Network Marketing এর ইতিহাস, মানুষ কিভাবে বঞ্চিত হলো নেটওয়ার্ক মার্কেটিং থেকে

বিসমিল্লাহির রহমানির রাহিম, বন্ধুরা সবাই কেমন আছেন? আশাকরি মহান প্রতিপালকের দয়ায় ও মায়ায় সবাই নিজ নিজ স্থানে ভালো ও সুস্থ আছেন।

বন্ধুরা আপনারা কি নেটওয়ার্ক মার্কেটিং করতে চান? যদি আপনি নেটওয়ার্ক মার্কেটিং করতে চান তাহলে নিশ্চয় আপনার নেটওয়ার্ক মার্কেটিং এর ইতিহাস সম্পর্কে জানার আগ্রহ রয়েছে। আপনি যদি নেটওয়ার্ক মার্কেটিং করেন তাহলে একটা প্রশ্ন আপনার মাথায় নিশ্চয় ঘোর পাক্ষাচ্ছে। আপনার টিমকে বা যারা এই কাজে আপনার সাথে জড়িত তাদের কিভাবে নিরাপদ রাখা যায়। তাদের কাছ থেকে যারা নেটওয়ার্ক মার্কেটিং সম্পর্কে বাজে কথা বলে বা Negative কথা বলে।

মনে রাখবে যারা এই জগতে আপনার সাথে জড়িত তাদের নিরাপদ রাখা আপনার দায়িত্ব। কারণ সে যাতে অন্য মানুষের প্রভাবে প্রভাবিত না হয়। এই কারনে আপনাকে আপনার টিমকে সেখানো দরকার History of Network marketing নেটওয়ার্ক মার্কেটিং এর ইতিহাস। নেটওয়ার্ক মার্কেটিং শুরু কবে হয়েছিলো? যদি কেউ আপনাকে বলে নেটওয়ার্ক মার্কেটিং একটি ফালতু, এটা বেকার, আমি এটাতে অনেক সময় নষ্ট করেছি, তাহলে এর উত্তর কি? এবং তারা এসব কথা কেনো বলছে। আপনি নিশ্চয় জানতে চান এর উত্তর কি, এবং আপনাকে জানতে হবে নেটওয়ার্ক মার্কেটিং এর ইতিহাস।

বন্ধুরা আজকের এই টিউনে আমরা জানাব নেটওয়ার্ক মার্কেটিং এর ইতিহাস, এটি কিভাবে শুরু হয়েছিলো, এবং কিভাবে শুরু হয়েছিলো।
নেটওয়ার্ক মার্কেটিং ৫-১০ বছরের পুরনো ইন্ডাস্ট্রি নয়।

১. একজন মানুষের কথা বলি, Carl F Rehnborg

যিনি চায়না থেকে আমেরিকা পৌছান। তিনি চায়নাতে দেখেছিলেন অনেক মানুষকে মাল্টি ভিটামিন ব্যবহার করতে। তিনি ১৯৩৪ সালে আমেরিকাতে একটি কোম্পানি তৈরি করেন, যার নাম দেন California vitamin।

২. California Vitamin

এটা একটা মাল্টি ভিটামিন তৈরি করার কোম্পানি ছিলো। এই কোম্পানি ছিলো প্রথমে California। কিন্তু তাড়াতাড়ি এটি ছড়িয়ে পড়ে এবং বড় হয়ে যায়। ১৯৪০ সালে এই কোম্পানির নাম চেঞ্জ হয়ে যায়। নতুন নাম দেওয়া হয় Nutrilite। এটি মানুষের খুব পছন্দ হয় এবং পুরো আমেরিকায় ছড়িয়ে পড়ে। এই কোম্পানির প্রডাক্ট যে মানুষ কিনছে সেটা রেফারেল এর মাধ্যমে কথা কিনছে। মানুষ প্রডাক্ট থেকে উপকার পাচ্ছে তারপর তারা অন্য সবাইকে বলছে। মানি যা কাসটমার আসছে রেফার এর মাধ্যমে আসছে, ডাইরেক্ট নয়।

কোম্পানি ভাবলো আমরা আলাদা আলাদা জায়গায় Distributor ব্যবহার করব। তারা তাদের কাস্টমারকে Distributer বানিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল। কারণ এরাই তাদের Promotion করছে প্রোডাক্ট সেল করে। তারপর তারা ২% কমিশন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। এবং মানুষকে বলল স্যাম আপনি আমাদের কাস্টমার। আপনি আমাদের কাছ থেকে প্রোডাক্ট নেন। যদি আপনি যদি মানুষকে বলেন এবং আপনার Through যা প্রোডাক্ট বিক্রি হবে আমরা আপনাকে তার ২% কমিশন দেব। শুধু তাই নয় তারাও যদি কাউকে রেফার করে তারও কিছু Margin আপনি পাবেন।

ঠিক এই ভাবে প্রথমবার দুনিয়াতে Multi Level Marketing। এখানে সেকেন্ড লেভেল পর্যন্ত টাকা পেতে শুরু করে। তারপর ১৯৪৯ সালে তাদের এই কোম্পানিতে দুজন Distribution যুক্ত হন।

তাদের মধ্যে একজন, Jay van andel এবং দ্বিতীয় জন, Rich Devos.

পরের ১০ বছর তারা খুব দক্ষতার সাথে কাজ করেন। কিন্তু এরপর তারা তাদের Business চেঞ্জ করার সিদ্ধান্ত নেয়। তারা আবার Traditional business এর দিকে এগিয়ে গেলো। তারপর এই দুজন ১৯৬০ সালে নতুন আরেকটি কোম্পানি তৈরি করে যাকে আপনারা Amway নামে চিনেন।

এই কোম্পানির আসল নাম হলো The American Way.

৩. Amway

Amway প্রথমে কিছু ক্লিন প্রোডাক্ট বিক্রি করত যা ঘর পরিস্কার করার কাজে আসত। এরপর Amway কহুব দ্রুত গতিতে এগিয়ে যেতে লাগলো, কারণ তারা তাদের Distributer এর উপর ফোকাস করল। এবং প্রথমে দুই লেভেল নয় তিন লেভেল পর্যন্ত টাকা ইনকাম করা শুরু করে। এরপর তারা তাদের মার্কেট কে বার বার চেঞ্জ করল শুধু Disttributer কএ সুবিধা দেওয়ার জন্য। ১৯৭২ সাল পর্যন্ত Amway এত টাকা কামালো যা অন্য কোন কোম্পানি পারেনি। ১৯৭২ সালের পর কিছু মানুষ ভাবল যে তারা নেটওয়ার্ক মার্কেটিং থেকে অনেক কিছু করতে পারে।

সুতরাং তারা Amway কএ ছেড়ে দিলো, এবং অন্য সব কোম্পানি যারা Amway কে ফলো করছিলো তারাও স্কয়ার হয়ে গেলো। সৃষ্টি হলো নতুন নতুন কোম্পানি, যারা নেটওয়ার্ক মার্কেটিং নিয়ে মার্কেটে কাজ করে। এবার ১৯৯৪ সালে যে দুজন মানুষ Jay Van Andel এবং Rich Devos নিটোলাইট কে কিনে নিল। দেখুন বন্ধুরা নেটওয়ার্ক মার্কেটিং এর টাকা। এবার কি হলো ১৯৯০ এর কাছাকাছি এসব ভাইরাল কোম্পানি গুলো ভারতে চলে গেলো। ভারতের মানুষের নেটওয়ার্ক মার্কেটিং কন্সেন্ট দারুণ পছন্দ হলো।

কারণ এখানে Extra Income পাওয়া যায় Basic Income পাওয়া যায়। এরকম করে ভারতে মানুষ ইনকাম করা শুরু করে দেয়। কিন্তু একটা সমস্যা হলো এই কোম্পানি যে প্রোডাক্ট তৈরি করত তা ভারতের কোন কাজে আসত না কারণ প্রোডাক্ট ছিলো Car was ভারতের কত মানুষের কাছে কার ছিলো। কিন্তু Extra ইনকাম থাকায় মানুষ যুক্ত হচ্ছিলো। ভারতের মানুষ চিন্তা করল প্রোডাক্ট কাজে না দিলে কি হবে তাদের প্ল্যান খুব ভালো, তাই সবাই যুক্ত হতে থাকে। শুরু হলো শুধু মানুষ ধরা পয়সা লাগাও পয়সা কামাও।

এবার দেখুন বেশির ভাগ ক্ষেত্রে আজও তাই হয়ে আসছে। আর এখান থেকেই শুরু হয় Chit Fund Company। আর Chit fund এ কি হতো শুধু পয়সা লাগাও পয়সা কামাও। চলে এলো Ponzi Scheme মানুষ গুচ্ছ গুচ্ছ পয়সা ডালতে শুরু করল প্রোডাক্ট এর কোন ব্যাপার থাকলো না। এরপর মানুষের অনেক লোকশান হলো কারণ অনেক কোম্পানি মানুষের পয়সা নিয়ে ভেগে গেলো। এরপর মানুষ আরও একটা Scheme নইয়ে আসলো প্রোপার্টিতে ইনভেস্ট, ভোল্ডে ইনভেস্ট তাও আবার নেটওয়ার্ক মার্কেটিং এর দ্বারা। তারা বলল ইনভেস্টমেন্ট হচ্ছে কিন্তু সেটাও ফেক, আসলে যারা ভালো কোম্পানি ছিলো তারা Highlight হতে পারছিলো না আর যারা খারাপ কোম্পানি ছিলো তারাই Highlight হতে লাগলো।

দেখুন আপনি যদি মানুষের ভালো করতে চান তাহলে আপনি Highlight হবেন না আর যদি ভুল করেও খারাপ কিছু করেন তাহলে পরের দিন পেপারে আপনার ছবি উঠবে। মানুষ ভাবতে শুরু করল নেটওয়ার্ক মার্কেটিং ঠিক কাজ নয় তাই আমি করব না। কারণ চারিদিকে ছড়িয়ে গেছিলো এই প্রোডাক্ট গুলো ঠিক নয়। এরপর গভার্টমেন্ট এর উপর অ্যাকশন নিলো। ভারতের Direct selling Association তৈরি হলো। কিন্তু গভার্টমেন্ট এর সবকিছু ঠিক করতে সময় লাগে ফলে এই SCHEME গুলো চলতে থাকে। কিন্তু মানুষ যখন বার বার শুনতে থাওকল যে এই Scheme গুলো খারাপ তখন নেটওয়ার্ক মার্কেটিং থেকে মানুষের বিশ্বাস চলে যেতে লাগল।

আজও যদি আপনি আপনার বাবার বয়সি কাউকে জিজ্ঞেস করেন নেটওয়ার্ক মার্কেটিং কী ভালো, তারা বলবে না এটা খারাপ জিনিস। অবশেষে ভারতে কিছু ভালো কোম্পানি তৈরি হলো। যারা নিজেদের প্রোডাক্ট মানুষের কাছে পৌঁছে দিত। তারা মাল্টিলেভেল মার্কেটিং এর সাহায্য নিলেন কারণ তারা জানে যে মাল্টিলেভেল মার্কেটিং এর অনেক পাওয়ার। যদি মাল্টিলেভেল কে কিছু মুনাফা দেওয়া হয় তাহলে তার অবশ্যই প্রকাশ করবে। আর এটাই হলো Fundamental principles নেটওয়ার্ক মার্কেটিং।

মানুষ আবার কাজ শুরু করে, এবার তাদের লক্ষ্যে অন্য কোন কিছুর দিকে নয় শুধু মাত্র প্রোডাক্টের দিকে। আপনি দেখুন যারা ভালো কোম্পানি তারা প্রোডাক্ট কে আগে রেখে মানুষ কে বলল আপনারা প্রোডাক্ট Try করুন, যদি প্রোডাক্ট ভালো লাগে তবেই প্রমোট করুন। এরী হলো Genuine companies। আর আজ এরকম Genuine company গুলো নেটওয়ার্ক মার্কেটিং সঠিক প্রমাণ করে আবার শুরু করে দিয়েছে। দ্বিতীয় বারের মতো আবার নেটওয়ার্ক মার্কেটিং এর প্রতি মানুষের বিশ্বাস হতে শুরু করে দিয়েছে।

Government AND DIRECT SELLING Association গাইডলাইন নিয়ে এলো নেটওয়ার্ক মার্কেটিং এর উপর। এবং তারা বলছে যে গাইডলাইন আমরা নিয়ে এসেছি সেগুলো যে ফলো করছে সেগুলো সঠিক কোম্পানি। সুতরাং নেটওয়ার্ক মার্কেটিং এ আপনি যদি এরকম কোন কোম্পনির কথা শুনে থাকেন যেখানে ভালো প্রোডাক্ট আছে, ভালো Culture আছে, ভালো Plan আছে এরকম কোম্পানির মাধ্যমে আপনি আপনার ভাগ্য তৈরি করতে পারেন। যদি কোন প্রোডাক্ট নেই শুধু জয়েনিং আর জয়েনিং, হাওয়ায় হাওয়ায় কথা চলছে তাহলে আপনি ভেবে নিতে পারেন সেটা Ponzi Scheme। তাহলে বন্ধুরা আজ আমি নেটওয়ার্ক মার্কেটিং এর ইতিহাস বললাম সে কারণে যাতে আপনারা বুঝতে পারেন নেটওয়ার্ক মার্কেটিং কী, এবং কিভাবে শুরু হয়েছিলো।

কেন এর জন্ম হলো কীভাবে ভারত বর্ষের মানুষ ঠগেছে। যার কারণে মানুষ ভেবে নিয়েছিলো যে এটি খারাপ, কিন্ত সব মার্কেট খারাপ না। আসলে নেটওয়ার্ক মার্কেটিং খুব পাওয়ার ফুল একটি প্রোডাম, যেখানে খুব তাড়াতাড়ি টাকা ইনকাম করা যায়, যেখানে কোম্পানি লাভবান থাকে এবং মানুষেরা ও লাভবান থাকে। সুতরাং আপনি নেটওয়ার্ক মার্কেটিং কে সন্দেহ করবেনা। বন্ধুরা আজ যা পড়লেন ও দেখলেন সেটা আপনার প্রতিটি Distributor এর কাছে বলুন এবং শেখান। বন্ধুরা নেটওয়ার্ক মার্কেটিং এর ইতিহাস প্রতিটি Distributor এর জানা উচিত।

৪. নেটওয়ার্ক মার্কেটিং এর সাথে যুক্ত থাকলে যা করতে হবে

এবার আপনি যদি নেটওয়ার্ক মার্কেটিং এর সাথে যুক্ত থাকে সুতরাং শুধু Basic ট্রেনিং নিলে হবে না। নেটওয়ার্ক মার্কেটিং এ আপনি অনেক টাকা ইনকাম করতে পারেন একটি শর্তে, সেই সব স্কিল শিখে নিতে পারেন সেই সব অ্যাকশন প্ল্যান শিখে নিতে পারেন ইত্যাদি। যা বাহিরে কোথাও শেখায় না। কোম্পানি লেভেলে কেউ আপনাকে শেখাবে না। আপনাকে প্রফেশনালি শিখতে হবে।

বন্ধুরা এই ছিলো আজকের মতো এখানেই বিদায় নিচ্ছি। দেখা হবে আবার নতুন কোন টইউনে নতুন কোন বিষয় নিয়ে, ততক্ষণ সবাই ভালো ও সুস্থ থাকুন, আল্লাহ হাফেজ।

Level 5

আমি মাহবুব আলম তারেক। Sonic টিউনার, টেকটিউনস, সিলেট। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 69 টি টিউন ও 128 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 7 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 3 টিউনারকে ফলো করি।

I am a Graphics Designer, and have worked on a few other Web Sites.


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

প্রিয় ট্রাসটেড টিউনার,

আপনার টিউনটি ‘টেকটিউনস ক্যাশ’ এর জন্য প্রসেস হতে পারছে না।

কারণ:

লিস্ট বেইসড টিউনে ফরমেটিং সঠিক হয়নি।

লিস্ট বেইসড টিউনে লিস্টের

  1. প্রতিটি আইটেমের হেডিং H2 হতে হয়।
  2. প্রতিটি আইটেমের ক্রমিক নম্বর থাকতে হয় এবং প্রতিটি আইটেমের ক্রমিক নম্বর টেকটিউনস গাইডলাইন ফরমেট অনুযায়ী হতে হয়।
  3. প্রতিটি আইটেমের হেডিং এর অধীনে, আইটেমের সাথে প্রাসঙ্গিক, আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করে এমন ও ‘টেকটিউনস কপিরাইট ম্যাটেরিয়াল গাইডলাইন’ অনুসরণ করে ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ থাকতে হয়।
  4. প্রতিটি আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করা ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ গুলো H2 হেডিং এর ঠিক নিচে থাকতে হয়। অর্থাৎ H2 হেডিং এর ঠিক পরেই প্রতিটি আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করা ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ থাকতে হয়।
খেয়াল রাখুন

১. টিউনে H2, H3 বা H4 সহ যে কোন হেডিং কখনও বোল্ড করা যায় না ও লিংক করা যায় না।

২. লিস্ট বেইসড টিউনে প্রতি আইটেমের ক্রমিক নম্বর থাকতে হয়।

লিস্ট বেইসড টিউনে প্রতি আইটেমের ক্রমিক নম্বর বাংলা নিচের ফরমেটে থাকতে হয়।

১. আইটেম ১
২. আইটেম ২

এখানে প্রথমে বাংলা ক্রমিক নম্বর, তারপর একটি ডট, ডটের পর স্পেস তারপর আইটেমের নাম।

লিস্ট বেইসড টিউনে লিস্টের প্রতি আইটেমে হুবহু এই ফরমেটে ক্রমিক নম্বর থাকতে হয়।

উদারহরণ সরূপ টিউন ১টিউন ২ লক্ষ করুন।

এখানে লিস্ট বেইড টিউনে লিস্টের

  1. প্রতিটি আইটেমের হেডিং H2 রয়েছে।
  2. প্রতিটি আইটেমের ক্রমিক নম্বরের ফরমেট টেকটিউনস গাইডলাইন অনুসরণ করে রয়েছে।
  3. প্রতিটি আইটেমের হেডিং এর অধীনে, আইটেমের সাথে প্রাসঙ্গিক, আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করে এমন ও ‘টেকটিউনস কপিরাইট ম্যাটেরিয়াল গাইডলাইন’ অনুসরণ করে ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ রয়েছে।
  4. প্রতিটি আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করা ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ গুলো H2 হেডিং এর ঠিক নিচে অর্থাৎ H2 হেডিং এর ঠিক পরেই প্রতিটি আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করা ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ রয়েছে।

করণীয়:

গাইডলাইন অনুযায়ী সংশোধন করুন।

উপরের নির্দেশিত সংশোধন করে এই টিউমেন্টের রিপ্লাই দিন।

খেয়াল করুন, এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই না করে টিউনে টিউমেন্ট করলে তার নোটিফিশেন ‘টেকটিউনস কন্টেন্ট অপস’ টিম পাবে না। তাই অবশ্যই এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই করুন।

প্রিয় টিউনার,

আপনার টিউনটি ‘টেকটিউনস ক্যাশ’ এর জন্য প্রসেস হতে পারছে না।

কারণ:

লিস্ট বেইসড টিউনে ফরমেটিং সঠিক হয়নি।

লিস্ট বেইসড টিউনে লিস্টের

  1. প্রতিটি আইটেমের হেডিং H2 হতে হয়।
  2. প্রতিটি আইটেমের ক্রমিক নম্বর থাকতে হয় এবং প্রতিটি আইটেমের ক্রমিক নম্বর টেকটিউনস গাইডলাইন ফরমেট অনুযায়ী হতে হয়।
  3. প্রতিটি আইটেমের হেডিং এর অধীনে, আইটেমের সাথে প্রাসঙ্গিক, আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করে এমন ও ‘টেকটিউনস কপিরাইট ম্যাটেরিয়াল গাইডলাইন’ অনুসরণ করে ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ থাকতে হয়।
  4. প্রতিটি আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করা ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ গুলো H2 হেডিং এর ঠিক নিচে থাকতে হয়। অর্থাৎ H2 হেডিং এর ঠিক পরেই প্রতিটি আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করা ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ থাকতে হয়।
খেয়াল রাখুন

১. টিউনে H2, H3 বা H4 সহ যে কোন হেডিং কখনও বোল্ড করা যায় না ও লিংক করা যায় না।

২. লিস্ট বেইসড টিউনে প্রতি আইটেমের ক্রমিক নম্বর থাকতে হয়।

লিস্ট বেইসড টিউনে প্রতি আইটেমের ক্রমিক নম্বর বাংলা নিচের ফরমেটে থাকতে হয়।

১. আইটেম ১
২. আইটেম ২

এখানে প্রথমে বাংলা ক্রমিক নম্বর, তারপর একটি ডট, ডটের পর স্পেস তারপর আইটেমের নাম।

লিস্ট বেইসড টিউনে লিস্টের প্রতি আইটেমে হুবহু এই ফরমেটে ক্রমিক নম্বর থাকতে হয়।

উদারহরণ সরূপ টিউন ১টিউন ২ লক্ষ করুন।

এখানে লিস্ট বেইড টিউনে লিস্টের

  1. প্রতিটি আইটেমের হেডিং H2 রয়েছে।
  2. প্রতিটি আইটেমের ক্রমিক নম্বরের ফরমেট টেকটিউনস গাইডলাইন অনুসরণ করে রয়েছে।
  3. প্রতিটি আইটেমের হেডিং এর অধীনে, আইটেমের সাথে প্রাসঙ্গিক, আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করে এমন ও ‘টেকটিউনস কপিরাইট ম্যাটেরিয়াল গাইডলাইন’ অনুসরণ করে ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ রয়েছে।
  4. প্রতিটি আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করা ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ গুলো H2 হেডিং এর ঠিক নিচে অর্থাৎ H2 হেডিং এর ঠিক পরেই প্রতিটি আইটেমকে রিপ্রেজেন্ট করা ছবি/স্ক্রিনসট/ইমেইজ রয়েছে।

করণীয়:

গাইডলাইন অনুযায়ী সংশোধন করুন।

উপরের নির্দেশিত সংশোধন করে এই টিউমেন্টের রিপ্লাই দিন।

খেয়াল করুন, এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই না করে টিউনে টিউমেন্ট করলে তার নোটিফিশেন ‘টেকটিউনস কন্টেন্ট অপস’ টিম পাবে না। তাই অবশ্যই এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই করুন।

    প্রিয় টেকটিউনস
    আমি উপরে উল্লেখিত ভুল সংশোধন করেছি।

      মাত্র ৩ টি হেডিং তেরি করা হয়েছে আরও ৩ টি হেডিং তৈরি করতে হবে। নাম মাত্র হেডিং তৈরি করলে হবে না। টিউনের বিষয়বস্তুর সাথে সাথে টিউনের হেডিং এর মিল থাকতে হবে।

নির্দেশনা অনুযায়ী সঠিক ভাবে সংশোধন করার জন্য আপনার আর সর্বোচ্চো ১ টি সুযোগ রয়েছে। ১টি সুযোগের পর নির্দেশনা অনুযায়ী সঠিক ভাবে সংশোধন করতে ব্যর্থ হলে এই টিউনটি টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউন হিসেবে ও টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউন এর ক্যাশ প্রসেস বাতিল হবে।

প্রিয় ট্রাসটেড টিউনার,

আপনার টিউনটি ‘ট্রাসটেড টিউন’ হিসেবে বিবেচিত হলো না এবং টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউন হিসেবে বাতিল হলো। ফলসরূপ আপনার টিউনটিতে ‘টেকটিউনস ক্যাশ’ প্রসেস হলো না।

কারণ:

বারংবার প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করা সত্তেও সর্বচ্চো সংখ্যকবার নির্দেশনা অনুযায়ী সঠিক ভাবে প্রয়োজনীয় সংশোধন করতে ব্যর্থ হওয়ায় এই টিউনটি টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউন হিসেবে বাতিল হলো ও টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউন এর ক্যাশ প্রসেস বাতিল হলো।

করণীয়:

আপনার পরবর্তী টিউনে, টেকটিউনস গাইডলাইন অনুসরণ করে সঠিক ভাবে টিউন করুন এবং টিউনে সংশোধনের নির্দেশনা দেওয়া হলে তা সঠিক ভাবে অনুসরণ করে প্রয়োজনীয় সংশোধন করুন।

নির্দেশনা অনুযায়ী সঠিক ভাবে সংশোধন করার সর্বচ্চো সুযোগের পর নির্দেশনা অনুযায়ী সঠিক ভাবে সংশোধন করতে ব্যর্থ হলে টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউন হিসেবে টিউন বাতিল হয় ও টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউন এর ক্যাশ প্রসেস বাতিল হয়।