গেমস জোন [পর্ব-২৯৯] :: ফিফা ১৮ প্রিভিউ

টিউন বিভাগ গেমস
প্রকাশিত

গেমস জোন

নিড ফর স্পিড, কল অফ ডিউটি থেকে ফিফা গেমস সিরিজটি প্রতি বছর বছর গেমারদের কাছে বেশ জনপ্রিয় হয়ে আসছে এবং প্রতি বছর বছর একই ফুটবল গেম বের করা হলেও এর প্রতি গেমারদের আকর্ষণ কমে না গিয়ে বরং বছর প্রতি বেড়েই চলেছে। আর প্রতি বছরের ধারাবাহিকতায় এবারের ফিফা ফুটবল গেম ফিফা ১৮ বাজারে আসছে আর কিছুদিন পরেই!

গত বছরের ফিফা ১৭ গেমে স্টোরি বেইড ক্যারিয়ার মোড “The Journey" কে নতুন করে গেমে আনা হয় যেখানে এলেক্স হান্টার নামের এক তরুণ ফুটবল প্লেয়ারের ক্যারিয়ার নিয়ে সাজানো হয়েছিল আর এ বছরের ফিফা ১৮ গেমে এই ক্যারিয়ারের সিকুয়্যেল “The Journey: Hunter Returns" থাকছে যেখানে এলেক্স হান্টার সরাসরি স্পটলাইটে খেলার সুযোগ পাবে। এছাড়া দ্যা জার্নিতে তুমি প্রতিটি ফুটবল ম্যাচে সরাসরি এলেক্সের ভুমিকায় খেলতে পারবে অথবা পুরো টিমের হয়েও খেলতে পারবে।

আর প্রতিটি ম্যাচের শেষে আলাদা করে ট্রেইনিং ড্রিলস রয়েছে আর ক্যারিয়ার মোডে জনপ্রিয়তা অর্জনের সাথে সাথে তোমাকে বিভিন্ন প্রেস কনফারেন্সে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দিতে হবে। আর এই জবাব দেবার জন্য তোমাকে তিনটি ভিন্ন ভিন্ন ডায়ালগ অপশন দেওয়া হবে সেখান থেকে তোমাকে পছন্দমত একটি বেছে নিতে হবে। এটা অনেকটা Mass Effect গেমের ডায়ালগ অপশনের মতোই।

গত বছরের ফিফা গেমটি DICE কোম্পানির ফ্রস্টবাইট ইঞ্জিণে নিয়ে আসার পর গেমটির গ্রাফিক্স কোয়ালিটি এবং এনিমেশনে বাস্তবিক ইফেক্ট দেওয়া চেষ্টা করা হয়েছিল আর সেটাই এ বছরের ফিফা ১৮ গেমটিতে থাকছে। তবে এবারের ফিফা ১৮ গেমের ফেসিয়াল ডিটেইলস অনান্য বছরের ফিফা গেমের তুলনায় বেশ চমকপ্রদ হবে। প্লেয়ার শরীল থেকে ঘামের ফোঁটা সহ জুতার ফিতাকেও এবারের ফিফা গেমে বাস্তবিক ইফেক্টে দেখা যাবে।

এছাড়াও গেমটি খেলার সময় বাতাসে ঘাঁসের ঢেউ, ফুটবল এবং বুটের সংঘর্ষ সহ অনেক ইন গেম ডিটেইলস এবারের ফিফা গেমে গ্রাফিক্স আপডেট হিসেবে নিয়ে আসা হয়েছে। গেমটিতে প্লেয়ারগুলো দাঁড়িয়ে থাকলে বুঝা যায় যে এরা ভিডিও গেম ক্যারেক্টার কিন্তু খেলার সময় যখন প্লেয়ারগুলো দৌড়াবে তখন কোনো বুঝার উপায় থাকবে না যে এরা আসল প্লেয়ার না ভিডিও গেমের ক্যারেক্টার!

ফিফা গেমস সিরিজের পপুলার মোড আল্টিমেইট টিম এবারের ফিফা ১৮ গেমেও থাকছে তবে নতুন ফিচার হিসেবে থাকছে "Squad Battles" যেখানে টিমগুলো একই শত্রু টিমের সাথে তাদের পারফরমেন্সকে কমপেয়ার করতে পারবে। এখানে থাকবে লিডারবোর্ড সিস্টেম, কিছু ঘন্টা পর লিডারবোর্ডে সবার উপরে যে থাকবে তাকে বোনাস আল্টিমেইট টিম কারেন্সি এবং কার্ড প্যাকস পুরস্কার হিসেবে দেওয়া হবে।

তবে এই লিডারবোর্ডে স্থান পেতে হলে তোমাকে অবশ্যই কঠিন টাইপের প্রাকটিস করতে হবে। এই সিস্টেমের মাধ্যমে তোমাকে আর অনলাইনে অন্য কোনো প্লেয়ারকে খুঁজতে হবে না! এছাড়াও আল্টিমেইট টিমের বাকি ফিচারগুলো সিরিজের আগের গেমসগুলোর মতো থাকবে। যেমন ম্যাচ খেলে কয়েন অর্জন করা, নতুন নতুন ডেইলি এবং উইকলি অবজেক্টিভ ইত্যাদি। আর এই সকল পয়েন্টগুলো নতুন নতুন কার্ড প্যাকে খরচ করে তোমার স্কোয়াড থেকে পারফেক্ট করতে পারবে।

যারা যারা বেশি সময় ধরে গেমটি খেলতে চাও না তাদের জন্য জন্য রয়েছে Short Leagues এবং Cup Challenges মোড। তবে আল্টিমেইট টিমের আসল মজা পেতে হলে তোমাকে অবশ্যই ধৈর্য্য ধরে এর প্রতিটি বিষয় কে বুদ্ধির সাথে খেলে যেতে হবে।

ফিফা ১৮ গেমটি মূলত তার স্টোরি লাইন ভিক্তিক ক্যারিয়ার মোডের উপর নির্ভর করছে তবে ৭ থেকে ৮ ঘন্টার প্লে টাইমের মধ্যেই তুমি ফিফা ১৮ গেমের ক্যারিয়ার মোড শেষ করে ফেলতে পারবে। আর অনান্য মোড মিলিয়ে আগামী বছরের ফিফা গেমটি আসার আগ পর্যন্ত ফিফা ১৮ গেমটি তোমার ফুটবল ভিডিও গেম খেলার চাহিদা পূরণ করতে সক্ষম হবে বলে আশা করা যাচ্ছে। আর অনেক দিন পর এই প্রথম বার মেসি কে ছাড়াই এবারের ফিফা গেমের কভার পেজ হতে যাচ্ছে অন্য কোনো প্লেয়ার, আর তিনি আর কেউ নন, তিনি রিয়াল মাদ্রিদ ফরওর্য়াডার ক্রিস্টিয়ানো রোনালডো! 😎  😮  😈

ফিফা ১৮ গেমটি বরাবরের মতোই নির্মাণ করেছে এবং প্রকাশ করবে ইলেক্ট্রনিক আর্টস। গেমটি ২০১৭ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর বিশ্বব্যাপী মুক্তি দেওয়া হবে। গেমটি ফিফা সিরিজের ২৫তম গেম এবং সিরিজের ফ্রস্টবাইট ৩ ইঞ্জিণ সমৃদ্ধ ২য় গেম হতে যাচ্ছে। তবে গেমটির স্টোরি বেইসড মোড “The Journey: Hunter Returns" শুধুমাত্র গেমটির প্লে-স্টেশন ৪ এবং এক্সবক্স ওয়ান সংস্করণে থাকছে।

গেমটিতে ১২ দেশের ৫২টি ফুল লাইসেন্সকৃত স্ট্যাডিয়াম রয়েছে আর সাথে ৩০টি নতুন জেনেরিক ফিল্ডস রয়েছে অর্থাৎ গেমটিতে মোট ৮২টি স্ট্যাডিয়াম রয়েছে। এদের মধ্যে বিশ্বের সকল ২০টি প্রিমিয়াম লিগের স্ট্যাডিয়ামগুলোও রয়েছে। গেমটির আল্টিইমেইট টিমের লেজেন্ড রোস্টারে ডিয়েগো ম্যারাডোনা, পেলে, রোনাল্ডো, রাশিয়ান গোল কিপার লেভ ইয়াশিন কে যুক্ত করা হয়েছে। গেমটির মূল্য রাখা হয়েছে ৫৯.৯৯ ডলার (৪ হাজার ৯৫০ টাকা)।

  • নির্মাতা: EA কানাডা, EA বুচারেস্ট
  • প্রকাশ করবে: EA স্পোর্টস
  • সিরিজ: ফিফা
  • ইঞ্জিণ: ফ্রস্টবাইট ৩
  • খেলা যাবে: মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ভিক্তিক পিসিতে, প্লে-স্টেশন ৩, প্লে-স্টেশন ৪, এক্সবক্স ৩৬০, এক্সবক্স ওয়ান এবং নিনটেনডো সুইচে।
  • মুক্তি পাচ্ছে: ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ সালে
  • ধরণ: স্পোর্টস
  • খেলার ধরণ: সিঙ্গেল এবং মাল্টিপ্লেয়ার

সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টস:

  • প্রসেসর: ইন্টেল কোর আই ৩ ২১৩৯ ৩.৪ গিগাহার্জ কিংবা এএমডি এথলন এক্স৪ ৮৭০কে
  • গ্রাফিক্স কার্ড: এনভিডিয়া জিফোর্স জিটিএক্স ৭৫০ টিআই কিংবা এএমডি রাডিয়ন আর৯ ২৭০
  • ভির‌্যাম: ২ গিগাবাইট
  • র‌্যাম: ৮ গিগাবাইট
  • অপারেটিং সিস্টেম: ৬৪ বিটের উইন্ডোজ ৭, ৮ কিংবা ১০।
  • ডাইরেক্ট এক্স : ১১ সংস্করণ
  • হার্ডডিক্স স্পেস: ৫০ গিগাবাইট খালি জায়গা।

Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 5 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 661 টি টিউন ও 428 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 121 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস