Google Find My Device কি? এর কাজ ও বৈশিষ্ট্য গুলো জেনে নিন

টিউন বিভাগ গুগল
প্রকাশিত
জোসস করেছেন
Level 4
ওয়ার্ড কাউন্সিলর, ১নং ভোলাহাট ইউনিয়ন পরিষদের ৭ নম্বর ওয়ার্ড, রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ

আসসালামুআলাইকুম বন্ধুরা। সবাই কেমন আছেন?আশাকরি ভাল আছেন। আমিও আপনাদের দোয়ায় ভাল আছি। ট্রাস্টের টিউনার ব্যাচ  পাওয়ার পর এটি আমার তৃতীয় টিউন। আশাকরি আমার আগের টিউন গুলো আপনাদের অনেক ভালো লেগেছে। আজকের টিউনের টাইটেল দেখেই হয়তো আপনারা বুঝে গেছেন আজকের টিউনটি সম্পর্কিত হতে যাচ্ছে। আজকে আমি গুগলের একটি বিশেষ ফিচার্স নিয়ে কথা বলবো। সেটির নাম হল গুগল ফাইন্ড মাই ডিভাইস। আর বেশি কথা বলে লাভ নেই চলুন শুরু করা যাক। তার আগে একটা কথা না বললেই নয়, মানুষ মাত্রই ভুল। তাই আমারও ভুল হতে পারে। যদি এই টিউনে আমার কোন জায়গায় ভুল হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই টিউমেন্টে আমার ভুলগুলো আমাকে ধরিয়ে দেবেন আমি পরবর্তীতে আমার ভুলগুলো সংশোধন করার চেষ্টা করব এবং টিউনটি সম্পর্কে যদি আপনাদের কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই আমাকে টিউমেন্ট করবেন আমি আপনাদের প্রতিটি টিউমেন্টের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব। তো চলুন শুরু করা যাক।

Google Find My Device কি?

গুগল ফাইন্ড মাই ডিভাইস এর কাজ এবং বৈশিষ্ট্য গুলো জানার আগে গুগল ফাইন্ড মাই ডিভাইস সম্পর্কে আমরা আগে জেনে নেই।

গুগল ফাইন্ড মাই ডিভাইস এটি গুগলের একটি বিশেষ ফিচার্স। যা কিছুদিনের মধ্যেই অত্যান্ত জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। এটিতে আপনারা নানা ধরনের ফিচার্স গুলো পাবেন যা আপনাদের প্রত্যাহিক জীবনে অত্যন্ত দরকারি। যেমন ধরুন আপনার মোবাইল কিংবা ল্যাপটপ হারিয়ে গেছে কিংবা চুরি হয়ে গেছে। এখন আপনি গুগল ফাইন্ড মাই ডিভাইস এর দ্বারা আপনার ডিভাইসকে আপনি খুঁজে বের করতে পারবেন। এছাড়া আপনার যদি ফোন চুরি হয়ে যায় তাহলে আপনি আপনার ফোনকে ফিরে পেতে পারেন নানা উপায়ে। তো চলুন আজকে আমরা সে বিষয়গুলো জেনে নিই।

Google Find My Device  এর কাজ এবং বৈশিষ্ট্য :

এর কাজ এবং বৈশিষ্ট্যগুলো চলুন আমরা এক এক করে পয়েন্ট আকারে দেখেনি

১. হারানো ডিভাইসের অবস্থান জানা

গুগল ফাইন্ড মাই ডিভাইস এর সবচেয়ে বড় ফিচার্স টি হল হারানো মোবাইলের অবস্থান জানা। ধরুন আপনার একটি ফোন কিংবা ল্যাপটপ হারিয়ে গেছে। এখন আপনি কিভাবে আপনার ওই হারানো ফোনটিকে খুঁজে বের করবেন। এজন্য গুগল ফাইন্ড মাই ডিভাইস আপনাকে সাহায্য করতে পারে। আপনার হারানো মোবাইলে যে জিমেইল আইডি দিয়ে লগইন করা আছে আপনি ওই জিমেইল আইডি দিয়ে আপনার ফোনটিকে খুঁজে বের করতে পারবেন। এর জন্য আপনি অন্য কারো ফোনে গুগল ফাইন্ড মাই ডিভাইস লিখে সার্চ করবেন। তারপর ওপরেই লোকেশন ট্র্যাক নামের একটি অপশন দেখতে পাবেন। এখানে ক্লিক করে আপনার হারানো ফোনের জিমেইল আইডি দিয়ে লগইন করবেন তারপর সাথে সাথে ওরা আপনাকে আপনার হারানো ফোনের লোকেশন দেখিয়ে দেবে। এভাবে আপনি আপনার হারানো ফোন খুঁজে বের করতে পারবেন।

২. Data Delete

আপনার যদি ফোন হারিয়ে যায় কিংবা অন্য কেউ আপনার ফোনটি পেয়ে যায় এবং আপনার ফোনে যদি আপনার কোনো ব্যক্তিগত কোনো তথ্য থাকে, যে তথ্যগুলো কারো জানান নয় তাহলে আপনি আপনার হারানো ফোনটির সকল তথ্য ডিলিট করে দিতে পারবেন এই ফিচার্স টির দ্বারা। এ ফিচার্স টির দ্বারা আপনি আপনার ফোনে থাকা যে কোন নম্বর, যেকোন ফাইল, কিংবা যেকোন অডিও ভিডিও মিডিয়া আপনি ডিলিট করে দিতে পারবেন। এজন্য আপনি এভাবে গুগল ফাইন্ড মাই ডিভাইস লিখে অন্য ফোন থেকে গুগলে সার্চ করবেন তাহলে আপনি ওয়েবসাইটটি পেয়ে যাবেন এবং ওয়েব সাইটের উপরে দেখবেন লেখা থাকবে ডাটা ডিলিট নামের একটি অপশন। ঐখানে ক্লিক করে আপনি আপনার ফোনটিকে ম্যানেজমেন্ট করতে পারবেন এবং আপনার ফোনটিকে আপনি যেসব জিনিস মুছে ফেলতে চান সেগুলো মুছে ফেলতে পারবেন। এ ফিচার্স গুগল ফাইন্ড মাই ডিভাইস এর জন্য খুব ভালো। গুগল ফাইন্ড মাই ডিভাইস এর অনেক ধরনের ফিচার্স রয়েছে যা আমি বলে শেষ করতে পারবো না। কিন্তু এটা আমি সংক্ষিপ্তভাবে কিছু বলছি।

৩. Secure Device

এই ফিচার্স টির দ্বারা আপনি আপনার ফোনের যেকোন ফাইল লক করে দিতে পারবেন। এছাড়াও আপনি চাইলে আপনার ফোনকে লক করে দিতে পারবেন। যদি আপনার ফোনে লক করা না থাকে তবুও আপনি গুগল ফাইন্ড মাই ডিভাইস ওয়েবসাইটে দ্বারা আপনার ফোনটিকে লক করে দিতে পারবেন। আর হ্যাঁ আপনি যদি মোবাইলের লোকেশন খুঁজে বের করতে চান তাহলে অবশ্যই কিন্তু আপনাকে আপনার ফোনে জিপিএস অন করা থাকতে হবে। আর এই অপশনটির জন্য আপনার সেরকম কোন কিছু করতে হবেনা। আপনার ফোনটি হারিয়ে গেলে আপনি সেটি কে লক করে দিতে পারবেন এই ফিচার্স টির দ্বারা। এটিও ঠিক ঐ রকমই আপনি যেকোন ফোন দিয়ে গুগল ফাইন্ড মাই ডিভাইস এ প্রবেশ করে আপনার জিমেইল আইডি দিয়ে লগইন করে আপনার ফোনটিকে আপনি এই অপশনটি দ্বারা লক করে দিতে পারবেন।

৪. Ringtone Sound

এই ফিচার্স টি খুব ভালো। আপনি আপনার ফোনকে খুঁজে বের করতে পারবেন এই ফিচার্স টির দ্বারা। এক্ষেত্রে আপনার ফোন চুরি না হলেও আপনি এ ফিচার্স টি ব্যবহার করতে পারবেন। যেমন ধরুন আপনার ফোন আপনি কোথায় রেখেছেন তা ভুলে গেছেন এখন আপনি ওইটা কে খুঁজে বের করতে পারছেন না। কিংবা অন্য কারো ফোন থেকে ফোন করছেন কিন্তু হয়তো আপনার ফোন সাইলেন্ট  করা আছে তাই আপনার ফোনের রিংটোন বাজছেনা। এক্ষেত্রে আপনার ফোন যদি সাইলেন্ট করা থাকে তাহলে আপনি এ ফিচার্স টি ব্যবহার করে আপনার ফোনটিকে খুঁজে বের করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে ঠিক ঐ রকম ভাবেই গুগল ফাইন্ড মাই ডিভাইস প্রবেশ করতে হবে তারপর সাউন্ড রিংটোন এ ক্লিক করে আপনি আপনার ফোনে 5 মিনিটের জন্য রিংটোন বাজাতে পারবেন। যে কেউ ইচ্ছা করলে ওয়েলিংটন কাটতে পারবে না শুধুমাত্র আপনি ছাড়া। আপনার ফোন সাইলেন্ট থাকলেও এ ফিচার্স টি আপনার ফোনে কাজ করবে।

এই ওয়েবসাইটের ফিচার্স গুলো আপনাদের বলে শেষ করা যাবে না তাই আমি আমার এই টিউনে সংক্ষিপ্তভাবে কিছু বলে রাখলাম। যাতে আপনারা এই ওয়েবসাইটটি কিংবা অ্যাপসটি সম্পর্কে ধারণা পেয়ে থাকেন। আপনারা যদি এই ফিচার্স গুলো সম্পর্কে আলাদা আলাদাভাবে কোন টিউন কিংবা ভিডিও টিউন পেতে চান তাহলে অবশ্যই আমাকে টিউমেন্ট করবেন। আমি অবশ্যই সে নিয়ে কোনো একটি টিউন তৈরি করে ফেলব। যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই টিউনটিতে একটা লাইক দেবেন এবং যদি কোন উপকার পেয়ে থাকেন তাও একটি লাইক আপনার কাছে আশা করা যায়। আর যদি টিউনের সম্পর্কে আপনার কোন প্রশ্ন থেকে থাকে কিংবা কোনো মতামত থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই আমাকে টিউমেন্ট করে জানাবেন। আমি আপনাদের প্রতিটি টিউমেন্টের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব। সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন এবং টেকটিউনসের সাথে থাকুন। আসসালামু আলাইকুম।

Level 4

আমি মো: আহাসানুল কবির। ওয়ার্ড কাউন্সিলর, ১নং ভোলাহাট ইউনিয়ন পরিষদের ৭ নম্বর ওয়ার্ড, রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 1 বছর 1 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 37 টি টিউন ও 93 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 5 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 6 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

নির্দেশনা [০১]

প্রিয় ট্রাস্টেড টিউনার,

আপনার টিউনটি ‘টেকটিউনস ক্যাশ’ এর জন্য প্রসেস হতে পারছে না।

কারণ:

টিউনের টিউন থাম্বনেইল এ ভুল করা হয়েছে। টিউনের টিউন থাম্বনেইলের শিরোনাম/টেক্সট এ দাঁড়ি (।) ব্যবহার করা হয়েছে।

টেকটিউনস স্ট্যান্ডার্ড টিউন ফরমেটিং গাইডলাইন অনুযায়ী টিউনের শিরোনাম ও টিউনের টিউন থাম্বনেইলের শিরোনাম/টেক্সট এ দাঁড়ি (।) ব্যবহার করা যায় না।

করণীয়:

টিউনের টিউন থাম্বনেইলের শিরোনাম/টেক্সট এ দাঁড়ি (।) অপসারণ করুন।

খেয়াল করুন: আপনার এই টিউন সংশোধনের জন্য আপনাকে সর্বোচ্চ ৫ বার নির্দেশনা দেওয়া হবে। এই ৫ বার নির্দেশনার মধ্যে আপনি যদি টিউন সঠিক ভাবে ও নির্ভুল ভাবে সংশোধনে ব্যর্থ হোন তবে এই টিউন টি ‘টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউন’ এর জন্য প্রসেস হবে না এবং ‘টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউন’ এর জন্য বাতিল হবে। নির্দেশনার ক্রমিক নম্বর নির্দেশনার শুরুতে নির্দেশনা [০১], নির্দেশনা [০২] এভাবে দেওয়া থাকে।

উপরের নির্দেশিত সংশোধন করে এই টিউমেন্টের রিপ্লাই দিন।

খেয়াল করুন, এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই না করে টিউনে টিউমেন্ট করলে তার নোটিফিশেন ‘টেকটিউনস কন্টেন্ট অপস’ টিম পাবে না। তাই অবশ্যই এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই করুন।

নির্দেশনা [০১]

প্রিয় টিউনার,

আপনার টিউনটি ‘টেকটিউনস ট্রাস্টেড টিউন’ এর জন্য প্রসেস হতে পারছে না।

কারণ:

টিউনে, টিউনের সাথে মিল রেখে প্রাসঙ্গিক টিউন বিভাগ নির্বাচন করা হয়নি।

করনীয়:

টিউনে, টিউনের সাথে মিল রেখে প্রাসঙ্গিক টিউন বিভাগ নির্বাচন করে টিউন আপডেট করুন।

খেয়াল করুন: আপনার এই টিউন সংশোধনের জন্য আপনাকে সর্বোচ্চ ৫ বার নির্দেশনা দেওয়া হবে। এই ৫ বার নির্দেশনার মধ্যে আপনি যদি টিউন সঠিক ভাবে ও নির্ভুল ভাবে সংশোধনে ব্যর্থ হোন তবে এই টিউন টি ‘টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউন’ এর জন্য প্রসেস হবে না এবং ‘টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউন’ এর জন্য বাতিল হবে। নির্দেশনার ক্রমিক নম্বর নির্দেশনার শুরুতে নির্দেশনা [০১], নির্দেশনা [০২] এভাবে দেওয়া থাকে।

উপরের নির্দেশিত সংশোধন করে এই টিউমেন্টের রিপ্লাই দিন।

খেয়াল করুন, এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই না করে টিউনে টিউমেন্ট করলে তার নোটিফিশেন ‘টেকটিউনস কন্টেন্ট অপস’ টিম পাবে না। তাই অবশ্যই এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই করুন।

নির্দেশনা [০২]

প্রিয় টিউনার,

আপনার টিউনটি ‘টেকটিউনস ট্রাস্টেড টিউন’ এর জন্য প্রসেস হতে পারছে না।

কারণ:

টিউনের টিউন কন্টেন্ট এ বানান ভুল করা হয়েছে।

ফিউচারস => ফিচার্স
ফিউচার্জ => ফিচার্স

করণীয়:

টিউনের শিরোনাম, টিউন থাম্বনেইল, টিউন কন্টেন্ট এ ভুল বানান ঠিক করুন।

টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউনার হিসেবে টিউনের টিউন থাম্বনেইলে, টিউনের শিরোনামে ও টিউনের কন্টেন্টে কোন প্রকার বানান ভুল থাকা যায় না। প্রতিটি টিউন প্রকাশের আগে ‘অভ্র স্পেল চেকার’ দিয়ে টিউনের টিউন থাম্বনেইলের, টিউনের শিরোনামের ও টিউনের কন্টেন্টের বানান চেক করে, নিজে কয়েকবার রিভিশন দিয়ে নিশ্চিত হতে হয় যে টিউনে কোন প্রকার বানান ভুল নেই।

‘অভ্র স্পেল চেকার’ দিয়ে টিউনের টিউন থাম্বনেইলের, টিউনের শিরোনামের ও পুরো টিউনের কন্টেন্টের বানান চেক করুন, সেই সাথে নিজে কয়েকবার রিভিশন দিয়ে নিশ্চিত হোন যে টিউনে কোন প্রকার বানান ভুল নেই।

খেয়াল করুন: আপনার এই টিউন সংশোধনের জন্য আপনাকে সর্বোচ্চ ৫ বার নির্দেশনা দেওয়া হবে। এই ৫ বার নির্দেশনার মধ্যে আপনি যদি টিউন সঠিক ভাবে ও নির্ভুল ভাবে সংশোধনে ব্যর্থ হোন তবে এই টিউন টি ‘টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউন’ এর জন্য প্রসেস হবে না এবং ‘টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউন’ এর জন্য বাতিল হবে। নির্দেশনার ক্রমিক নম্বর নির্দেশনার শুরুতে নির্দেশনা [০১], নির্দেশনা [০২] এভাবে দেওয়া থাকে।

উপরের নির্দেশিত সংশোধন করে এই টিউমেন্টের রিপ্লাই দিন।

খেয়াল করুন, এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই না করে টিউনে টিউমেন্ট করলে তার নোটিফিশেন ‘টেকটিউনস কন্টেন্ট অপস’ টিম পাবে না। তাই অবশ্যই এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই করুন।

নির্দেশনা [০১]

প্রিয় টিউনার,

আপনার টিউনটি ‘টেকটিউনস ট্রাস্টেড টিউন’ এর জন্য প্রসেস হতে পারছে না।

কারণ:

টিউন থাম্বনেইল এ বানান ভুল রযেছে।

Goolge => Google

করণীয়:

টিউন থাম্বনেইল এ ভুল বানান ঠিক করুন।

টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউনার হিসেবে টিউনের টিউন থাম্বনেইলে, টিউনের শিরোনামে ও টিউনের কন্টেন্টে কোন প্রকার বানান ভুল থাকা যায় না। প্রতিটি টিউন প্রকাশের আগে ‘অভ্র স্পেল চেকার’ দিয়ে টিউনের টিউন থাম্বনেইলের, টিউনের শিরোনামের ও টিউনের কন্টেন্টের বানান চেক করে, নিজে কয়েকবার রিভিশন দিয়ে নিশ্চিত হতে হয় যে টিউনে কোন প্রকার বানান ভুল নেই।

‘অভ্র স্পেল চেকার’ দিয়ে টিউনের টিউন থাম্বনেইলের, টিউনের শিরোনামের ও পুরো টিউনের কন্টেন্টের বানান চেক করুন, সেই সাথে নিজে কয়েকবার রিভিশন দিয়ে নিশ্চিত হোন যে টিউনে কোন প্রকার বানান ভুল নেই।

খেয়াল করুন: আপনার এই টিউন সংশোধনের জন্য আপনাকে সর্বোচ্চ ৫ বার নির্দেশনা দেওয়া হবে। এই ৫ বার নির্দেশনার মধ্যে আপনি যদি টিউন সঠিক ভাবে ও নির্ভুল ভাবে সংশোধনে ব্যর্থ হোন তবে এই টিউন টি ‘টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউন’ এর জন্য প্রসেস হবে না এবং ‘টেকটিউনস ট্রাসটেড টিউন’ এর জন্য বাতিল হবে। নির্দেশনার ক্রমিক নম্বর নির্দেশনার শুরুতে নির্দেশনা [০১], নির্দেশনা [০২] এভাবে দেওয়া থাকে।

উপরের নির্দেশিত সংশোধন করে এই টিউমেন্টের রিপ্লাই দিন।

খেয়াল করুন, এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই না করে টিউনে টিউমেন্ট করলে তার নোটিফিশেন ‘টেকটিউনস কন্টেন্ট অপস’ টিম পাবে না। তাই অবশ্যই এই টিউমেন্টের রিপ্লাই বাটনে ক্লিক করে রিপ্লাই করুন।