ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়াই ইন্টারনেট ব্যবহার করতে চাইলে যা করবেন।।। আজ থেকে ডাটা কানেকশনকে না বলুন…

আসসালামু আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহ।  আশা করি আল্লাহর অশেষ রহমতে ভালো আছেন সবাই।  ভালো থাকাটাই সবসময়ের জন্য প্রত্যাশা।তথ্য প্রযুক্তির বদৌলতে বর্তমানে আমরা এখন অনেকখানি এগিয়ে আছি। এ এগিয়ে থাকাই শেষ নয়, এখনো বাকী আছে বহু দূর পথ পাড়ী দেয়ার।   কিন্তু বহুদূর পথ পাড়ী দেয়ার পূর্বেই যদি থমকে দাড়াতে হয় তবে বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক।  আপনি সাত সমুদ্র তের নদী পার হওয়া অনেক দূরের কথা।  হঠাৎ খেয়াল করে দেখলেন আপনিতো এখনো তীরেই দাড়িয়ে আছেন।  তবে যদি হঠাৎ দৌড় শুরু করেন তবে কতটুকু সফল হবেন।  এখানেই শেষ নয়, সমস্যা্ আরো আছে।  হঠাৎ দৌড় শুরু করে কিছুদুর হয়তো আগালোন কিন্তু তাতে  হাত পা ভাঙ্গার শঙ্কাও থেকে যাবে।  যাইহোক আমি আমার প্রসঙ্গের কাছাকাছি চলে  এসেছি ।ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয়ে যখন আমরা এগিয়ে যেতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ, ঠিক তখন আমাদেরকে থমকে দেয় কিছু বাধা বিঘ্ন, কিছু প্রতিবন্ধকতা এবং কিছু সমস্যা।  সমস্যাগুলোকে ওভারকাম করাও অনেক কষ্টসাধ্য, আবার এটিকে বাদ দিয়ে চলারও সুযোগ নেই। এমন পরিস্থিতিতে আপনি কি করবেন।  হ্যাঁ, আমি মোবাইলের ডাটা কানেকশনের মাধ্যমে ইন্টারনেট ব্যবহারের কথাই বলছি।  যে দেশে আমরা ইন্টারনেট সহজলভ্য করার জন্য গলা ফাটিয়ে ফেলছি, আন্দোলনে বিলিয়ে দিচ্ছি নিজেদের, সে দেশেই আমাদের ইন্টারনেট ব্যবহার করতে গিয়ে গুণতে হচ্ছে প্রচুর টাকা।  যা আমাদের স্থবির করে দিচ্ছে, রুদ্ধ করে দিচ্ছে সামনে  এগিয়ে যাওয়ার পথ।

আমাদের দেশে যারা যারা ব্রডব্যান্ড সংযোগের সুবিধা পাচ্ছেন, তারা আনলিমিটেড ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ পাচ্ছেন প্রতিনিয়ত।   কিন্তু যাদের ব্রডব্যান্ড সংযোগ নেই, তারা বিপাকে পড়েন প্রতিনিয়ত।  সবকিছুতেই যেন সীমাবদ্ধতা।   ডাউনলোড দেয়া যাবেনা, আপলোড করা যাবে না।  মোবাইল কোম্পানীগুলো যেন গলা টিপে ধরে রাখে। আপনি যে ডাটা কানেকশনই ব্যবহার করেন না কেন তা অত্যন্ত ব্যবয়বহুল।  সাম্প্রতিক আমি ১০০ মেগাবাইট ইন্টারনেট কিনেছিলাম গ্রামীনফোন এর কাছ থেকে, অত্যন্ত দ্রুতগতিসম্পন্ন হওয়ার কারণে সেটি শেষ হয়ে গিয়েছিলো মাত্র ৫ মিনিটেই।   অতপর আবার ২৫০ মেগাবাইট কিনেও নিস্তার পাইনি, সেটি শেষ হয়ে গেছে ১০ মিনিটে।   সেক্ষেত্রে আপলোড ডাউনলোডকেতো রীতিমত কবর দিতে হবে।   চিন্তাই করা যাবে না এসবের।   যেখানে আপলোড ডাউনলোড ছাড়াই ডাটা শেষ হয়ে যাচ্ছে কয়েক মিনিটের ব্যবধানে সেখানে কি করে আমরা আগাবো, কিভাবে গড়বো ডিজিটাল বাংলাদেশ।  এবার কিনলাম ১ জিবি, কিন্তু তাতে সমস্যা, মেয়াদ ১৪ দিন আর স্পীড কম।  কেমন লাগে বলুনতো।   আবার  বাংলালিংকের মাধ্যমে ১ জিবি কানেকশন কিনলাম,  কিন্তু আরো বাজে অবস্থা। ২ জী দেখাচ্ছে, কোন পেজে ঢুকছেনা।  ১০ মেগাবাইটও ব্যবহার করতে পারলাম না।  চটকা মেরে বাদ দিয়ে দিলাম ডাটা কানেকশন নেয়ার বিষয়টি।  এমন পরিস্থিতিতে  খুব ভালো লাগার কথা, তাই না???   হ্যাঁ, এভাবেই মোবাইল কোম্পানীগুলো ডাটা কানেকশনের মাধ্যমে হাতিয়ে নিচ্ছে কোটি কোটি টাকা।  এ যেন বিলাসবহুল লাক্সারী ডাটা কানেকশন।  অথচ ব্রডব্যান্ড সংযোগে মাসিক মাত্র ৫০০ টাকায় আপনি এক লাখ টাকার সম পরিমাণ ডাটাও ডাউনলোড করতে পারবেন নিশ্চিন্তে।  এবার ভেবে দেখুন আপনি কোনটি করবেন।   কোন একসময় ব্রডব্যান্ড কানেকশনের সুবাদে আমি ১৩০ জিবি ডাউনলোড করেছিলাম মাত্র ৩ দিনের ব্যবধানে।   আবার আরেক সময় ৫ দিনে ডাউনলোড করেছিলাম ৭১ জিবি।  এভাবে আরো কিছু ডাউনলোড করেছি যার পরিমাণ প্রায়  ৫০০ গিগাবাইট এর অধিক।  অথচ এ ডাটা যদি আমি মোবাইলের ডাটা কানেকশনের মাধ্যমে ডাউনলোড করতাম তবে নিসন্দেহে আমাকে বাড়ীর জমিও বিক্রি করা লাগতো।

এক নজরে গ্রামীন ফোনের কয়েকটি অফার দেখুন...

 

আর কত!!! সময় এসেছে প্রতিবাদ জানানোর।   মোবাইল কোম্পানীর এরকম ডিজিটাল প্রতারণা থেকে মুক্তি চাই। আর সরকারের কাছে ব্রডব্যান্ড সংযোগ আরো সহজলভ্য করার জন্য আকুল আবেদন জানাই।

উপরের শিরোনাম দেখে হয়তো চমকে উঠেছেন ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়াই ইন্টারনেট কিভাবে সম্ভব।  হ্যাঁ, সত্যি কেমন হতো যদি ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়াই ইন্টারনেট পাওয়া যেত।   সুলভ মূল্যে ব্যবহার করা যেত স্বপ্নের ইন্টারনেট, তবে কেমন হতো। এ দুঃস্বপ্ন বাস্তবায়নের পথ ধরেই আমাদের এ পথ চলা  শুরু হোক।    দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করি, মোবােইলের ডাটা কানেকশন আর ব্যবহার করবো না,
প্রয়োজনে ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়াই ইন্টারনেট ব্যবহার করবো।   চেষ্টা করুন যত কষ্টই হোক, গ্রামে পাড়ায় মহল্লায় ব্রডব্যান্ড সংযোগ পাওয়ার জন্য দৃঢ় কন্ঠে আওয়াজ তুলুৃন।   বিটিসিএলসহ বিভিন্ন ব্রডব্যান্ড কোম্পানীকে ইন্টারনেট সুবিধা আরো সহজলভ্য করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবী জানাচ্ছি।  মোবাইল ডাটা কানেকশন পরিহার করে বিটিসিএল, স্যাটেলাইট ও অন্যান্য ব্রডব্যান্ড এর প্রতি সমর্থন দিয়ে জনসমর্থন তৈরী করুন।  তাতে দেশ ও জাতির অনেক কল্যাণ হবে।
মোবাইল এর ডাটা কানেকশনকে না বলুন !!!  থ্রীজী এর বদৌলতে ডিজিটাল প্রতারণার নতুন সকল ফাঁদকে না বলুন এবং এড়িয়ে চলুন চিরতরে ।

 

সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

আমার ওয়েবসাইট। 

আমার ফ্যানপেজ।

আমার ফেসবুক।

Level 2

আমি Obaid Ullah Aiman। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 107 টি টিউন ও 350 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

Computer Science & Engineering www.facebook.com/obaid.aiman


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

ভাইয়া যে ভাবে পোস্ট করছেন,মনে করছিলাম না জানি কি দেখাইবেন,,,আপনার লেখা পরে মুগ্ধ হয়ে গেছি,,,,,,

প্রতিবাদের সময় হয়ে এসেছে!!!আর দেরী করা যাবে না!!!বহুদিন সহ্য করেছি!!!এবার একটা দীর্ঘমেয়াদী এবং কঠোর আন্দোলন শুরু করে দেয়া দরকার।

Level New

Mobile internet er onek subidhau asa

আসুন এক হয়ে লড়াই শুরু করি।দশের লাঠি একের বোঝা।যখন কোম্পানীগুলো দেখতে পাবে আমরা আমাদের অবস্থান শক্ত করছি বাধ্য হবে নেটের মুল্য কমাতে।

sorkar ei niye kono chinta kore na kn?

আসলেই সত্য কথা , আমি ব্রডব্যান্ড চালাই । দিনে ১০০ জিবির উপর ডাউনলোড করতে পারি ( সিম দিয়ে করতে গেলে মরা ছাড়া উপায় ছিল না )