৫ টি সেরা অনলাইন বিজনেস আইডিয়া! যেগুলো আপনি শুরু করতে পারেন এখনই

টিউন বিভাগ ইন্টারনেট
প্রকাশিত
জোসস করেছেন
Level 6
শিক্ষার্থী, ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, গাজীপুর

প্রযুক্তি নির্ভর জেনারেশনে অনলাইন বিজনেস একটি জনপ্রিয় জীবীকা হয়ে উঠেছে। ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই অনেকে এই দিকে এগিয়ে আসছে। সোস্যাল নেটওয়ার্ক এর অগ্রগতি অনলাইন বিজনেস এর একটি শক্তিশালী ভীত তৈরি করেছে। ঘরে বসে অনলাইন ব্যবসা করে সফল ক্যারিয়ার গড়ে তুলেছে হাজার হাজার তরুন প্রজন্মের ছেলেমেয়ে।

অনেকেই অনলাইন বিজনেস প্লান করছেন, কিন্তু সঠিক অনলাইন বিজনেস আইডিয়া খুঁজে বের করতে পারছেন না। তাদের জন্য আজকের আয়োজনটি। জেনে নিন ৫ টি জনপ্রিয় ও ফলপ্রসূ অনলাইন বিজনেস আইডিয়া। ঘরে বসে অনলাইন ব্যবসা শুরু করে নিজের সফল ক্যারিয়ার গড়ে তুলুন। ৫ টি জনপ্রিয় অনলাইন বিজনেস আইডিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

১. অনলাইনে পোশাক ব্যবসা

অনলাইনে পোশাকের ব্যবসা

অনলাইন বিজনেস এর সবথেকে জনপ্রিয় একটি সেক্টর হলো পেশাক ব্যবসা। বর্তমানে অনলাইন মাধ্যমে পোশাক ব্যবসার বেশ ভালো সাড়া মিলছে। খুব সামান্য পুঁজি নিয়ে আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন৷ এক্ষেত্রে পোশাক ও পোশাকের কাঁচামাল সম্পর্কে আপনার ভালো ধারণা থাকতে হবে। আগে মাথায় রাখবেন এই বিষয়ে আপনার অভিজ্ঞতা ও নেটওয়ার্ক যথেষ্ট কিনা।

পণ্য কালেকশন এর পাশাপাশি ফটোগ্রাফি, মার্কেটিং ও কাস্টমার কনভেন্স করার ওপরে বেশ ভালো দক্ষতা থাকতে হবে। আপনার যদি এসকল বিষয়ে ভালো কর্তৃত্ব থাকে তাহলে শুরু করতে পারেন অনলাইনে পোশাকের বিজনেস। কেননা এই বিজনেসে বেশ ভালো প্রফিট আশা করা যায়। যোহেতু পোশাক পচনশীল দ্রব্য নয় তাই এই সেক্টরে ঝুঁকির আশঙ্কাও খুব কম।

২. হোম মেড ফুড বিজনেস

অনলাইনে হোম মেড ফুড বিজনেস

অনলাইন বিজনেস এর একটি নতুন শাখা হোম মেড ফুড বিজনেস। নারীদের ঘরে বসে আয় করার একটি অভিনব কৌশল এটি। বিনা পুঁজিতে আপনি এই অনলাইন বিজনেস প্লানটি করতে পারেন। আপনার যদি রান্নার প্রতি আকর্ষণ থাকে এবং রান্না ভালো পারেন তাহলে এই সেক্টরে আগাতে পারেন।

বর্তমানে শহরের ব্যস্ত ও চাকরিজীবী পরিবারের লোকজন সঠিক সময়ে রান্না করতে পারে না। আবার বাইরের হোটেল কিংবা রেস্টুরেন্টের কেনা খাবারও স্বাস্থ্যসম্মত নয়। এসকল পরিবারের একমাত্র ভরসা হোম মেড ফুড। অনলাইন আপনার রান্নার প্রচার করে বিক্রি করতে পারেন নিজের বাড়িতে রান্না করা খাবার। এতে কোনো বাড়তি পুঁজির দরকার হয় না। সেই সাথে এই ব্যবসাটি বর্তমানে অনেক বেশি জনপ্রিয়তা কুড়িয়েছে।

৩. অনলাইনে কসমেটিকস ব্যবসা

অনলাইনে কসমেটিকস ব্যাবসা

অনলাইন বিজনেস আইডিয়ার মধ্যে একটি জনপ্রিয় সেক্টর অনলাইনে কসমেটিকস ব্যবসা। দেশী বিদেশী বিভিন্ন স্কিন কেয়ার প্রোডাক্ট ও কসমেটিকস আইটেম নিয়ে শুরু করতে পারেন আপনার নতুন অনলাইন বিজনেস। ২০২৩ সালে এসে অনলাইনে কসমেটিকস ব্যবসা বেশ প্রসার লাভ করেছে। কসমেটিকস আইটেম সম্পর্কে ভালো ধারনা থাকলে ও প্রয়োজনীয় পুঁজি থাকলে এই বিজনেসটি শুরু করতে পারেন।

ফ্যাশন সচেতন নারীরা এখন স্কিন কেয়ারের জন্য অনলাইনে জনপ্রিয় সব সাইটের ওপর নির্ভরশীল। তাই নিজের ব্যবসা শুরু করে একটি ব্রান্ডিং করতে পারলে আর পেছন ফিরে তাকাতে হবে না। কেননা কসমেটিকস বিজনেসে লাভের পরিমাণ তুলনামূলক অনেক বেশি। তাই আগ্রহ, নেটওয়ার্ক ও পুঁজি থাকলে আজই শুরু করে দিন অনলাইনে কসমেটিকস ব্যবসার পরিকল্পনা।

৪. ডিজিটাল প্রোডাক্ট বিক্রয়

ডিজিটাল প্রোডাক্ট এর ব্যাবসা

অনলাইন বিজনেস এর এক দারুণ আইডিয়া হলো ডিজিটাল প্রোডাক্ট বিক্রয়। অনেকেই ভাবছেন ডিজিটাল প্রোডাক্ট কী?

আসলে ডিজিটাল প্রোডাক্ট হলো এমন পণ্য যা স্পর্শ করা যায় না কিন্তু এর সুবিধা ভোগ করা যায় এমন প্রোডাক্ট। ডিজিটাল প্রোডাক্ট এর মধ্যে আছে - সফটওয়্যার, ভিডিও, ফটো, লিখিত কনটেন্ট, স্ক্রিপ্ট, পিডিএফস, এমপিথ্রি, টেমপ্লেট ইত্যাদি।

আপনার যদি উপরোক্ত যে কোনো একটি ডিজিটাল পণ্য তৈরির দক্ষতা থাকে তাহলে আপনি ডিজিটাল প্রোডাক্ট সেলিং বিজনেস শুরু করতে পারেন। এজন্য চাই শুধুমাত্র একটি ল্যাপটপ বা কম্পিউটার বা স্মার্ট ফোন, পর্যাপ্ত সময় ও ভালো মানের ইন্টারনেট সংযোগ। আপনি যদি ভালো মানের ডিজিটাল প্রোডাক্ট তৈরি করতে পারেন তাহলে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের ক্রেতার সাথেই বিজনেস ডিল করতে পারবেন। আপনার এই সেক্টরে স্কিল থাকলে বা আগ্রহ থাকলে ডিজিটাল প্রোডাক্ট সেলিং এর দিকে আগাতে পারেন।

৫. ব্লগিং

ব্লগিং এর মাধ্যমে আয়

বর্তমানে অনলাইন বিজনেস এর একটি জনপ্রিয় সাইট ব্লগিং। এখন অসংখ্য ব্লগার রাতারাতি কয়েক হাজার থেকে কয়েক লাখ টাকা ইনকাম করছে ব্লগিং এর মাধ্যমে। তবে এই দিকে আগাতে চাইলে আপনার ডিজিটাল মার্কেট প্লেস সম্পর্কে স্পষ্ট ধারনা থাকতে হবে।

ভালো মানের ডিজিটাল ডিভাইস ও প্রতিভা থাকলে শুরু করে দিন ব্লগিং বিজনেস। আয় করুন আনলিমিটেড ডলার।

এই ছিলো অনলাইন বিজনেস এর সেরা কয়েকটি আইডিয়া। যে কোনো একটি আইডিয়া ফলো করে আপনিও হয়ে উঠতে পারবেন একজন সফল অনলাইন বিজনেসের মালিক। আপনাদের জানা মতে আরও যে সকল অনলাইন বিজনেস রয়েছে তা এই টিউনে টিউনমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না। ধন্যবাদ।

Level 6

আমি শারমিন আক্তার। শিক্ষার্থী, ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, গাজীপুর। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 মাস 3 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 88 টি টিউন ও 29 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 6 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস