অবশেষে দৃষ্টিশক্তি ফিরে পাবার জিন আবিষ্কৃত হলো….”দেখ হে চাহিয়া,নয়ন মেলিয়া”

টিউন বিভাগ খবর
প্রকাশিত

অবশেষে দৃষ্টিশক্তি ফিরে পাবার জিন আবিষ্কৃত হলো...."দেখ হে চাহিয়া,নয়ন মেলিয়া"

1

অমূল্য রতন ...
আমার এই নয়ন....
চোখ না থাকলে মনুষ্য জীবন কেমান হতো ?...এই প্রশ্নের উওর আমাকে দিতে হবেনা।
চোখকে বাঁচাতে গবেষণার অন্ত নেই....

এতো দিন বিকল্প পদ্ধতি হিসাবে আমরা চক্ষুদানের প্রতি সচেতনতা বাড়িয়ে এসেছি....

কারণ মৃত্যুর ৬ঘন্টার মধ্যে চোখ দান করলে কোন জীবিত ব্যাক্তি চোখের আলো ফিরে পান..

আমাদের আধুনিক বিজ্ঞান দৃ্ষ্টি শক্তির জন্য যে জিনটি দায়ী তা চিহ্নিত করতে পেরেছে

যার ফলে অন্ধ মানুষ এবং ক্ষীণ দৃষ্টি সম্পন্ন মানুষেরা দৃষ্টি ফিরে পাবেন....

আসুন এবার আমরা জীনটির সাথে পরিচিত হই

2

জিনটির নাম RASGRF-1

পুরোনাম Ras Protein-specific Guanine nacleatide-releasing Factor 1

এই জিনটির ফ্যাক্টার গ্রাফ

3

এই জিনটিএর ইলেকট্রনিক্স মাইক্রোস্কোপের চিত্র

4

এই আবিষ্কারটি করেছেন লণ্ডনের কিংস কলেজের একদল গবেষক।
গবেষকরা দেখেছেন জিনটির সাহায্য নিয়ে যেকোনো বস্তুর ছবি গ্রহণ করে তা মস্তিষ্কে প্রেরণ করে থাকে..

পৃথিবীর কোটি কোটি মানুষ দৃষ্টিশক্তি সংক্রান্ত সমস্যায় ভুগছেন....
আগামি এক দশকের মধ্যে এর ঔষধ আবিষ্কার করা হবে..চশমার ব্যবহার বিলুপ্ত হবে আশা করা যায়..
চশমা আমরা ফেলেদেব ...

5

Level 0

আমি কলকাতা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 11 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 23 টি টিউন ও 534 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

মানুষের চেয়ে বড় কিছু নাই, নহে কিছু মহিয়ান্‌ । নাই দেশ-কাল-পাত্রের ভেদ, অভেদ ধর্মজাতি, সব দেশে সব কালে ঘরে-ঘরে তিনি মানুষের জ্ঞাতি।- ---ফেসবুকে আমি http://www.facebook.com/pages/Kolkata-India/100002338894158 আমার ব্লক http://kolkata12345.blogspot.com/


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

সকালের নাস্তা হিসাবে এটাকে গ্রহণ করলাম। অসংখ্য ধন্যবাদ।

    হজম হলে জানাবেন অন্য খাবার দেবো

Level 0

wonderful news bro……..
thanks for share with us……….

আমি মনে করেছিলাম টিউনটা এভাবে শুরু হবে………
আমি চোখ বলছি… দেখুন আমার ভিতরে আছে লেন্স আর দেখুন আমার কর্মশক্তি… চলুন দেখি কিভাবে আমি কাজ করি…………….. 😆
অনেক সুন্দর টিউন। 🙂

    এই টিউনটা খবরে প্রকাশ পেয়েছে….তাই “আমি চোখ বলছি… দেখুন ….” এই ভাবে শুরু করতে পারলাম না।
    আমার প্রতিবেদন ৩টি তৈরী আছে…..”আমি ___ বলছি…” দিয়ে….ফেব্রুয়ারি মাসে প্রকাশ করবো বলে…..
    জমা আছে…………………….
    আপনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ

সুন্দর টিউনের মাধ্যমে তথ্যটি শেয়ার করার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

চশমাগুলান ফালাই না দিয়া আমার কাছে পার্সেল কইরা দ্যান। কারন এই প্রযুক্তি বাংলাদেশে আসতে আসতে মোটা টাকার ব্যাবসা হয়ে যাবে। হা: হা: কৌন বনেগা ক্রৌড়পতি???

    পার্সেল করে পাঠাতেও ব্যাবসা………আপনি কি বলেন।

অনেক ভাল…

ভাই রসায়নের ছাত্র ছিলাম ডি এন এ এর মার প্যাচ অত বুঝিনা । গ্রাফটার ও মাথা মুন্ডু কিছু বুঝলাম না । আমার স্যার হয়ে একটু বুঝিয়ে দিলে ভাল হতো।
বেতন হিসেবে পাবেন অসংখ্য ধন্যবাদ । কি রাজি আছেনতো ?

    একটা সাধারণ ধারণা দিতে পারি

    বর্তমানে আপনি লক্ষ করবেন…বিভিন্ন খাতা, বই,বা মনোহারি জিনিসের গায়ে এক ধরনের সাদা কালো বার কোড থাকে যাতে লেজার বিম দ্বারা computer চিনতে পারে…..ওই বিশেষ জিনিসের ওই বিশেষ ছবি
    এখানেও গ্রাফটি সেই রূপ চিএ….এই জীনটির DNA.র..এই ছবি
    ২০টি অ্যামাইনো অ্যাসিড দিয়ে তৈরী…….বিভিন্ন ক্ষার ও অ্যাসিডের সাথে বিক্রিয়া করে..তার তীব্রতাকে গ্রাফে লাল কালিতে দেখানো হয়েছে ধাপে ধাপে………যা অন্য জিনের DNA র সাথে এক নয়

    টিউনটি পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

ব্যাপারটা আমি জানতাম , কারণ আমি লন্ডন এ আছি এবং এ খবরটা এখানে অনেক সাড়া ফেলেছে । তারপরও আপনার টিউন খারাপ লাগে নি । ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য ।

What a great news.
Thanks brother for sharing.