এইজ অফ এম্পায়ারস ২ – দি এইজ অফ কিংস :: Age of Empires II – The Age Of King

টিউন বিভাগ গেমস
প্রকাশিত

আসসালামু আলাইকুম,

আগের ভারসনের রিভিউ দিয়েছিলাম। খেলেছেন মনে হয়। ভাল লেগেছে/ অনেকের ল্কেগেছে, আবার অনেকের হয়ত লাগেনি... এটা মানসিকতার বিষয়।

যাই হক আমি যেহেতু বলেছি, পুরো সিরিজের রিভিউ দেবো। দেবই।

এবার এইজ অফ এম্পেররের দ্বিতীয় সংস্করণের রিভিউ দেবো আপনাদের।

২০০০ সাল থেকে মাইক্রোসফট কর্পোরেশন এর ডেভেলপমেন্ট ও আপডেট তৈরি করে আসছে। এইজ অফ এম্পায়ার ২ ঃঃ দি এইজ অফ কিংস এর দ্বিতীয় সংস্করণ।

এখানে আপডেট হিসেবে আছে রিজাইসড গেইম, মানে রাজায় রাজায় যুদ্ধ, মাল্টিপ্লেয়ার গেইমিং, ক্যাম্পেইং গেইমিং।

কাম্পেইং গেইমিংএ কোন জাতির ইতিহাস ভিত্তি করে কাহিনি গড়া হয়েছে। যেমন মঙ্গোলিয়ায় চেঙ্গিস খান, গ্রিসের অ্যালেক্সান্ডার দি গ্রেট আর অনেক কাহিনি।

এছাড়া খেলোয়াড়ের সুবিধার্থে গেইমের ভেতর প্রতিটি জাতির ইতিহাস দেওয়া আছে।

এখানেও যেকোনো সিভিলাইজেশন অনুযায়ী খেলোয়াড়ের ইউনিট বদলাবে।

মানে আপনি যদি যেকোনো একটি জাতি সিলেক্ট করে খেলা শুরু করেন, তখন সেই জাতি অনুযায়ী আপনার বাড়িঘর, হাটবাজার, ওয়ার্কশপ সবকিছুর স্টাইল বদলে যাবে।

একেক জাতির একেক ক্ষমতা থাকবে।

যেমন জাপানিরা সামুরাই যোদ্ধা পাবে, আর চীনেরা চু-কো-নু বা তীরন্দাজ। তেমনি বাইজান্টাইনেরা পাবে বারসার্ক।

এছাড়া খেলায় আছে ক্ল্যাটাপুট বা প্রাচীন কালের পাথরের গোলা ছোড়ার কামান। বেশ কিউট দেখতে, ছোট দেখে আরও কিউট লাগে 😀

আছে ব্যালিস্টিক তীর। এছাড়া আপডেট আছে ট্রিবুচেট। ট্রিবুচেট দিয়ে প্রাচীন কালের দুর্গের দেয়াল ভাঙ্গা হতো।

নানাভাবে আপনাকে আপডেট করতে হবে নিজের টিমকে।

নিজের যায়গায় নিজের শহর গড়ে নিতে হবে। প্রথমেই দেওয়া হবে তিনজন ভিলেজার এবং একটি টাউন হল।

টাউন হল দিয়েই সব যাত্রার শুরু।

তারপর নিজের পপুলেশানের সাথে সাথে বাড়ি ঘর বাড়াতে হবে।

ব্যারাক তৈরি করে সৈন্য তৈরি করতে হবে। মার্কেট তৈরি করে বন্ধু জাতির সাথে ব্যাবসা বাণিজ্য চালাতে হবে।

গাছ কেটে ন্যাচারাল রিসোর্স সংগ্রহ করতে হবে।

মাটি কেটে সোনা এবং পাথর উত্তোলন করতে হবে।

নিজের যোদ্ধা এবং বাহিনি গড়ে তুলতে হবে। শহর সুরক্ষায় দেয়াল তুলে দিতে হবে।

নিজের মানুষদের হিল করার জন্য এবং নিজের আহত সৈনিকদের হিল করার জন্য আপনাকে টেম্পল থেকে প্রিস্ট তৈরি করে নিতে হবে।

এছাড়া আছে নদী। আপনাকে বন্দর তৈরি করতে হবে। জেলে নৌকা তৈরি করে মাছ আহরন করতে হবে। এছাড়া যুদ্ধজাহাজ বানিয়ে শত্রু থেকে আত্মরক্ষা করতে হবে এবং আক্রমন করতে হবে।

খেলা শেষ করতে হবে অবজেক্টিভ কমপ্লিট করে। অবজেক্টিভ থাকতে পারে, সব ন্যাচারাল রিলিক সংগ্রহ করা অথবা ওয়ান্ডার বানানো অথবা অন্য রাজাকে মেরে ফেলা।

ওয়ান্ডার হতে পারে কোন বড় বাড়ি, ক্যাথেড্রাল অথবা মূর্তি!

গেইম খেলতে তেমন আহামরি কনফিগারেশন লাগবে না,

  • প্রসেসরঃ ৮০০ মেগাহারজ
  • র‍্যামঃ ৬৪ এমবি
  • গ্রাফিক্স মেমরিঃ ৬৪ এমবি
  • ওএসঃ এক্সপি, ৭, ভিস্টা, ৯৮
  • এইচডিডিঃ ৫০০ এমবি

সবাইকে আল্লাহ হাফেজ।

তাই আজ আল্লাহ হাফেজ। সুযোগ পেলে আমার ব্লগে ঘুরে আসবেন, আপনার বয়স ১৮ এর কম হলে চাইলে ব্লগের নিউজ পোর্টালে রিপোর্টার হিসেবে যোগ দিতে পারেন।আমার ব্লগ ও নিউজ পোর্টাল জিআর+ বাংলাদেশ, ফেসবুকে আমি

সৌজন্যেঃ জিআর+ বাংলাদেশ

Level 0

আমি ব্লগার তাওসিফ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 5 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 97 টি টিউন ও 61 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 4 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

The description you wrote is awesome. I am a great fan of this game.

ভাই স্কুল-কলেজ জীবনের কথা মনে করিয়ে দিলেন। প্রচুর খেলতাম গেমটি। আমি সবসময় পার্সিয়ান রেস নিয়ে খেলতাম। আমি মারা যাওয়ার পূর্ব মুহূর্ত পর্যন্ত এটি আমার একটি ফেভারিট গেম হয়ে থাকবে। ভাই এটার ডাউনলোড লিংকটি দেন প্লীজ।

awsome game.এটা আমার অনেক প্রিয় একটা গেম।

টেকটিউনারদের জন্য দারুন সুযোগ, মিস করা একদম ঠিক হবে না
বিস্তারিত: https://www.techtunes.co/tech-talk/tune-id/439233

Level 0

Wn7 a chole na.. r apner jodi chole tahole janaben..

Vai download link ta den

Ei game er Download link ta den please…