আকস্মিক বজ্রপাত থেকে যেভাবে নিজেকে রক্ষা করবেন

বজ্রপাত যেকোনো ঝড়বৃষ্টির সবথেকে বড় আতঙ্কের নাম। শহর জীবনে সুউচ্চ অট্টালিকার ভীরে এর তাণ্ডব খুব বেশী পরিলক্ষিত না হলেও মফঃস্বল ও গ্রামীণ জীবনে রীতিমত আতঙ্ক হল বজ্রপাত। বৈশাখ মাসে কালবৈশাখী ঝড়ের সময় আমাদের দেশে সবথেকে বেশী বজ্রপাতের প্রভাব পরিলক্ষিত হয়। প্রতি বছর গড়ে ৫০-৬০জন মানুষ মারা যায় বজ্রপাতে।

বজ্রপাত কি?

বজ্র অত্যন্ত গরম- একটি ফ্ল্যাশ এর চারপাশে বায়ু তাপ সূর্যের পৃষ্ঠের তুলনায় পাঁচ গুণ বেশি গরম, এই তাপের ফলে ঘূর্ণায়মান বাতাসের দ্রুত বর্ধন এবং কম্পন হয়, একটি বজ্রপাতের ফ্ল্যাশ দেখার পরে অল্প সময়ের মধ্যেই বজ্রধ্বনি শুনতে পাই।

মেঘে ধনাত্মক ও ঋণাত্মক চার্জ স্থির বিদ্যুৎ হিসাবে সঞ্চিত থাকে। ঝড়ের সময় বাতাসের প্রভাবে একটি মেঘ অপর মেঘের সঙ্গে তীব্র গতিতে সংঘর্ষে পতিত হয় উৎপন্ন হয় বিদ্যুৎ এবং তা ভূমিতে তীব্র গতিতে পতিত হয়

বিস্তারিত স্বাস্থ্য তথ্য ব্লগ এ

Level 1

আমি ডা মোঃ হাসিবুল হাকাম ইবনে সামাদ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 22 টি টিউন ও 33 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

Dr MD HASSIBUL HAKAM IBN SAMAD MBBS,MpH(PUBLIC HEALTH) PUBLIC HEALTH SPECIALIST


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস