ব্রাউজারের কুকি কী? খায় না মাথায় দেয়?

Level 0
শিক্ষার্থী, সরকারি আশেকানে আউলিয়া ডিগ্রী কলেজ, চট্টগ্রাম

আমরা যারা নিয়মিত ইন্টারনেটে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে ভিজিট করি তারা প্রায় সবাই জানি ব্রাউজার কুকি সম্পর্কে। কিন্তু আমরা সবাই কি এটা জানি, এই ব্রাউজার কুকি কি? তা কোন কাজে লাগে? কুকির সুবিধা-অসুবিধা কি? তা জানাতেই আজকের টিউন। আজকের টিউনে থাকবে ব্রাউজার কুকি নিয়ে সকল খুঁটিনাটি। তাহলে চলুন, মূল আলোচনায় যাওয়া যাক-

আজকের টিউনে যা থাকছে

  • ব্রাউজার কুকি বা HTTP কুকি কি?
  • ব্রাউজার কুকির সুবিধা কি?
  • ব্রাউজার কুকির অসুবিধা কি?

ব্রাউজার কুকি বা HTTP কুকি কী?

নাম কুকি বা বিস্কিট হলেও এই কুকি আমাদের খাওয়ার কুকি নয়। ব্রাউজারের কুকি হচ্ছে অনেক ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র তথ্যের সংমিশ্রণে গঠিত ডেটা বা উপাত্ত। ব্রাউজার কুকি মূলত HTTP কুকি, ইন্টারনেট কুকি, ওয়েব কুকি ইত্যাদি নামে পরিচিত।

আমরা যখন কোন ওয়েবসাইট ব্রাউজ করি তখন ব্রাউজার সেই ওয়েবসাইটটির পারফরমেন্স বাড়ানোর জন্য কিছু ডেটা আমদের ডিভাইসে স্টোর করে রাখে। এটাই মূলত HTTP কুকি বা ব্রাউজার কুকি। এসব কুকি প্রয়োজন অনুসারে আপনার বিভিন্ন তথ্য যেমন: আপনার নাম, ইমেইল এড্রেস, বাড়ির ঠিকানা, মোবাইল নম্বর, লোকেশন, ক্রেডিট/ডেভিড কার্ড নম্বর ইত্যাদি সংরক্ষণ করে রাখে। পরবর্তীতে আপনি আবার যখন ঐ একই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করবেন তাহলে সংরক্ষিত কুকি গুলো আপনার ওয়েব ব্রাউজিং কে আরও সহজ ও স্বাচ্ছন্দ্যের করে তুলে।

তবে যেহেতু এটি ডেটা স্টোর করে রাখে, ভাববেন না কুকি আপনার অনেক ডিস্ক স্পেস দখল করে। একটি কুকির আকার সবচেয়ে বেশি হলে ৪, ০৯৬ বাইট (তথ্য পরিমাপের একক) পর্যন্ত হতে পারে।

ব্রাউজার বা HTTP কুকির সুবিধা কি?

আগেই বলেছি, ব্রাউজার কুকি আপনার তথ্যগুলো ব্রাউজারে স্টোর করে রাখে, ফলে পরবর্তীতে আপনি ঐ একই ওয়েবসাইটে পরে প্রবেশ করলে কিছুটা সুবিধা হয়। যেমন, ধরুন আপনি ইউটিউবে সাইন ইন করলেন, ইউটিউব ব্যবহারের পর সাইন আউট না করেই ব্রাউজার বন্ধ করে দিলেন। পরে যখন আপনি আপনার ঐ একই ব্রাউজার থেকে ইউটিউবে প্রবেশ করবেন তখন আবার আপনাকে পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করতে হবে না। সরাসরি আপনি ইউটিউবে প্রবেশ করতে পারবেন। একে বলে অথেনটিকেশন কুকি (authentication cookie)।

আবার আপনি যদি ইউটিউব থেক সাইন আউট করে বের হয়ে যান তাহলে পরে আবার আপনাকে পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করতে হবে। পাসওয়ার্ড না থাকলে কেউ আপনার আইডিতে প্রবেশ করতে পারবেনা। এভাবে কুকির কারণে যে কেউ আপনার একাউন্টের এক্সেস পায় না। শুধু আপনিই আপনার একাউন্টে লগ ইন করতে পারেন।

আবার অনেক ওয়েবসাইটে দেখা যায়, সেখান থেকে কোন লিংক এ রিডাইরেক্ট হলে সেই লিংকটি নীল থেকে বেগুনী রঙয়ের হয়ে যায়। এটিও কুকিরই কাজ। আবার আপনি যখন কোন কোনও ওয়েবসাইটের কোন ফর্ম পূরণ করেন তখন তা কুকি সেইভ করে রাখে। পরে আবার সেই ফরম সেকশনে আসলে তা আগে থেকেই পূরণ করা অবস্থায় থাকে। একে বলে অটো-ফিল কুকি (auto-fill)

ব্রাউজার কুকির অসুবিধা কি?

কুকি আমাদের ওয়েব ব্রাউজিং য়ে অনেক গুরুত্বপূর্ণ হলেও সাবধানতা অবলম্বন না করলে এই কুকি আপনাকে বিপদেও ফেলতে পারে। এর কারণ থার্ড পার্টি কুকি। সাধারণত কোনও ওয়েবসাইট কুকি ব্যবহার করলে আপনার তথ্যগুলো ঐ ওয়েবসাইটেই থাকে। কিন্তু যখন আপনার তথ্য অন্য কোন অর্গানাইজেশনের হাতে চলে যায়, তখন সেটি করে থার্ড পার্টি কুকি। এগুলো সাধারণত এড দেখানোর জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকে। যেহেতু আপনার তথ্যগুলো থার্ড পার্টির কাছেও থাকে ফলে তারা আপনার পছন্দ অনুযায়ী এড দেখাবে। কিন্তু যদি কোন ভাবে আপনার ডেটা হ্যাকারদের হাতে চলে যায় কোন থার্ড-পার্টি কুকির মাধ্যমে, তাহলে আপনি অনেক ঝামেলায় পড়ে যেতে পারেন।

তবে যারা আইফোন, ম্যাক-বুক বা যেকোনো অ্যাপেলের প্রোডাক্ট ব্যবহার করে থাকেন তাহলে আপনার চিন্তার তেমন কোনও কারণ নেই। কেননা অ্যাপেলের সাফারি ব্রাউজারে আগে থেকেই থার্ড-পার্টি কুকি ব্লক করা থাকে। এছাড়া আপনি চাইলে গুগল-ক্রোম কিংবা ফায়ারফক্সেও সেটিং এ গিয়ে থার্ড-পার্টি কুকি অপশনটি বন্ধ করে নিজের নিরাপত্তাকে আরও জোরদার করে নিতে পারবেন।

আশাকরি আজকের টিউনটি আমার পাঠকদের কিছুটা হলেও উপকারে আসবে। ভালো লাগলে ফলো দিয়ে রাখুন, কোন কিছু জানার থাকলে টিউমেন্টস করুন। আজকের মতো এখানেই বিদায় নিচ্ছি। দেখা হবে পরের টিউনে, ইংশাআল্লাহ।

Level 0

আমি মো আহসান হাবীব তুর্য। শিক্ষার্থী, সরকারি আশেকানে আউলিয়া ডিগ্রী কলেজ, চট্টগ্রাম। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 মাস 3 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 3 টি টিউন ও 12 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমি মোঃ আহসান হাবীব, ছেলেবেলা থেকেই জ্ঞান-বিজ্ঞান, প্রযুক্তি ইত্যাদি নিয়ে বেশ উৎসুক ছিলাম। এখনোও তাই আছি। তবে এখন শুধু নিজে জ্ঞানার্জনই করি না সেই অর্জিত জ্ঞানকে বিলিয়ে দেয়ার চেষ্টা করি সবার কাছে।তাই করে যেতে চাই আজীবন।আমি- "জানতে ভালোবাসি, জানাতে ভালোবাসি"


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস