লাউডে ইনস্টল এবং কনফিগার করা থাকে। ফলে স্টার্ট-আপ প্রক্রিয়ার গতি বেড়ে যায় কারণ সাস (SaaS) সফটওয়ারটির ডাশবোর্ডে রেজিস্টার করা এবং সামান্য কিছু জিনিস কনফিগার করা বাদে গ্রাহকের আর কিছু করার প্রয়োজন পড়ে না।

৩। সহজ আপডেটস: সাস (SaaS) সরবরাহকারী (Provider) হার্ডওয়্যার এবং সফটওয়ার আপডেটের বিষয়াদি তত্ত্বাবধান করার পাশাপাশি হোস্ট করা এপলিকেশনটিও আপডেট করে। যার ফলে গ্রাহকদের এই সংক্রান্ত কাজের চাপ ও দায়-দায়িত্ব অনেক কমে আসে।

৪। সুলভ: একটি সাস (SaaS) এপ্লিকেশনে প্রবেশ(Access) করার জন্য গ্রাহকের প্রয়োজন হয় কেবল একটি ব্রাউজার এবং ইন্টারনেট সংযোগ। বিভিন্ন ধরনের ডিভাইসের মাধ্যমে পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে এটা ব্যবহার করা যায়। অপরদিকে গতানুগতিক বাণিজ্যিক সফটওয়ারে শুধুমাত্র ইনস্টল করা ডিভাইস থেকে প্রবেশ করা যায়- অন্য কোন ডিভাইস থেকে নয়। অর্থাৎ গতানুগতিক বাণিজ্যিক সফটওয়ারের চেয়ে সাস (SaaS) অনেক বেশী সুলভ।

৫। সহজেই পরিবর্তন উপযোগী: সাস (SaaS) মডেলে সাধারণত নানা ধরনের সাবস্ক্রিপশন অপশন থাকে। ফলে খুব সহজেই প্ল্যান পরিবর্তন করা যায়। আপনার ব্যবসা বড় হলে কিংবা অধিক সংখ্যক ব্যবহারকারীর প্রবেশাধিকার প্রয়োজন হলে আপনি যে কোন সময় প্ল্যান পরিবর্তন করতে পারবেন।

সাস (SaaS) এবং আরো সুপরিসরে বললে ক্লাউড কম্পিউটিং স্বল্প বাজেটের মধ্যে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদেরকে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি এবং প্রফেশনাল সাপোর্ট এনে দেয়।

বিশ্বে যে কয়টি সফটওয়ার প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান সাস (SaaS) সুবিধা যুক্ত সফটওয়ার তৈরি করে তাদের মধ্যে অন্যতম হল জেরন আইটি(Xerone IT)। এই প্রতিষ্ঠানটির নির্মিত প্রত্যেকটি সফটওয়ার সাস (SaaS) সুবিধা প্রদান করে। আপনি যদি এই প্রতিষ্ঠানের নির্মিত সফটওয়ারের সাহায্যে সফটওয়ার পরিসেবা ব্যবসা শুরু করতে চান তাহলে আপনাকে সফটওয়ার গুলোর এক্সটেন্ডেড লাইসেন্স (Extended License) ক্রয় করতে হবে। জেরন আইটি(Xerone IT) বেশ কয়েকটি দুর্দান্ত সফটওয়ার আছে যেমন: জিরোচ্যাট(XeroChat)-বিশ্বের সবচেয়ে উন্নত মানের মার্কেটিং সফটওয়ার, জিরোসিও(XeroSEO), জিরোবিজ(XeroBizz) এবং জিরোভিড(XeroVidd)। প্রত্যেকটি সফটওয়ারের জন্য আছে আলাদা আলাদা চমৎকার চমৎকার সব এড-অন। এই সব সফটওয়ারের সাথে এড-অন যুক্ত করে আপনি সফটওয়ারের কার্যকারিতা এবং পারঙ্গমতা বহু গুনে বাড়িয়ে তুলতে পারবেন। জিরোবিজ(XeroBizz) বাদে অন্যান্য সফটওয়ারগুলো বিশ্বের সবচেয়ে বৃহৎ সফটওয়ার বিক্রয় প্রতিষ্ঠান এনভাটোর কোডক্যানিয়ন(Codecanyon) থেকে বিক্রি হলেও জিরোবিজ(XeroBizz) এবং এড-অন সামগ্রীগুলো বিক্রি হয় প্রতিষ্ঠানটির অফিসিয়াল সাইট জেরন আইটি থেকে।

আপনি যে কোন সময় জেরন আইটি নির্মিত যে কোন একটি সফটওয়ারের এক্সটেন্ডেড লাইসেন্স কিনে স্বল্প পুঁজিতে তাৎক্ষণিকভাবে সফটওয়ার পরিসেবা ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। আপনি যদি আপনার সফটওয়ার পরিসেবা ব্যবসার জন্য পর্যাপ্ত গ্রাহক পেয়ে যান তাহলে প্রথম মাসেই হয়ত এক্সটেন্ডেড লাইসেন্স কেনার টাকা উসুল করে নিতে পারবেন। স্বল্প পুঁজিতে তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবসা শুরু করার এর চেয়ে ভালো উপায় আর হতে পারে না। আপনাকে শুধু সফটওয়ারটির এক্সটেন্ডেড লাইসেন্স কিনে আপনার নিজস্ব সার্ভারে ইনস্টল করে নিতে হবে। ব্যাস, সাথে সাথেই আপনি সফটওয়ারটির পরিসেবা সাবস্ক্রিপশনের ভিত্তিতে আপনার গ্রাহকদের নিকট বিক্রি শুরু করতে পারবেন। স্বল্প পুঁজিতে এত সহজে নিজস্ব ব্যবসা শুরু করার এত সহজ উপায় বোধ হয় পৃথিবীতে আর দ্বিতীয়টি নেই।

Level 0

আমি মেহেদী হাসান। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 1 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 6 টি টিউন ও 4 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Thanks for the nice explanation.

আপনার সুন্দর মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।

Thanks for clear more about this.

অসংখ্য ধন্যবাদ মিরাজ মেহেদী।

অনেক সুন্দর ভাবে বিষয়টা বুজিয়েছেন । সত্যি খুব সুন্দর লিখেছেন <3

    অসংখ্য ধন্যবাদ তৌফিক হাসান আপনার সুন্দর মন্তব্যের জন্য।

ভালো লেগেছে।চালিয়ে যান।