Slow কম্পিউটার করে নিন Fast [পর্ব-১৪] :: কম্পিউটার হাডর্ওয়্যার ট্রাবলশ্যুটিং ও মেইনটেনেন্স

আসসালামুআলাইকুম । সবাই কেমন আছেন? আশা করি আল্লাহর রহমতে ভালোই আছেন । ভালো থাকাটাই  সবসময়ের প্রত্যাশা । ইতিপূর্বে কম্পিউটার ট্রাবলশুটিং বিষয়ে কয়েকটি টিপস নিয়ে আলোচনা করেছি। আজ তারই ধারাবাহিকতায় কম্পিউটার হাডর্ওয়্যার ট্রাবলশ্যুটিং ও মেইনটেনেন্স বিষয়ে সমস্যা ও সমাধান নিয়ে আলোচনা করবো ।

চলুন যথারীতি শুরু করি । 

গত পর্বে কম্পিউটার হাডর্ওয়্যার ট্রাবলশ্যুটিং ও মেইনটেনেন্স  বিষয়ে ৩৩টি প্রশ্ন ও এর সমাধান নিয়ে আলোচনা করেছি ।  এবার সেটি অব্যাহত রাখার প্রচেষ্টায় আজকের এই পর্ব।..

 সমস্যা নং ৩৪ : কম্পিউটার অন করলে চালু হতে অনেক সময় লাগে ।  বন্ধ করতে গেলেও হাবিজাবি আপডেট হতে থাকে । অনেক সময় পরে গিয়ে অফ হয় অর্থাৎ সাট ডাউন হয় ।  

সমাধান- আপনার কম্পিউটারে অপ্রয়োজনীয় ফাইলের সংখ্যা অনেক বেশীহয়ে গেছে । অপ্রয়োজনীয় ফাইলগুলো মুছে ফেলুন, কন্ট্রোল প্যানেল এ গিয়ে  উইন্ডোজ আপডেট ওপেন করে অটোমেটিক আপডেট অফ করে দিন ।

 

সমস্যা নং ৩৫  :  কম্পিউটার-এ অপারেটিং সিস্টেম ইনস্টল করার মাঝখানে ফ্যাটাল এরর আসে । পুনরায় ফরম্যাট দিয়ে দিলেও একই অবস্থা । 

সমাধান- আপনার কম্পিউটারে অপারেটিং সিস্টেম এর সিডি পরিবর্তন করে নিন ।  সিডির ফাইল সব রিড করতে না পারলে এবং যথাযথ কপি না হলে বারবার ফ্যাটাল এরর আসবে ।  আর অবশ্যই নিশ্চিত হবেন আপনার সিডি / ডিভিডি ড্রাইভটি ভালো কাজ করে । 

 

সমস্যা নং ৩৬ :  অপারেটিং সিস্টেম ইনস্টল করার মাঝখানে নীল স্ক্রীনে এরর মেসেজ আসে ।  সেটআপ ঠিকমত হয় না । 

সমাধান- আপনার কম্পিউটারে র‌্যাম এ কোন সমস্যা থাকতে পারে  ।  র‌্যাম এর বাস স্পীড অসামঞ্জস্যপূর্ণ হলে এমন হয়ে থাকে । আপনি র‌্যাম পরিবর্তন করে দেখুন ।  আশা করি কাজ হবে ।   

সমস্যা নং ৩৭  : কম্পিউটার অন করলে ডেস্কটপ আসার আগে আবার রিস্টার্ট হয়ে যায় ।  রিস্টার্ট হওয়ার পর  কিছুক্ষণ সময় পর আবার একই অবস্থা । ফাইনালি ডেস্কটপ আসে না । 

সমাধান- আপনার কম্পিউটারের উইন্ডোজের ফাইল মিসিং হয়েছে । এক্ষেত্রে নতুন করে উইন্ডোজ ইনস্টল দিতে হবে। তবে যদি উইন্ডোজ সেভেন হয়, তবে সেটআপ না দিয়ে শুধু রিপেয়ার চেষ্টা করে দেখুন ।  রিপেয়ারে কাজ না হলে তখন নতুনভাবে উইন্ডোজ দিতে হবে ।  আর আপনার অপারেটিং সিস্টেম যদি উইন্ডোজ এক্সপি হয় তবে যদি সি ড্রাইভ ক্রাশ না করে তবে রিপেয়ার দিতে পারেন, আর ক্রাশ অর্থাৎ সি ড্রাইভ এর সিস্টেম ফাইল সম্পূর্ণভাবে ডিলিট হলে তাহলে নতুনভাবে উইন্ডোজ দিতে হবে । 

 

সমস্যা নং ৩৮ : কম্পিউটারের পাওয়ার অন করলে বারবার বীপ দিতে থাকে ।  ফার্মওয়ার এর লেখাগুলো এসে আর কিছু আসে না,  হ্যাং হয়ে থাকে ।

সমাধান-  আপনার কম্পিউটারের ক্যাসিং এর ঢাকনা খুলে র‌্যাম এর স্লট পরিবর্তন করুন ।  তাতেও একই অবস্থা হলে  র‌্যাম পরিবর্তন করে  দেখুন ।  পাশাপাশি বায়োস এর ব্যাটারী খুলে দুপ্রান্ত সর্ট করে রিসেট করে দিন ।

সমস্যা নং ৩৯: কম্পিউটারের ডেস্কটপ রেডি হতে অনেক সময় লাগে ।  ডেস্কটপ আসার পর মাউজ এর আইকন বিজি দেখায় । অনেকক্ষণ পর স্বাভাবিক হয় । 

সমাধান-  আপনার কম্পিউটারের স্টার্টআপ প্রোগ্রামগুলো অফ করে রাখুন ।  স্টার্টআপে অনেকগুলি প্রোগ্রাম জমা হয়ে থাকে, একের পর এক লোড হতে থাকে । যেকারণে ডেস্কটপ রেডি হতে প্রচুর সময় নেয় ।

সমস্যা নং ৪০ : কম্পিউটারে পেন ড্রাইভ কোনটা লাগালে পায় আবার কোনটা লাগালে নিউ হার্ডওয়ার ফাউন্ড আসে। 

সমাধান- আপনার কম্পিউটারে ইউএসবি ড্রাইভ এর ফাইল মিসিং হয়েছে, ফলে কোন কোন পেন ড্রাইভ শো করে আবার কোনটা করেনা ।  আপনার ড্রাইভার ফাইল  আপডেট দিন আর তাতে কাজ না হলে উইন্ডোজ রিপেয়ার দিন ।   এরপর দেখবেন সব পেন ড্রাইভই পাচ্ছে ।

 

সমস্যা নং ৪১: মজিলা ফায়ারফক্স ওপেন করলে কোন ওয়েব সাইটে গেলে  আনট্রাস্টেড কানেকশন দেখায়, এড এক্সেপশন দিয়ে কনফার্ম সিকিউরিটি দিলে তারপর সাইট আসে । 

 সমাধানঃ  আপনার কম্পিউটারের দিন ও তারিখ সঠিক নেই তাই এমনটি হচ্ছে ।  দিন তারিখ পরিবর্তন করে দিন ।  উপরোক্ত অপশনটি আর আসবেনা ।

 

সমস্যা নং ৪২:  ল্যাপটপ অন করলে ঘনঘন বীপ দিতে থাকে ।  আন্তাজে কোন কী প্রেস করলে তারপর বীপ দেয়া বন্ধ হয় ।

সমাধা নঃ  আপনার ল্যাপটপটির কীবোর্ড সর্ট হয়ে আছে । কীবোর্ড পরিবর্তন করুন ।  সাধারণত ডেল ইন্সপায়রন ল্যাপটপ-এ এরকম সমস্যা বেশী হতে দেখা দেয় ।  কীবোর্ডের কোন কী প্রেস করলে বীপ দেয়া বন্ধ হয় ।  এটা দ্রুত পরিবর্তন করুন নয়তো আপনার ল্যাপটপের হার্ডডিস্কও নষ্ট হয়ে যাবে খুব শীঘ্রই । 

 

সমস্যা নং ৪৩ :  কম্পিউটারে এমএস ওয়ার্ড এর ফন্ট উল্টাপাল্টা আসে ।  রিমুভ করে আবার ইন্সটল দেয়ার পরও একই অবস্থা । 

সমাধানঃ  আপনার কম্পিউটারে  বিজয় এর ভার্সন পরিবর্তন করে দিন । সুটন্নি এমজে এর ট্রু টাইপ ইন্সটল করুন, তাতে কাজ না হলে দেখুন এমএসওয়ার্ডের টুলবক্সের কোন আইকনে  ক্লিক পড়ে আছে । সেটিতে আবার ক্লিক করলে বর্ণিত সমস্যা দূর হওয়ার কথা । 

 

সমস্যা নং ৪৪ :  কম্পিউটার হতে নেটওয়ার্কে সংযুক্ত  প্রিন্টারে প্রিন্ট দিলে প্রিন্ট যায় না ।  এরর মেসেজ আসে ।

সমাধান- আপনার কম্পিউটারের সাথে সংযুক্ত প্রিন্টার  এর নেটওয়ার্ক বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে । নেটওয়ার্ক চেক করে দেখুন ।  নেটওয়ার্ক ঠিক থাকলে নির্দিষ্ট প্রিন্টারে প্রিন্ট দিলে প্রিন্ট হবে ।  

সমস্যা নং ৪৫ :  কম্পিউটার প্রচন্ড শ্লো কাজ করে  ।  একটি কমান্ডে ক্লিক করলে অনেক সময় নিয়ে এক্সিকিউট হয়।

সমাধান- আপনার কম্পিউটার অনেক স্লো হওয়ার িপিছনে একটা কারণ থাকতে পারে সেটি হচ্ছে অপ্রয়োজনীয় প্রোগ্রাম অনেক, আরেকটি হতে পারে স্লো কনফিগারেশন হওয়া সত্তে্‌বও আপডেট উইন্ডোজ দিয়েছেন, আরেকটি হতে পারে পাওয়ারফুল এন্টিভাইরাস দিয়ে পিসির বারোটা বাজিয়ে রেখেছেন । ফলে ভালো করতে গিয়ে খারাপ হয়ে গেছে ।  পিসির কনফিগারেশন দুর্বল হলে নরমাল উইন্ডোজ দিন,  ভালো একটি ফ্রী এন্টিভাইরাস দিন ।  আশা করি কাজ চালিয়ে নেয়া যাবে । 

 

সমস্যা নং ৪৬ :  কম্পিউটার -এ পেন ড্রাইভ লাগালে সব ফাইল শর্টকাট দেখায় ।  আসল ফাইল খুজে পাওয়া যায়না।

সমাধান- আপনার কম্পিউটারে ভাইরাস ছড়িয়ে গেছে ।  যেকারণে পেন ড্রাইভ লাগালেই এমন অবস্থা হয় । আপাতত ফোল্ডার অপশনে গিয়ে ভিউতে গিয়ে শো হিডেন ফাইল দিয়ে মূল ফাইল দেখতে পোরবেন ।  আর আইরিসেট নামক সফটওয়ার দিয়ে হিডেন ফাইল ঠিক করা যাবে ।  সি ড্রাইভ ফরমেট করে নতুন করে উইন্ডোজ সেটআপ দিলে এ সমস্যা আর থাকবে না ।  কাজ করার পূর্বে ফাইল নিরাপদে দূরে কোথাও রাখবেন ।  আর অবশ্যই  মেক সিউর করবেন সকল ড্রাইভ থেকে ভাইরাস দূর হয়ে গেছে ।  তারপর ব্যাকআপ কপি করে কাজ করবেন ।

সমস্যা নং ৪৭ : কম্পিউটারে ডেস্কটপ আসার পর কিছুক্ষণ পর আবার কম্পিউটার অফ হয়ে যায় । সব ডিভাইসের সংযোগ ঠিক থাকা সত্ত্বেও এমন হচ্ছে । 

সমাধান- আপনার কম্পিউটারের প্রসেসর ওভার হীট হচ্ছে ।  যে কারণে কম্পিউটার অন হয়ে কিছুক্ষণ পরই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে । বায়োসে স্বয়ংক্রিয়ভাবে প্রোগ্রাম করা আছে ওভারহীট হলেই কম্পিউটার সাট ডাউন হয়ে যাবে । এক্ষেত্রে প্রসেসরের উপর হীটসিঙ্কের নীচে কম্পাউন্ডার পেস্ট দিন ।  অতপর দেখুন কম্পিউটার আর বন্ধ হচ্ছে না ।  বাজারে প্রসেসর হীটসিঙ্ক পেস্ট বললেই হবে ২০ টাকা থেকে ৩০ টাকা নিবে প্রতি প্যাকেট ।  

 

আজ এ পর্যন্তই । পরবর্তীতে আরো অনেক সমস্যা ও সমাধান নিয়ে আসবো ।  

পর্যায়ক্রমে সমস্যা সমাধানের ধারা অব্যাহত রাখবো ইনশাআল্লাহ ।

 

আরো বিচিত্র সমস্যা ও সমাধান নিয়ে আরেকদিন হাজির হবো...

সে পর্যন্ত সবাই ভালো থাকবেন,  অনেক অনেক ভালো ।

আমার ফেসবুক ।

 

আমার ব্লগ ।  

 

আমার ফেসবুক পেজ ।

 

ও আরেকটি কথা ...  সবাইকে আমার নতুন ব্লগ বিগটেকবিডি’তে লেখার আমন্ত্রণও থাকলো ।

 

সবার জন্য শুভ কামনা।

Level 2

আমি Obaid Ullah Aiman। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 107 টি টিউন ও 350 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

Computer Science & Engineering www.facebook.com/obaid.aiman


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

ei solution er jonno dhonnobad :
সমস্যা নং ৩৫ : কম্পিউটার-এ অপারেটিং সিস্টেম ইনস্টল করার মাঝখানে ফ্যাটাল এরর আসে । পুনরায় ফরম্যাট দিয়ে দিলেও একই অবস্থা ।

সমাধান- আপনার কম্পিউটারে অপারেটিং সিস্টেম এর সিডি পরিবর্তন করে নিন । সিডির ফাইল সব রিড করতে না পারলে এবং যথাযথ কপি না হলে বারবার ফ্যাটাল এরর আসবে । আর অবশ্যই নিশ্চিত হবেন আপনার সিডি / ডিভিডি ড্রাইভটি ভালো কাজ করে ।

    @shofiqsohel48: আপনাকেও অসংখ্য ধন্যবাদ… দোয়ার দরখাস্ত রইলো ।

অনেক ধন্যবাদ! খুবই ভালো লাগলো…চালিয়ে যান।

আমার এ পর্বটি চেইন টিউনে সংযুক্ত করার অনুরোধ করছি । আরেকটি পর্ব শুরু করবো খুব শীঘ্রই… কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি ।