পৃথিবীর সবথেকে মারাত্মক ক্ষতিকর ও প্রাণঘাতী ভয়ংকর ১০টি কীটপতঙ্গ! ভিডিওটি ছোট বাচ্চা বা হার্টের রোগীদের সামনে প্লে করবেন না

মশা, মাছি কিংবা পিঁপড়া এই নামগুলো শুনলে হয়তো আপনাদের অস্বস্তি লাগতে পারে, হয়তো বিরক্তও লাগে খানিকটা। তবে নিশ্চিতভাবে ভয় তেমন একটা লাগে না। ভয় লাগে না কারণ, এগুলো যে কতটা ক্ষতিকারক ও ভয়ানক হতে পারে তা সম্পর্কে আমাদের ভালো ধারণা নেই। এদের কিছু প্রজাতি ছড়ায় ভয়ানক রোগজীবানু, যা কেড়ে নিতে পারে মানুষসহ হাজারো প্রাণীর প্রাণ! আপাতদৃষ্টিতে নিরীহ, কিন্তু প্রাণনাশী এমন কীট-পতঙ্গ নিয়েই আমাদের এই ভিডিওটি  বানানো হয়েছে।

ভিডিওটিতে তালিকার ১০ নাম্বারে আছে ভয়ানক বুলেট পিঁপড়া। গোটা পৃথিবীতে পিঁপড়ার যতগুলো প্রজাতি আছে তার মধ্যে আকৃতিতে সব থেকে বড় এই বুলেট পিঁপড়া। এদের দেখতে পাওয়া যায় দক্ষিন আমেরিকার নিকারাগুয়া ও প্যারাগুয়ের রেইনফরেস্টে। এদের এই নামকরণের কারন হলো, এদের কামড়ে আক্রান্ত প্রাণীর শরীরে বুলেটের আঘাতের মতো যে অসহনীয় যন্ত্রণা হয়।

তালিকার ৯ নাম্বারে রয়েছে কুৎসিত আর ভয়ংকর বটফ্লাই বা ডাঁশ। এদের সবথেকে ভয়ংকর দিক হচ্ছে অল্পবয়সী মেয়ে বটফ্লাই মানুষ ও অন্যান্য তৃণভোজী প্রাণীদের চামড়ার উপর ডিম দেয়। ডিম থেকে বের হওয়া শূটকীট সেখান থেকে চামড়ার ভেতরে প্রবেশ করে এবং সেখানে ৬০ দিনেরও বেশি সময় বাস করে। পরিণত হয়ে গেলে সেগুলো সেখান থেকে শরীরের বাইরে বের হয়ে আসে। এই ৬০ দিনের ভেতরেই এ শূটকীটগুলো ত্বকের টিস্যুগুলোকে ধ্বংস করে দেয়।


বটফ্লাই বা ডাঁশ এর কার্যপ্রণালী দেখতে পারবেন ভিডিওটিতে

বুলেট পিঁপড়া ছাড়াও তালিকায় রয়েছে দুর্ধর্ষ ফায়ার অ্যান্ট

এছারাও রয়েছে ঘুমন্ত মানুষের ঠোঁটে কামড় দিয়ে রক্ত খাওয়া কীট কিসিং বাগ (Kissing Bug)


দানবীয় জাপানি হরনেট ভ্রমরসহ আরও কয়েকটি ভয়ংকর প্রাণীর তালিকার প্রথম স্থানে আছে কোন পতঙ্গ টা জানতে ভিডিওটি দেখুন এবং এরকম আরও ভিডিও দেখতে আমাদের চ্যানেলটি  ঘুরে আসুন।

Level 0

আমি রোলিং স্টোন। Owner, Rolling Stone Inc., Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 4 বছর 8 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 17 টি টিউন ও 2 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 3 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 13 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

অসাধারন