লিনাক্স পুরা ফালতু – ব্যবহার করে দিনকে দিন হতাশ হচ্ছি

টেকটিউনসে ঘুরতে ঘুরতে জরিপ আর্কাইভে দেখলাম যে এ বছর ফেব্রুয়ারী মাসে একটা জরিপে বেশিরভাগ ভোটার লিনাক্সে আগ্রহ দেখিয়েছেন। একজন লিনাক্স ব্যবহারকারী হিসেবে এই প্রসঙ্গে আমার মতটুকু ৩১-মে-২০০৯ তারিখে সচলায়তনে প্রকাশিত হয়েছিলো। সেটাই টেকটিউনসের পাঠকদের জন্য তুলে দিলাম। আশা করি, পুরাতন পোস্ট দেয়ার অপরাধ ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।


উইন্ডোজে খেলার জন্য নিড ফর স্পীড বলে একটা গেম আছে। কঠিন লড়াই করে গাড়ীর দৌড় প্রতিযোগীতায় জিততে হয়। ওটা খেলতে কঠিন মজা পেতাম। প্রতিটা চ্যালেঞ্জ জিততে দারুন মজা। কয়েকদিন পরেই কম্পিউটারের প্রতিযোগীগুলো কোনক্রমেই পেরে উঠতো না। বন্ধু বান্ধবের যারা খেলতো তারা তো কম্পিউটারের সাথেই পারে না। আমার সাথে পেরে ওঠার প্রশ্নই ওঠে না ... ... তাই ওদের সাথে খেললে মজা নষ্ট হয়ে যায়। আমার ছোট দুই ভাইও কঠিন গেমার ছিল ... ওদের সাথে তাই জমতো। এছাড়া কল অব ডিউটি বা সিমসিটি টাইপের স্ট্রাটেজি গেমগুলোও চরম আকর্ষনীয় ছিল। সবসময়ই টানটান উত্তেজনা আর চ্যালেঞ্জ। চ্যালেঞ্জ না থাকলে যে কোনো গেমই ম্যাড়ম্যাড়ে হয়ে যায়।

লিনাক্স ব্যবহার শুরু করে ভেবেছিলাম কঠিন একটা বিষয় আয়ত্তে আনছি ... চ্যালেঞ্জ জয় করছি .... কঠিন ভাব নেয়া যাবে। লোকজন ইমপ্রেস হবে। আজ এটা সমস্যা, কাল ওটা সমস্যা .... রাতে চিন্তায় ঘুম হবে না, চোখের নিচে কালি পড়বে। এই করতে হবে, সেই করতে হবে .. ... দুশ্চিন্তায় ডায়বেটিস হয়ে যাবে, হার্টের সমস্যা দেখা দিবে, মেজাজ খিটখিটে হয়ে যাবে ..... .... লোকজন জিজ্ঞেস করলে মুখ ঝামটা দিয়ে বলা যাবে ... "ধুর মিয়া অফ যান - জানেন নাতো কী রকম দৌড়ানীর উপরে আছি"। আহ .... কী চরম চ্যালেঞ্জ আর উত্তেজনা।

আমার সে আশায় গুড়ে বালি। লিনাক্সে কোন চ্যালেঞ্জই নাই। একেই তো বিনামূল্যে দেয় সেজন্য জুয়া খেলে টাকা হারাবার মত উত্তেজনা নাই, তার উপর চৌর্যবৃত্তির দারুন থ্রীল পুরাটাই মিস ....... অথচ পাইরেটেড উইন্ডোজে কত্ত উত্তেজনা; আজকে জেনুইনিটি টেস্ট কালকে ম্যালওয়্যার, পরশু ভাইরাস .... চ্যালেঞ্জের পর চ্যালেঞ্জ ... কখনই ম্যাড়মেড়ে ভাব নাই।

জেনুইনিটি টেস্টের সেই উইজেটটা নিউট্রাল করা দারুন উত্তেজনাকর .... বিল কাকুর মাইক্রোসফটকে টেক্কা দেয়া বলে কথা! ইন্টারনেট ঘেটে পদ্ধতি বের করে তারপর প্রসেস বন্ধ করতে হয়, ফাইল মুছতে হয়, রেজিস্ট্রি এন্ট্রি মুছতে হয় .... এজন্য ব্যাকআপ নিতে হয় কারণ ভুল ভাল হয়ে গেলে মেশিন বসে যাবে ---- ওয়াও!! এরকম টান টান উত্তেজনা না থাকলে জীবন চলে! অবশ্য, অরিজিনাল উইন্ডোজ ব্যবহার করলে এইসব করা লাগবে না - অন্তত তাই হওয়ার কথা। অবশ্য চুপি চুপি জানিয়ে রাখি, অরিজিনাল উইন্ডোজ ব্যবহারকারীগণ হতাশ হবেন না ... ... বিল কাকুর এই উইজেট আপনাদের জীবনেও উত্তেজনার আনন্দ দিতে পারে ... অনেক অরিজিনাল / জেনুইন ব্যবহারকারীকেও এই উইজেট পাইরেটেড বলেছে বলে শোনা যায় --- অবশ্য এতে উত্তেজিত হয়ে কারো হার্ট এ্যাটাক হয়েছে বলে শুনিনি।

তারপর ধরুন নতুন নতুন উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমগুলো হাইফাই হার্ডওয়্যার ছাড়া চলে না। অনেক ড়্যাম, অনেক বড় হার্ডডিস্ক, উচ্চমার্গীয় প্রসেসর এই সব লাগেই। এ্যাতসব হাইফাই হার্ডওয়্যার কিনলে কত ভাব নেয়া যায়, বলা যায় যে ঐসব বড় বড় হার্ডওয়্যার কম্পানিকে আমরা বাঁচিয়ে রেখেছি -- অথচ ব্যাটা ফাউল লিনাক্স, কম শক্তির পিসিতেও নাকি অনায়েসে চলে। শালার ... টাকা খরচের উপায়ই নাই।

তারপর ধরেন, ভাইরাস ভাইদের কথা। সবসময় কত উত্তেজনার মধ্যে রাখে - এই মারলো রে তো সেই মারলো করে সবসময় হৈ হুল্লোরের মধ্যে থাকা যায়। একবার দেখা গেল সকলের স্ক্রীনে ছোট ব্যানারে কী জানি হ্যাক ডে লেখা দুইটা আস্তে আস্তে ইতস্তত ঘুরাঘুরি করছে। যত ক্লিক করা হয় তত বংশ বৃদ্ধি করতে থাকে। ইন্টারনেট ঘেটে ঐটা দুর করার পদ্ধতি দেখে খুঁজে খুঁজে ওগুলো মোছা হল .... .... বলেন তো, একঘেয়ে জীবনের মধ্যে এমন ব্যতিক্রম না থাকলে ভাল লাগে! অথচ আমার কম্পিউটারে এমন কিছুই নাই। ভাইরাস নাকি বানানোরও কোন রাস্তা খোলা রাখে নাই।

আগে লিনাক্সে ভাল কোনো গেম ছিল না। তাই বড় হয়ে গিয়েছি এমন একটা ভাব আসতো। কিন্তু দেখেন কারবার, এখন দূর্দান্ত থ্রী-ডি গেমও চলে এসেছে। বড় বড় ভাব নেয়ার উপায় নাই।

আগে দেখতাম বড় ভাইরা কালো স্ক্রিনে কাজ করে ভাব নিত... ডসের মত কালো স্ক্রীনে কী কী হিজিবিজি লেখা উঠতো সেগুলো দেখে বিজ্ঞের মত মাথা নাড়াতো। ভাবলাম লিনাক্স ব্যবহার করলে তেমন ভাব নেয়ার সুযোগ হবে। কিন্তু সেই আশাও পুরা হওয়ার কোনো উপায় নাই। লিনাক্সে গ্রাফিকালি ক্লিক করেই সব করা যায় - ধ্যা-এ্যা-ত্ ।

অনেক আগে ১০ গ্রাম ঘুরে একজন মেট্রিক পাশ লোক পাওয়া যেত। একনামে সকলেই তাদেরকে চিনতো। কিন্তু এখন সেইরকম অবস্থা নাই। আমার ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার বলেছিল তাঁদের সমস্ত গ্রাহকদের মধ্যে আমি আর একজন - এই দুইজনই শুধু লিনাক্স ব্যবহার করে। তাই আলাদা ভাবে আমাদের কথা মনে থাকে। কিন্তু ইদানিং যে দ্রুত হারে ব্যবহারকারী বাড়ছে ... তাতে সেই রেয়ার স্পিশিজ বলে ভাব নেয়ারও উপায় দুর হয়ে যাচ্ছে --- নাহ্ লিনাক্সটা আসলেই যাচ্ছেতাই হয়ে গেল।

"জানিস আমার পিসি না হ্যাক হয়ে গিয়েছিলো ... যখন বুঝতে পারলাম তখন তো সাথে সাথে ইন্টারনেট ডিসকানেক্ট করলাম। তারপর সব রিইনস্টল দিয়ে ফায়ারওয়াল দিয়ে কত কি করে আবার আগের অবস্থায় ফিরে আসলাম।" ইত্যাদি ইত্যাদি কত গল্প করার বিষয় তৈরী হয় যেগুলো লিনাক্সে হওয়ার সুযোগই নাই --- হতচ্ছাড়া লিনাক্সের কারণে বন্ধু বান্ধবের সাথে আলাপ করার বিষয়বস্তু কমে যাচ্ছে।

সুতরাং হে রক্ত গরম যুবা, চ্যালেঞ্জিং জীবন চাইলে সেনাবাহিনীতে যোগ দিন, সেটা সম্ভব না হলে পাইরেটেড সফটওয়্যার ব্যবহার করুন; ভুলেও লিনাক্স চালানোর কথা ভাববেন না।

Level 0

আমি শামীম। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 14 বছর 5 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 36 টি টিউন ও 449 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

গুগল আমার সম্পর্কে জানে, কাজেই জানতে চাইলে আমার নাম বা ইউজার নামটা দিয়ে গুগল করুন ... :D


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

ভাই, এই ধরনের আবাল মার্কা পোস্ট দয়াকরে করবেন না। একটা ফালতু জিনিস পাবলিককে গেলানোর কি দরকার। উইন্ডোজ যে লিনাক্সের চেয়ে হাজার গুনে এগিয়ে আছে সেটা পাগলেও জানে। তাই এধরনের পোস্ট করে পাঠকদের বিভ্রান্ত করবেন না। ভালকিছু নিয়ে টিউন করুন যাতে করে সবাই কিছু শিখতে পারে।

    অন্যের দৃষ্টিভঙ্গির সাথে নিজেরটা না মিললেই এ্যাত চেতে যান কেন!

    আসলে আপনাদের দরকার ক্র্যাক, কিজেন, সিরিয়াল, পাইরেটেড ইত্যাদি। হ্য ভাই আপনাদের জন্য লিনাক্স না। মুক্ত মনের অধিকারী হউন। আল্লাহ আপনাকে তৌফিক দিক । আমিন।

    Level 0

    সহমত @ জয়,
    উবুন্টু খারাপ এটা নিয়ে টিউন করার কোন অর্থ নেই।আমিও উবুন্টু ব্যবহার করেছিলাম,কিন্তু আমি ত আবার .exe প্রেমিক! এটা চালাতে না পারলে দুঃখ লাগে! তাই আবার xp তে ফিরে এলাম,তবে উবুন্টু এবং লিনাক্স কে সম্মান করি, এবং সবার উচিত একে সম্মান করার।
    যেখানে দিনকে দিনকে মুক্ত ও ওপেন সোর্চ এর চর্চা দিন দিন বাড়ছে সেখানে আপনি কেন থামাতে চাইছেন! আপনার ভাল না লাগলে চুপ করে থাকুন,
    এক ধর্মের লোক হয়ে আরেক ধর্মের কটাক্ষ করা কি ঠিক ?
    দয়াকরে ভবিষ্যতে উবুন্টু বা লিনাক্সের চলার পথ থামাতে নিজের কোন মত প্রকাশ করবেন না।

    @সোহেল:
    ধর্মে সৎ পথে থাকতে বলেছে। পাইরেসি না করে সৎপথে আছি …

    এখন কে কী ধর্ম পালন করলো সেটা তো পরিষ্কার নিশ্চয়ই ….

Level 0

লিনাক্সই খুবই ভালো। সিকিউরিটি, এডমিনিষ্ট্রেশন, নেটওয়ারকিং, খুবই ভালো। লিনাক্স শুধু আপনাদের জন্য তৈরি করা হয় নি, এটি দ্বারা যারা আই.এস.পি বা সারভার পরিচালনা করে, তারা জানে এর কদর। আপনি তা বুঝবেন না। দয়া করে এ ধরনের ফালতু টিউন করবেন না। ধন্যবাদ

    আপনি মনে হয় শিরোনাম দেখেই খেপে গেলেন! 😉

    হা হা হা ……… লিনাক্স সম্পর্কে আপনার আরও ধারনার প্রয়োজন আছে। শুধু সারভার চালানোর জন্যই লিনাক্স না। লিনাক্স দিয়ে আপনি সব করতে পারবেন।

    বহু প্রাচীন আমলে লিনাক্স কেবলমাত্র সার্ভার অপারেটিং সিস্টেম ছিল। কারণ? এর সিকিউরিটি, স্ট্যাবিলিটি এবং স্পীড। ডেস্কটপেও এটি ১০০% উপযোগী।

উইন্ডোজ ৭ সবচেয়ে ভালো অপারেটিং সিস্টেম। এতে ভাইরাস/ম্যালওয়্যারের কোন সমস্যা নাই। অসংখ্য নতুন ফিচার এবং ব্যবহারবান্ধব। লিনাক্স এর ধারে কাছেও নাই।

    কত টাকা দিয়ে কিনেছেন?

      @মিস্টার ফটোশপ: পুরা ৫০ ট্যেকা দিয়া কিনছে 😛

    ভালো ব্যাপারটা আপেক্ষিক।

    আমার কাছে লাইসেন্স করা উইন্ডোজ আছে দুই কপি (ল্যাপটপ + নেটবুক)। অবশ্য সেগুলো এক্স.পি.। সেগুলোও ভালো কিন্তু সিকিউরিটিজনিত কারণে ব্যবহার করতে সাহস পাই না।

    লাইসেন্সড উইন্ডোজ ভিস্তা’ও আছে শ্বশুর-আব্বার ল্যাপটপে। এটাও জো্স। বিশেষ করে সিকিউরিটি এক্স.পি’র চেয়ে অনেক ভালো ….।

    উইন্ডোজ সেভেন খুব ভালো শুনেছি। দেখার সুযোগ হয়নি। কিছুদিন আগ পর্যন্ত ফ্রীতেই দিচ্ছিলো …. কিন্তু আমার হার্ডওয়্যার রিকোয়্যারমেন্টে খাপ খায় না 🙁

    আমি নন টেকি ব্যক্তি, তারপরেও লিনাক্সে খুব ভালো আছি। আপনি যদি ব্যবহার করে অসন্তুষ্ট হন সেটার পেছনে নিশ্চয়ই কোনো না কোনো কারণ আছে … … আর ব্যবহার না করেই যদি মন্তব্য করেন, তবে বলবো একবার হলেও লাইভ সিডি চালিয়ে (ইনস্টল ছাড়াই) এটার কম্পিজ ইফেক্ট কী জিনিষ দেইখেন … আর, ব্যবহার বান্ধবতার তুলনা বিষয়ে আমার তীব্র দ্বিমত আছে।

    ভাই আপনার জানার জন্য বলি উইন্ডোজ ৭ এর যে কার্নেল ব্যাবহার করা হয়েছে তা হল লিনাক্সের কার্নেল। উইন্ডোজ ৭ লিনাক্সের অনেক জিনিস জপি করেছে একদম সিকিউরিটি সিস্টেমসহ। তাইতো আপনি ৭ কে এতো ভালো বলছেন না হয় ভিস্তার মতই বাজে বলে এক্সপিতে ফিরে যেতেন।
    একটা কথা কিছু না জেনে বলবেন না পরে লজ্জা পাবেন,

    @তানিম

    এই তথ্যের সূত্র কী?

    ঠিক হইলে তো ফাটাফাটি লেগে যাবে 😉 … ঠিক বলেছি না!

আবাল বলতে আপনি কি বুঝেন মশাই? কথায় আছে চোরের মার বড় গলা!! আপনার দেখি তাই অবস্থা!!

    Level 0

    মিস্টার ফটোসপ:
    আপনার ফটোসপ কি লিনাক্সে চলে??
    আর আমার উইন্ডোজ ৭ জেনুইন। চোরাই না।
    আপনাদেরকে বলে হচ্ছে নিমকহারাম। ব্যবহার করেন উইন্ডোজ আর গুন গান লিনাক্সের। আপনাদের সাথে রাজাকারদের পুরো মিল। আপনাদেরকে ঘার ধরে পাছায় লাত্থি মেরে দেশ থেকে বের করে দেওয়া উচিত।

    হা হা হা । এত ক্ষেপে গেলেন। আমি কিন্তু ক্ষেপিনি। কারন আপনার মন্তব্য শুনে আমি খারাপ উক্তি আপনাকে করব আপনি আবার আরেকটা খারাপ উক্তি করবেন তা কি ভাল হবে? আসলে পাইরেসি আমাদের রন্ধে রন্ধে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে। আমার ইচ্ছা করলেই তা থেকে মুক্তি পেতে পারি। কিন্তু ইচ্ছা করছি না। গুন গাই লিনাক্সের কারন লিনাক্স ফ্রি……. আর চোরাই ফটোসপ ব্যবহার করে শান্তি পেতে পারি না। তবুও আপনাদের শেখাতে ইচ্ছে হয় তাই কষ্ট করে টিউটোরিয়াল লিখি। তাতে যদি দেশ থেকে বের করে দিতে চান আমাদের তাহলে দিয়েন। কোন সমস্যা নেই।

      ঐ মন্তব্যটা একটু ব্যক্তিগত দিকে গিয়েছিল … তাই মডারেশনে পাঠায় দিয়েছি।

      আমিও মাইন্ড খাই নাই …. কারণ, চোখ খুলে গেলে প্রাথমিক রিয়্যাকশন এরকমই হওয়ার কথা।

        ধন্যবাদ। এমনই হওয়ার কথা ছিল।

        অনেক দেরীতে হলেও আপনি যে টেক টিউনস পরিবারে যুক্ত হয়েছেন, তার জন্য রইল অসংখ্য ধন্যবাদ।
        শামীম ভাই, প্রাথমিক মন্তব্যগুলো কে মন থেকে ঝেড়ে কেশে ফেলে দিন। আমরা আপনার আরো টিউনস চাই। আমরা চাই আপনি থাকুন সবার মাঝে ।
        ধন্যবাদ

          সহমত

          😀
          কাতার ভাই, ঐ মন্তব্যগুলো খুব আকর্ষনীয় … । আর আমি সবসময়ই মা.খা.এ্যা.ন. দলে … … দুইটা মন্তব্য মডারেশনে পাঠিয়েছি… কিন্তু ফেরত আনতে পারছি না …. । ওগুলো যাঁরা করেছেন তাঁদের মনের ছাপ রেখে গিয়েছেন …

          অন্য পরিবারগুলোতে আপনারে দেখি না …. জীবিত অবস্থার অবসান ঘটেছে নাকি? জানুয়ারীতে একটা প্রোগ্রাম আছে (প্র.ফো. গেট টুগেদার) … ঐ সময়ে যদি দেশে থাকেন তবে, অবশ্যই আপনাকে সেখানে চাই।

    ফটোশপ থেকে আরো উন্নত মানের ব্যাবহার করা হয় লিনাক্সে যার নাম গিম্প। শুনছেন নিশ্চয়ই নামটা…

    মিস্টার ফটোশপের লেখা GIMP টিউটোরিয়ালগুলোর ইনডেক্স এখানে:
    http://forum.projanmo.com/topic15998.html

আপনাকেও ধন্যবাদ। 🙂

দারুন হয়েছে

লিনাক্স চালানো খুবই সহজ কোন সমস্যা হইলে আমারে মেইল দিয়েন।

    থ্যাংকু।

    কম্পিউটারে ক্যারাব্যারা লাগায় ফেলার মত অবস্থায় পড়লে খবর দেব। আপনার অ্যাভাটারটা সুন্দর …. উবুন্তুতে ৩ জন, আর এখানে ৭ জন!

হাহাহা….শামীম ভাই এই পোষ্ট আগেও পড়েছি, মজার লেখা। সবাই এত সিরিয়াস ভাবে নিচ্ছে কেন বুঝলাম না। মনে হয় ব্যপারটাই বুঝেনাই…

“উইন্ডোজ ৭ সবচেয়ে ভালো অপারেটিং সিস্টেম। এতে ভাইরাস/ম্যালওয়্যারের কোন সমস্যা নাই।” এ কথা আমি মানতে পারছিনা, কারণ উইন্ডোজ ৭ ইন্সটল করার দুদিন পর ভাইরাস দারা আমার পিসি চরম আক্রান্ত হয়েছিলো। তারপর ক্যস্পারস্কি (লাইসেন্সড) ইন্সটল করে দেখি আমার সব শেষ কইরা ফালাইছে…. 😉

    @তাওহীদুল হাসান

    থ্যাংকু।

    সিরিয়াস ভাবে যারা নিচ্ছে, বুঝতে হবে পাইরেসীর ব্যাপারটা তার জানেন। এজন্য নিজের উপরেও ওনারা একটু ক্ষিপ্ত …. সেই রাগ এখানে একটু ঝেড়ে গেলেন … … … এইটা ভাল লক্ষণ।

    এটাও সম্ভব হতে পারে… 😉

আপনে কি রাজনীতি করেন বা করতেন? পোস্টা একদম শিরোনাম বিরোধী।

    নাহ্ … তবে রাস্তায় ভি.আই.পি. জ্যামে আটকে থাকার সময় করতে ইচ্ছা জাগে 😉

    আগেরবার এই পোস্ট করার পর জানলাম এগুলোকে সারকাজম বলে! 😮

ভাই আপনার সাথে একমত
লিনাক্স পুরা ফালতু – ব্যবহার করে দিনকে দিন হতাশ হচ্ছি

টেক টিউনস পরিবারে আপনাকে স্বাগতম শামীম ভাই।

    😀

    কপি পেস্ট মেরে চালিয়ে দিলাম …. …
    নন-টেকি লোক তো তাই টেকটিউনস দেখে একটু ভয় পাই … …

Funny post…

আমি টেকটিউনস এর মোটামুটি নিয়মিত ভিজিটর। সাধারণত এখানে আসা হয় বিভিন্ন ধরণের সফটওয়্যার এর খোজ এবং ভাল কিছু টিউনার এর জন্য। কিন্তু কখনও কোন টিউন এর উপর মন্তব্য করতে ইচ্ছে হয়নি। শামীম ভাইয়ের টিউনটার জন্যই এখানে রেজিস্ট্রেশন করা এবং প্রথম কমেন্ট করা। যাই হোক যারা উইন্ডোজ লিনাক্স তর্কে যেতে চান তাদের আমি প্রজন্মতে স্বাগতম জানাচ্ছি। কারণ এ ধরণের বিতর্ক এখানে বোধহয় ভাল জমবে না। তাছাড়া এখানে মন্তব্যগুলোও পড়তে অসুবিধা(আমার মতে)। যারা আগ্রহী তারা নিচের লিংক দুটো দেখতে পারেন। দুটো টপিকই অবশ্য বন্ধ হয়ে গেছে।
http://forum.projanmo.com/topic12886.html

http://forum.projanmo.com/topic11086.html

চরম হ্ইসে চরম হইসে।।। 🙂
লিনাক্স ভালা পাই। উবুন্টু চালাই।
উইন্ডোজ বাদ দিছি ৬ মাস হতে চলল। দরকার পড়েনা।

অনেকে মনে হয় পুরা পোস্ট না পড়েই কমেন্ট করেছে। মজা পাইসি। 😀

    হি হি , পুরা পোষ্ট তো দূরে থাক কোন মতে শুধু টাইটেলটা পড়েই কমেন্ট করেছেন 🙂

কম্পিউটার কেনার পরের দিন উবুন্টু ইন্সটল দিয়েছি এবং এখনো ব্যবহার করছি, কখনো উইন্ডোজের কথা মনেও পড়েনি। শামীম ভাই অারও টিউন চাই।

@ শামীম ভাই বহু দিন পরে মন্তব্য করলাম নেভার মাইন্ড। আপনি তো ভীষন আঁতেল! টিউন দেখে মনে হবে উইন্ডোজ এর গুন গান গেয়ে একে বারে গলা দাবিয়ে ফলেছেন। কিন্তু আপনি তো উইন্ডোজরে বাঁশ দিছেন।

Level 0

ভালোবাসি তোমায় লিনাক্স ♥ ♥

Level 0

hahahahahahahahahahahahahahaha……………
shamim vai apne bil kakku re emne pochaicen je…..
hahahahahahahaha….
pet batha hoye jacce…
vai jodi kicu mone na koren taile ami eita fb te share korte chai….
hahahahahaha…..
nah… vabtaci bil kakkur kacei fira jamu…. ei madaa mara jibon r vallage na…
hahahahahaha….

শামীম ভাই, চরম একটা পোস্ট!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

Level 0

ভাই, আপনি হয়তো লিনাক্স ঠিক মত ব্যাবহারই করতে জানেন না। আপনার কাজ হইল কম্পিউটার এ গেম খেলা। কোনও জরুরি কাজ করা না। আমি নিজেও লিনাক্স ব্যাবহার করি আমার কোনও অসুবিধা হয় না। লিনাক্স অনেক ভাল ওএস। ফ্রী হিসাবে তো অনেক ভাল তাই না????

    @Tanvir: কাকে বললেন ভাই? 🙂

      Level 0

      @শামীম: কাকে বলসি বলে মনে হয় আপনার?????

        @Tanvir: আমাকে বলেছেন বলেই মনে হল। কিন্তু সেটা নিশ্চিত নই। আবার আগের মন্তব্যে কেউ এমন কিছু বলেনি যে আপনি তাকে এই কথা বলতে পারেন।

        লিনাক্স ব্যবহারকারীরা তো বোকা হয়, তাই সবকিছু না পড়েই অতি চালাকের মত ওকে বা ফরোয়ার্ডে ক্লিক করে না। বোকা জন্য আগেই ঠিক করে নেয় যে এটা আমার জানা নাই, তাই আগে পড়ি।

        … … আপনি লেখাটা পড়েছিলেন তো? নাকি শুধু শিরোনাম পড়েছেন?!! :-p
        আমার অন্য লেখাগুলো কী নিয়ে সেটা দেখেছেন?

Level 0

আপনি যে অনেক চালাক তা সেটা তো আপনার কমেন্ট দেখেই বুজা যায়। :-p আর যেখানে আপানার পোস্ট এর ১ম লাইন দেখেই মেজাজ খারাপ হইয়া গেলো, সেখানে পুরাতা পরার দরকার কি?

আসলেই লিনাক্স ফাউল।ফ্রী,ওপেন সোর্স,ভাইরাস মুক্ত,পার্ল এর মতো বাতিল মাল(???) টাইপের প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ ইত্যাদি দিয়ে তৈরী জিনিস কি আর ভালো হতে পারে।তবে সমস্যা হলো আমি এই বাতিল মাল নিয়ে অনেক খুশি।অন্তত বলতে পারি আমি পাইরেসি করিনা।পকেটে টাকা নাই তাই ফ্রী জিনিস ব্যবহার করি।আর কোন ভাইজান(???০ এর যদি লিনাক্স এর আগ্রাসী বাজার দখল এ সমস্যা থাকে আমার ঠিকানা + মেইল এড্রেস দিতাসি।উইন্ডস এর একখান জেনুইন কপি পাঠাইয়া দিয়েন।আল্লায় আপ্নের ভালা করবো।

😀
জেনুইন কপি আমি কেমনে দেই। আমার দুইখান কপি তো বিক্রি বা দান করার অধিকারও আমারে দেয় নাই। অথরাইজড রিসেলার লাগবে। :p

Level 0

লিনাক্স নিয়ে কথা বলায় এখজন খেপে রাজাকার বলে গাল দিলেন!
কিন্তু! আমার বিশ্বাস কোনদিন যদি তিনি লিনাক্স চালান, মনে মনে হলেও Sorry বলবেন!

আমরা যারা লিনাক্স ইউজ করি, আমরা নিজেদের স্বাধীন মনে করি!
আমি আমার লিনাক্স সিডির মালিক!
আমি যাকে ইচ্ছা এই সিডি দিতে পারি! আমি ইচ্ছা মত আমার নিজের ডিস্ট্রো তৈরী করতে পারি!
আমাকে কোন ক্র্যাক খুজতে হয়না! আমাকে জেনুইন ওএস বলে কারো ভাব দেখতে হয়না!
আমি যেভাবে খুশি, আমার লিনাক্স এর লুক দিতে পারি!

আমি আমার প্রিয় বন্ধুদের লিনাক্সের কথা বলি! লিনাক্সের প্রতি আমার আগ্রহ আর ভাললাগার কথা বলি!
যার ইচ্ছা লিনাক্স ব্যবহার করবে! যে কঠিন মনে করে কিংবা ভয় পায়, ব্যবহার করতে চায় না, সে করবে না!
আমার কি! আমি লিনাক্সে ভাল আছি!

কেউ নিজ থেকে লিনাক্সে আসতে চাইলে তাকে সর্বোচ্চ ভাবে হেল্প করি! এই যে বিনে বাক্যে হেল্প করি এটাও একটা আনন্দ! কাউকে মুক্ত করার আনন্দ!
@ শামীম ভাই! আপনাকে ধন্যবাদ!
যারা বুঝেনা! তারা না বুঝুক! শুধু একটাই আশা! এই বুদ্ধিটা তাদের আসুক যে, আমার তো কেউ লস করছেনা!
দেখিনা! লিনাক্স কি! একটু ভাল করে বুঝিনা এইটা কি!

সেই সব ভাইদের বলবো…উইন্ডোজ খুব ভালো ওএস, এটা খুব সত্যি! আমরা লিনাক্স ইউজাররা জানি!
কিন্তু লিনাক্স কেমন তা কয়জনা জানে!!!???

তুলনা টা এভাবে দিতে চাই!
উইন্ডোজ যদি নোকিয়া হয়!
লিনাক্স হচ্ছে এইচটসি/স্যামসাং এন্ড্রয়েড! (বিশ্বাস না হয় খোজ নিয়ে দেখুন)

আমরা একটা এন্ড্রয়েড ফোন কিনলে কেমন ভাব নি! উইন্ডোজ ইউজাররাও বাদ যাবেন না! কিন্তু একবারও কি ভেবেছি যে, এন্ড্রয়েড ও কিন্তু লিনাক্স কার্নেল-এ চলে!

তাই বলবো! অযথা তর্ক না করি! আসুন না উইন্ডোজ তো অনেক দেখলাম! পাশাপাশি লিনাক্স কেও জানি!