মোবাইলভিত্তিক T9 অভিধান

যারা এসএমএস মেসেজিংয়ে অভ্যস্ত তাদের জন্য।

মোবাইলের ব্যবহার এখন আর শুধুমাত্র ফোন করা আর ফোন রিসিভ করার মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। শুধু ভয়েস কলের সীমাবদ্ধতা আরো অনেক আগেই অতিক্রম করেছে মোবাইল ফোনের ইতিহাস। আজ মোবাইলের মাধ্যমে সবচাইতে বেশি যে কাজটি করা হচ্ছে, সেটি হচ্ছে ইন্টারনেট ব্রাউজিং।

সম্প্রতি বিবিসি'র এক জরিপ ফলাফল প্রকাশ করেছে যেখানে গবেষকগণ দেখতে পেয়েছেন, মোবাইলের জন্য তৈরী ওয়েবসাইটগুলোতে গত কয়েকমাসে রেকর্ডসংখ্যক ভিজিটর আগমন করছেন এবং নিয়মিতভাবে ব্যবহার করছেন। আপনি যদি একটি ইন্টারনেট সম্বলিত মোবাইল ফোনসেট ব্যবহার করেন, তাহলে আপনিও ওয়ার্ডপ্রেসের মত বিখ্যাত সব ওয়েবসাইটে পোস্ট লিখতে পারবেন আপনার মোবাইল ফোন থেকেই। এছাড়াও যারা এসএমএস এ অভ্যস্ত, তারা এবং এইসব সাইটের ব্যবহারকারীরা অনেকেই জানেন না যে, আপনি ইচ্ছা করলেই আপনার মোবাইলের কীপ্যাড ব্যবহার করে আগের চেয়ে দশগুণ দ্রুতগতিতে টাইপ করতে পারেন। হ্যাঁ, আপনার মোবাইলের write message অপশনে T9 নামে যে অপশনটি আছে, সেটিই হচ্ছে আপনার মোবাইলে সম্বলিত ডিকশনারী। আপনার হ্যান্ডসেটটি যত আগেরই হোক না কেন, আপনার সেটে ম্যাসেজিংয়ের অপশন থাকলেই আপনি নিশ্চিন্ত থাকতে পারেন যে আপনার মোবাইলেও ডিকশনারী সংযুক্ত আছে। আসুন জেনে নিই কীভাবে আপনি এই ডিকশনারী ব্যবহার করতে পারেন।

প্রথমে টি-নাইন ডিকশনারী সুইচ অন করুন। এবার প্রতিটি কী-ষ্ট্রোক এ একটি অক্ষরের জন্য একবার করে ক্লিক করুন। অর্থাৎ, s লিখতে হলে সাধারণ অবস্থায় 7 কী টিকে চারপার প্রেস করতে হয়। কিন্তু টি-নাইন অন থাকা অবস্থায় আপনাকে শুধু একবার 7 প্রেস করতে হবে। ধরুন আপনি লিখতে চাচ্ছেন sell। এক্ষেত্রে সাধারণ অবস্থায় আপনাকে ৭ চারবার, ৩ দুইবার, ৫ তিনবার এবং আবারও ৫ তিনবার প্রেস করতে হচ্ছে। টি-নাইন অন থাকা অবস্থায় আপনাকে প্রতিটি অক্ষরের জন্য একবার করে সংশ্লিষ্ট কী টি চাপতে হবে। অর্থাৎ, ৭ একবার, ৩ একবার, এবং L দুইবার থাকার কারণে ৫ তিনবার। দেখুন, স্বয়ংক্রিয়ভাবে sell শব্দটি আপনার এডিটরে এসে গেছে। নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন আপনার টাইপীং স্পীড এই পদ্ধতি ব্যবহারের ফলে কতটা বেড়ে যাচ্ছে!

কিছু কিছু শব্দ আছে যেগুলো একই কী-ষ্ট্রোক ব্যবহার করে একাধিক শব্দ প্রকাশ করে থাকে। যেমন আপনি যদি golf লিখতে চান, তাহলে দেখবেন আপনার মোবাইলে লেখা হয়েছে hold, কারণ একই কীগুলো দ্বারা hold ও লিখা যায়। এক্ষেত্রে আপনাকে শব্দটি পরিবর্তন করতে হবে। সাধারণত নোকিয়া হ্যান্ডসেটে # কী ব্যবহার করে একই ধরনের শব্দগুলোর মধ্যে পরিবর্তন আনা যায়। স্যামসাংয়ে ০ এবং সনি এরিকসনে জয়স্টিক ব্যবহার করে উপর-নীচ করলেই আপনার কাঙ্খিত শব্দটি পাবেন। যেমন, hold লেখা আসার পর আপনি যদি শব্দ পরিবর্তন করেন, তাহলে নোকিয়া একবার # চাপার পর আসবে gold, দ্বিতীয়বার আসবে hole এবং তৃতীয়বার আপনার কাঙ্খিত শব্দ golf টি প্রদর্শিত হবে। এবার স্পেস প্রেস করলেই আপনার লেখাটি থেকে যাবে অর্থাৎ আর পরিবর্তন হবে না।

যেহেতু আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষই বাংলিশ ভাষায় (বাংলা ও ইংরেজীর উন্নত সংস্করণ!) মেসেজিং করে থাকে, তাই এই পদ্ধতি ক'জনের কাজে আসবে, সেটা বলা দায়। তবে যারা নেট ব্যবহার করেন এবং ইংরেজীতে চ্যাট করেন, তাদের জন্য নিঃসন্দেহে একটি উপকারী প্রক্রিয়া এই T9 সফটওয়্যার যা প্রতিটি SMS সুবিধা সম্বলিত হ্যান্ডসেটেই বিদ্যমান।

Level 0

আমি মো. আমিনুল ইসলাম সজীব। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 12 বছর 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 85 টি টিউন ও 201 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 6 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

আমিনুল ভাই আমি কিন্তু T9 এর অনেক পুরোনো Fan……….ধন্যবাদ লিখার জন্য।

আপনাকেও ধন্যবাদ। তবে অনেকেই টি-নাইনের ব্যাপারটা জানেনই না। তাদের জন্য পোস্ট বা টিউনটা করলাম।

T9 টা বাংলায় এপলাই করা গেলে ভাল হতো। তাই না?

আরে তাই তো, বাংলায় তো T9 করা যায়। হলে দারুন হবে।

বুয়েটের কিছু ছেলে পেলে মনে হয় বাংলার জন্য T9 করেছে। কেউ কী এর বেশী কিছু জানেন?

এও জানতাম না!

শাব্দিক এ T9 ব্যবহার করা যায়। কিন্তু সেটা শুধু টেলিটক মোবাইলে ব্যবহার করা যায়। নোকিয়া 1110 হিন্দি T9 সমর্থন করত, বাংলা নয়। বর্তমান নোকিয়া গুলো করতে পারে।

http://sajiduc.blogspot.com