YouTube এ জিরো থেকে হিরো হওয়ার A to Z টিউটোরিয়াল

টিউন বিভাগ অন্যান্য
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

YouTube থেকে আজ অনেকেই সিনেমার রূপালী পর্দায় অভিনয় করার সুযোগ পেয়েছেন আবার অনেকেই প্রতি মাসে লাখ লাখ টাকা ইনকাম করছেন। তাদের এই সফলতা দেখে আমাদের অনেকেই YouTube এ নিজের ক্যারিয়ার গড়ার জন্য এবং অর্থ উপার্জনের জন্য YouTube এ নিজের চ্যানেল খোলে পেলি কিন্তু কিছু দিন পরই সঠিক গাইডলাইনের অভাবে কোনো সফলতা না পেয়ে হতাস হয়ে YouTube ছেড়ে দেই, তাদের জন্যই আমার এই লেখা। আজ আমি আপনাদের কাছে আলোচনা করব কিভাবে আপনি YouTube এ সফল হবেন এবং YouTube থেকে ভাল পরিমানের অর্থ আয় করবেন। আমার এই লেখাতে YouTube এ সফল হওয়ার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত একদম A to Z টিউটোরিয়াল দেয়া আছে তাই আপনাকে একটু কষ্ট করে ধৈর্য ধরে এই লম্বা আরটিকেলটি পড়তে হবে। চলোন শুরু করি।
১|একাউন্ট তৈরি করা:
প্রথমেই একটি সুন্দর নাম নির্বাচন করুন নামটাই অনেক কিছু। তাই প্রথমেই এমন একটি নাম চিন্তা করুন যা এর আগে কেউ ব্যবহার করেনি। নামটি আপনি যে কোন বিষয়ের উপর নিতে পারেন, সেটা হতে পারে রান্না বিষয়ক, গেমস নিয়ে, স্বাস্থ্য নিয়ে বা যে কোন বিষয়। দরকার হলে অনেক সময় নিয়ে চিন্তা করুন, ভাবুন তারপর ঠিক করুন আপনার ইউটিউব চ্যানেলের নাম। তবে নামটি অবশ্যই এমন একটি নাম দিবেন যাতে আপনার চ্যানেলের নাম খুব সহজে মনে রাখা যায়। ভুল করেও কখনো সংখ্যা দিয়ে নাম ব্যবহার করবেন না। একটি ইমেইল নিবার্চন করুন আপনার চ্যানেল এর জন্য আমরা সবাই জানি ইউটিউবে একাউন্ট খুলতে একটি জিমেইল লাগবে। আর এজন্য অবশ্যই আপনাকে জিমেইল ব্যবহার করতে হবে। তাই প্রথমেই একটি নতুন জিমেইল একাউন্ট খুলে নিতে হবে। একাউন্টটি অবশ্যই ভেরিভাই করে নিতে হবে।
২| কপিরাইট এবং ফেয়ার ইউজেস: আপনি যখন আপনার YouTube চ্যানেল তৈরি করে ফেলেছেন তখন আপনি YouTube এর পার্টনার। আর পার্টনার থাকা অবস্থায় এমন কোন ভিডিও আপলোড করবেন না, যাতে কপিরাইট থাকে তাই কপিরাইট এড়িয়ে চলুন। যেমন অন্যের গান এর মিউজিক নকল করে আপনার ভিডিওতে ব্যবহার, অন্য কোন টিভি চ্যানেলের অনুষ্ঠান। আপনি আপনার ভিডিওতে ইউটিউবের নিজস্ব কিছু গানের ট্রাক থেকে গান নির্বাচন করে ব্যবহার করতে পারেন বা ইন্টারনেটে অনেক ওয়েব সাইট আছে ওই গুলোতে ফ্রিতে অনেক অডিও ও ভিডিও পাবেন যা ব্যবহার করতে কোনো প্রকার কপিরাইটের প্রয়োজন নেই। কখনোই নকল করবেন না, কারণ ইউটিউব জানে আপনি কোথা থেকে কি ব্যবহার করেছন। সুতরাং সাবধান। এরপরও যদি আপনি এরকম কোন ভিডিও আপলোড করেন, তারা আপনাকে কয়েকবার সাবধান করে দিবে, আপনার কপিরাইট ভিডিও আপলোড এর সংখ্যা যদি বেশি হয় তাহলে আপনার একাউন্টটি তারা ব্যন করে দিবে।
৩| যে সফটওয়্যার গুলো ব্যবহার করবেন
ভিডিও ইডিটর
বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন https://www.techpage24.tk/2019/09/youtube-to-z.html

Level 1

আমি রবিউল ইসলাম শাকিল। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 2 বছর 9 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 13 টি টিউন ও 2 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস