রিভিউঃ স্যামসাং ক্রোমবুক (গুগল ক্রোমবুক)

গুগল ক্রোমবুক তার দামের দিক থেকে অন্য সবগুলো থেকেই এটিকে আলাদা করেছে।$২৪৯ এ এতো ভালো মানের ল্যাপটপ কল্পনায় করা যায়না!
এছাড়াও এর কিছু ফিচারে ভিন্নতা আছে সাধারণ ল্যাপটপের চেয়ে। যেমন- এটি কোম অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করে, গুগলবেসড ব্রাউজার(গুগল ক্রোম), ক্লাউড স্টোরেজ আরও অনেক গুগলের এপ্স, ফিচার ব্যবহার করে।


যারা গুগলের বিভিন্ন সার্ভিস যেমন গুগল ডক্স গুগল ড্রাইভ এবং জিমেইল ব্যবহার করে তাদের জন্য এটি আরও অনেক সুবিধাজনক।
ব্যাটারির লাইফ টাইম ভালো সর্বোচ্চ ৬.৫ ঘন্টা ব্যাক আপ দেয়। এটার জন্য এক্সটা চুলিং ফ্যানের দরকার হবেনা প্রসেসর কুলই থাকবে সবসময় এবং প্রসেসরের বাড়তি কোন শব্দ হবে না।
এটিতে চাইলেই ২৫টার বেশি ট্যাব খুলে কাজ করা যাবে।
আগেকার স্যামসাং XE303C12 এবং আগেকার ক্রোমবুকের সাথে এটার বিরাট পার্থক্য আছে । এটার ১১.৬ ইঞ্চি স্ক্রিন; হাল্কা এবং পাতলা; তাছাড়া এটার কনফিগারেশন ও ভালো।

স্ক্রিনের রেজুলেশন ভালো ১৩৬৬*৭৬৮, যথেষ্ট উজ্জ্বলতা সম্পন্ন । গুগলের মতে- এটি ১০৮০পি ভিডিও প্লে করতে পারবে তবে এটি ফুল এইচডি ভিডিও প্লে করতে পারবেনা। এটার সিস্টেম মেমোরি ২ জিবি।
স্যামসাং ক্রোমোবুকের  ডিজাইনটিও ভালো। অ্যাপলের ম্যাকবুক এয়ার এর সাথে তুলনা করলে বলা যায় এটি তার থেকে সামান্য চাপা তবে গভীর এবং মোটা। কীবোর্ড, পর্যাপ্ত বড় টাচপ্যাড এবং ডুয়েল ওয়াই-ফাই কানেকশন রয়েছে।


তবে এটার স্পিকার যেটা আছে সেটা কোন মতে চলার মত।তেমন ভালো আউটপুত দেয়না। ভালো সাউন্ড পেতে হলে আলাদা স্পিকার বা হেডফোন ব্যবহার করতে হবে।
এটার ও জন ও কম মাত্র ২.৪ পাউন্ড। ল্যাপটপের বামপাশে একটি এসডি কার্ড স্লট এবং মাক্রোফোন- হেডফোনের জ্যাক রয়েছে। পিছনে ইউএসবি ২.০ পোর্ট, ইউএসবি ৩.০ পোর্ট এবং এইচডিএমআই ১.৪পোর্ট রয়েছে।

একটি ওয়েভ ক্যাম রয়েছে এবং ১৬জিবি হার্ডডিস্ক মেমোরি। ক্রোমবুক যারা ব্যবহার করে বা নিতে চাই তাদের জন্য আরো খুশির খবর হচ্ছে তারা চাইলে ১০০ জিবি পর্যন্ত গুগল ড্রাইভ মেমোরি ব্যবহার করতে পারবে যা তারা ২ বছর পর্যন্ত ব্যবহার করতে পারবে ।
তবে স্যামসাং ক্রোমোবুক যে অনেক ভালো সেটা বলা যাবেনা,দাম, কনফিগার, ফিচার, লুক সব বিবেচনা ক্রে বলা যায়  এটা তার দামের তুলনায় অনেক বেশিই ভালো।

সংক্ষেপে -

  •     ডিসপ্লে- ১১.৬'' (১৩৬৬*৭৬৮)
  •    ০.৭ ইঞ্চি পাতলা- ১।১কেজি
  •     ব্যাটারির  ব্যাক আপ ৬.৫ ঘন্টা
  •     Samsung Exynos 5 Dual Processor
  •     100 GB গুগল ক্লাউড মেমোরি এবং ১৬জিবি হার্ডডিস্ক
  •     Built-in dual band Wi-Fi 802.11 a/b/g/n
  •      ভিজিএ ক্যামেরা
  •     ১টি ইউএসবি ২.০ পোর্ট, ১টি ইউএসবি ৩.০ পোর্ট
  •     এইচডিএমআই ১.৪পোর্ট
  •     ব্লুটুথ 3.0™

পোস্ট লিখেছেন-ডোমেইন হোস্টিং সেবাদান কারী প্রতিষ্ঠান  টিউটোহোস্ট সাপোর্ট বিভাগের নিলুফার ইয়াসমিন।

একসাথে প্রকাশিত টিউটোরিয়ালবিডি ব্লগে

Level 0

আমি টিউটোহোস্ট। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 162 টি টিউন ও 69 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

টিউটোহোস্ট বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় ওয়েব হোস্টিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান। যুক্তরাস্ট্র এবং যুক্তরাজ্য ভিত্তিক দ্রুতগতির বেশ কিছু ওয়েব সারভারে গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলো নিরাপদে সংরক্ষণ করা হয়। আমরা এদেশে ২৪ ঘন্টা এবং বছরে ৩৬৫ দিন অনলাইন এবং ফোন সাপোর্টের ব্যবস্থা রেখেছি। বাংলেদশসহ অনেক দেশের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট আমাদের সারভার ব্যবহার করছে।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

খারাপ না , তবে ব্ল্যাক হলে ভালো লাগতো ।

ভালো লেগেছে, তবে বাংলাদেশে এর ব্যবহার ব্যাপক হারে হবেনা সেটা এখনি বলা সম্ভব। কারন ক্লাউড স্পেস ব্যবহার করতে হলে দ্রত গতির ইন্টারনেট এর প্রয়োজন আর সেটা বাংলাদেশে সবখানে পাওয়া প্রায় অসম্ভব*। Optional Memory ব্যবহারে কোন Restriction যদি না থাকে সে ক্ষেত্রে ও অনেক বাড়তি টাকা টাকা খরচ করবে বলে মনে হয়না।

সব মিলিয়ে জিনিস টাকে দারুন লেগেছে।

*4G নেটওয়ার্ক হলে ভিন্ন কথা।

is it availavle in bangladesh??
i want one..

16 GB…!!!!!!!!!!! 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁

এর হার্ড ডিস্ক কি পরিবর্তন করা যাবে নাকি? কেউ কিছু জানেন?