হেনার মৃত্যু ছুঁয়ে গেছে বিশ্ববিবেক (প্রথম আলো)

টিউন বিভাগ খবর
প্রকাশিত

আজ প্রথম আলো থেকে একটা ঘটনা পরে সত্যি-ই আমি অবাক হয়েছি কারন এই যোগে এখনো কেমন করে এমন ঘটনা ঘটে ? লিখাটা পড়লে আপনারও দঃখ হবে। শরীয়তপুর থেকে বাংলাদেশ; তারপর পুরো বিশ্ব। দোররার আঘাতে আহত কিশোরী হেনার নির্মম মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র। সেই সঙ্গে হেনার নিষ্পাপ-নিথর মুখের না বলা কথাগুলো ছুঁয়ে গেছে বিশ্ববিবেককে। ১৪ বছরের কিশোরী হেনাকে ধর্ষণ, নির্যাতন, দোররা মেরে আহত করা এবং পরে তার মৃত্যুর খবর প্রভাবশালী অনেক আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমেই প্রচারিত হয়েছে। সংবাদটির ফলোআপও তারা প্রচার করছে। আর এসব গণমাধ্যমের অনলাইনে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের পাঠক তাদের ক্ষোভ ও ঘৃণা প্রকাশ করে মন্তব্য প্রকাশ করছে। হেনার মৃত্যুর খবর প্রচারকারী বিশ্বের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যমগুলোর মধ্যে রয়েছে দ্য গার্ডিয়ান, ডেইলি মেইল, দ্য টেলিগ্রাফ, স্কাই নিউজ, বিবিসি, হেরাল্ড সান, গালফ নিউজ, ডন, জাকার্তা গ্লোব, সিবিএস নিউজ, পিপলস ডেইলি অনলাইন, ডেইলি টাইমস, ইউটিভি নিউজ, এনডিটিভি, ভয়েস অব আমেরিকা, পিটিআই, ইউএসএ টুডে, অনইন্ডিয়া নিউজ, দ্য ডেইলি চিলি, ইন্ডিয়া টাইমস, জি নিউজ ও বার্তা সংস্থা এপি ও এএফপি। অধিকাংশ সংবাদমাধ্যমই হেনার মৃত্যুর সচিত্র খবর প্রকাশ করেছে। গার্ডিয়ানসহ কয়েকটি সংবাদপত্র ঘটনার ফলোআপ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। হেনার মৃত্যু নিয়ে গার্ডিয়ানের একটি খবরে তিন শতাধিক মন্তব্য পড়েছে। ডেইলি মেইলের খবরে শতাধিক ও স্কাই নিউজের খবরে অর্ধশতাধিক মন্তব্য পড়েছে। মন্তব্যকারীদের মধ্যে কেউ কেউ ওই আইনকে ‘প্রস্তর যুগের আইন’ বলে অভিহিত করেছে। এক মন্তব্যকারী ঘটনাকে ‘অসভ্য’ বলে উল্লেখ করেছেন। ফতোয়াবাজদের উদ্দেশে একজন লিখেছেন, ‘হিংস্র প্রাণীকে বাঁচতে দেওয়া উচিত নয়।’ একজন এ ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে লিখেছেন, ‘মর্মাহত হয়ে আমি বাক্যহারা।’ শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার চামটা গ্রামের হেনা গত রোববার রাতে তাঁর চাচাতো ভাই মাহাবুব (৪০) দ্বারা ধর্ষিত হন। ধর্ষণের সময় হেনার চিৎকারে মাহাবুবের স্ত্রী ও ভাই বেরিয়ে এসে তাঁরা উল্টো হেনাকে মারধর করেন। পরের দিন সোমবার বসে সালিস। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ইদ্রিস ফকিরের নেতৃত্বে গঠিত হয় পাঁচ সদস্যের বিচারক বোর্ড। মাদ্রাসার শিক্ষক সাইফুল ও গ্রামের মসজিদের ইমাম মফিজ উদ্দিনের সঙ্গে পরামর্শ করে বিচারক বোর্ড মাহবুব ও হেনাকে দোররা মারার রায় দেন। হেনাকে ৭০-৮০টি দোররা মারার পর সে অচেতন হয়ে পড়ে। স্বজনেরা তাকে উদ্ধার করে নড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার রাতে হেনা মারা যায়। হেনার এই মৃত্যুর ঘটনায় সারা দেশের মানুষ নিন্দা জানায়। অপরাধীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও উপযুক্ত শাস্তির দাবি ওঠে বিভিন্ন মহল থেকে। ( আপনার বিবেক কি বলে ? )
মুল খবরটা জানতে এখনে ক্লিক করোন

Level 0

আমি হোসাইন আহমেদ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 14 বছর 12 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 23 টি টিউন ও 258 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

আমার বিবেক বলে ভারতকে ট্রানজিট এবং সাইবার ক্যাবলে এক্সেস না দিয়ে এয়ারটেলের পাসায় লাথি মেরে ভারতের বিশাল প্ল্যান বাঞ্চাল করা। তারপর সিম্পলি ওদের সীমানায় ঢুকে…………….তারপর………….তারপর…………..

    ভাই আপনার কমেন্টের ভাষা বুঝলাম না। আপনার অবস্থান ক্লিয়ার করুন।

আসলে বলার ভাষা খোঁজে পাচ্ছিনা।এই Digital যুগে দোররা মারার বিধান এখনো আছে।ছিঃ!!

ধিক !!

টেকটিউনস কি সাধারণ ব্লগের মত হয়ে গেল নাকি ?

    না ভাই। আমাদের প্রিয় সাইটে আমারা সামাজি বিষয় লিখলেই সেটা সাধারণ হয়ে যায় না। বরং অসাধারণ হয়। আমরা এই সাইট ছেরে অন্য সাইটে যেতে ছাই না। আর তরুণরা সমাজের ও দেশের কথা তুলে ধরবেই।

    ভাই, আসলে কি, সাইট বুঝে পোস্ট দিবেন। এটা একটা টেক সাইট। এখানে আমার মনে হয় না এই ধরনের লেখা দেওয়া উচিত।
    আর যেহেতু আপনি ভালো উদ্দেশ্য সবাইকে জানাতে চান, তাহলে বিভিন্ন বাংলা ফোরাম আছে, সেখানে পোস্ট করুন।
    ধরুন সামহোয়াইরইন ব্লগের কথা। সেখানে টেকটিউন্সের চেয়ে াওনেক গুন বেশী ভিজিটর প্রতিদিন ভিজিট করে চলছেন।আর টেকটিউন্সের বেশীরভাগ সদস্যই ঐখানকারও সদস্য এবং ওনেকেই ওখানে নিয়মোতো লেখালেখিও করছেন।তার মানে আপনি যে খবরটা এখানে দিবেন, সে খবরের ব্যাপারে বহু আগে এখানকার সদস্যরা এইটা নিয়ে পড়েছেন বা আলোচনা করে এসেছেন।
    আর এখানে যারা আসে তারা শুধু টেক-এর ব্যাপারে জানার জন্য সুতরাং এই ধরনের টিউন না করাটা কাম্য।

ki je bolbo????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????

আসলে ঘটনাটা এখনও পরিস্কার বুঝতে পারছিনা। শুধুমাত্র একজনকেই শাস্তি দেয়া হবে কেন যেখানে তাকে জোর করে ধর্ষন করা হয়েছে? হেনা নয় মেরে ফেলা উচিৎ ছিল মাহবুবকে। ইসলাম সম্পর্কে ভালোভাবে না জেনেই একজন মানুষ ফতোয়া দিয়ে বসল আর সবাই সেটা চেয়ে চেয়ে দেখল? পশ্চিমা মিডিয়া তাদের প্রোপাগান্ডা চালানোর আরোও একটি রসদ পেল। আর এইসব বিশেষ+অজ্ঞ ব্যাক্তিদের অজ্ঞতায় একটি প্রান হারাল সেই সাথে ইসলামী আইনের মর্যাদাকে কলুষিত করল।

    আপনার সাথে আমার অনেক মিল খুজে পাচ্ছি,সেই প্রথম থেকেই।
    ধন্যবাদ এমন জবাবমুলক কমেন্টের জন্য।

ইসলাম শান্তির ও ন্যায়ের ধর্ম। এই ধর্মকে ব্যবহার করে যারা নিজের উদ্দেশ্য হাসিল করে আল্লাহ তাদের ব্যবস্থা করবে।

Ekta kotha sotta jor gar mollok tar.Hena hoyto Daridro familayr maya cilo thi ekok baba thaka pasano hoisa.

টেকটিউনসেও এ ধরণের পোস্ট। অবাক হচ্ছি। ভালোই লিখেছেন তবে অন্য ব্লগে লিখলে ভালো হতো।

আপনার সাথে আমার অনেক মিল খুজে পাচ্ছি,সেই প্রথম থেকেই।
ধন্যবাদ এমন জবাবমুলক কমেন্টের জন্য।

এটাকি টেকটিঊনস????????????????????????????????????????

we have to kill that socity and……………. ………………..