গেমস জোন [পর্ব-৯৭] :: রিভিউ – Metro: Last Light (2013/FPS/Quad Core)

টিউন বিভাগ গেমস
প্রকাশিত

গেমস জোন

মেট্রো: লাস্ট লাইট (ফরমালি মেট্রো ২০৩৪) একটি একশন বেসেইড ফাস্ট পারসন হরর শুটিং গেম। গেমটি ২০১২ সালের গরম কালে রিলিজ পাবার কথা। তবে খবর পাওয়া যায় ২ই ফেব্রুয়ারী, সালে  কনফার্ম করা হয় যে মেট্রো: লাস্ট লাইট রিলিজ ২০১৩ সালের প্রথম দিকে পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। গেমটি আমেরিকায় মে ১৪, ২০১৩ সালে এবং ইউরোপে মে ১৭, ২০১৩ সালে মাইক্রোসফট উইন্ডোজ, প্লে-স্টেশন ৩ এবং এক্সবক্স ৩৬০ গেমস কনসোলে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি গেমটির প্লে-স্টেশন ৪ ভাসর্ন মুক্তি পাবে বলে এনাউন্স করা হয়েছে তবে কবে মানে তারিখ এখনো জানানো হয়নি। প্রথম প্রথম গেমটির নাম রাখা হয়েছিল মেট্রো ২০৩৪। গেমটি মেট্রো ২০৩৩ গেমের সিকুয়্যাল।

মেট্রো: লাষ্ট লাইট

নির্মাতা:

৪এ গেমস

প্রকাশক:

ডিপ সিলভার

ইঞ্জিণ:

৪এ ইঞ্জিণ

খেলা যাবে:

মাইক্রোসফট উইন্ডোজ,

প্লে-স্টেশন ৩,

প্লে-স্টেশন ৪

এক্সবক্স ৩৬০ গেমস কনসোলে

বাজারে এসেছে:

মার্চ ১৪ - ১৭, ২০১৩ সালে।

ধরণ:

সুরভাইভাল হরর,

ফার্স্ট পারসন শুটার।

খেলার ধরণ:

সিঙ্গেল প্লেয়ার

Trailer Video:

http://www.youtube.com/watch?v=CZkUnciopl0
http://www.youtube.com/watch?v=PWTo7HLkMiM
http://www.youtube.com/watch?v=hI8wbMEM04Y

সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টস:

মেট্রো: লাস্ট লাইট গেমটির সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টস মেট্রো ২০৩৩ গেমটির প্রায় সমতুল্যই। যেহেতু গেমটি একই ইঞ্জিণ দিয়ে তৈরি। গেমটি ডাইরেক্ট এক্স ৯, ১০, ১১ সার্পোট করবে।

কমপক্ষে:

২.০ গিগাহার্টস ডুয়াল কোর বা এএমডি ফিনোম এক্স ২ গতির প্রসেসর,

মাইক্রোসফট উইন্ডোজ এক্সপি (সার্ভিস প্যাক ২) অপারেটিং সিস্টেম,

২ গিগাবাইট র‌্যাম,

৫১২ মেগাবাইট এনভিডিয়া ২০০ অথবা রাডিয়ন ৩০০০ সিরিজের গ্রাফিক্স কার্ড,

ডাইরেক্ট  এক্স ৯.০সি সাথে শেডার মডেল ৩.০

৭.৫ গিগাবাইট ফ্রি হার্ডডিক্স স্পেস।

 

ভালভাবে খেলতে চাইলে:

২.৬ গিগাবাইট ইন্টেল কোর আই ৫ অথবা এএমডি ফিনোম এক্স ৪ গতির প্রসেসর,

৪ গিগাবাইট র‌্যাম,

১ গিগাবাইট এনভিডিয়া ৪০০ অথবা রাডিয়ন ৫০০০ সিরিজের  গ্রাফিক্স কার্ড (**২ জিবি হলে ভাল**)

উইন্ডোজ ৭ অথবা ৮ অপারেটিং সিস্টেম,

ডাইরেক্ট এক্স ১০ (১১ হলে ভাল) সাথে শেডার মডেল ৫.০।

মেট্রো: লাস্ট লাইট গেমটি একটু ব্যাতিক্রম ধর্মী। কারণ গেমটিতে কোনো মিনিম্যাপ বা হাড নেই যা তোমাকে বলে দিবে যে কোথায় যাবে। নেই কোনো সাবটাইটেল অপশন। একটু হার্ড হবে গেমটি। মেট্রো ২০৩৩ গেমটি যা হোক কিছু সাহায্য ছিল কিন' লাস্ট লাইট গেমটিতে সব সাহায্য বাদ দিয়ে দেওয়া হয়েছে। তোমাকে একটি অক্সিজেন মাক্স পড়ে থাকতে হবে। যেখানে তুমি পাবে লিমিটেড অক্সিজেন। তাই তোমাকে তোমার ঘড়ির দিকে বিশেষ খেয়াল রাখতে হবে যে কখন জানি অক্সিজেন শেষ হয়ে যায়!!!

এ ব্যাপারে নির্মাতা বলেন, “আমরা গেমটি যতটা সম্ভব রিয়েল করতে চাই, তাই আমাদের কে এই উপাদান (হেড আপ ডিসপ্লে) গুলোকে বাদ দিতে হয়েছে। এতে আপনি গেমটিতে রিয়েল মজা পাবেন”

গেমটিতে তোমাকে ইমোশন এর উপর ও খেলতে হবে। মেট্রো ২০৩৩ গেমটিতে দুটি শেষ ছিলো। ভাল এবং খারাপ। তাই এবারো লাস্ট লাইট গেমটিতে তোমাকে দুটি অপশন দেওয়া হবে। তোমার কাছে জীবন ভিক্ষা করছে এমন শত্রুদের তুমি মারবে না বাঁচিয়ে রাখবে এটা তোমার ইচ্ছে।

মেট্রো লাস্ট লাইট গেমটির পটভূমি সেট করা হয়েছে মেট্রো ২০৩৩ গেমটির এক বছর পর, যেখানে মেট্রো ২০৩৩ গেমটির শেষ হতে শুরু করা হয়েছে যেথায় আরটম ডার্ক ওয়ান্স এ মিসাইল স্ট্রাইক কল করবে। ডি৬ মিলিটারী ফ্যাসিলিটি এখন দ্যা র‌্যাঞ্জারসদের দখলে এবং আরটম একজন অফিসিয়াল সদস্য গ্রুপের। দ্যা নোম্যাড মিস্ট্রিক “খান” ডি৬ তে আসে এবং আরটম এবং দ্যা র‌্যাঞ্জারসদের বলে যে মিসাইল স্ট্রাইকে একজন ডার্ক ওয়ান বাঁচতে সক্ষম হয়েছে। খান বিশ্বাস করে যে সেই ডার্ক ওয়ান মানুষের ভবিষৎতের চাবিকাঠি এবং এর সাথে শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে আগ্রহী। তবে র‌্যাঞ্জার লিডার কর্ণেল মিলার তার পয়েন্টিয়াল ট্রিডের কারণে ডার্ক ওয়ানকে মারতে চায়। পরে মিলার আরটম এবং তার মেয়ে আন্না যে কিনা র‌্যাঞ্জারসদের শ্রেষ্ঠ স্নাইপার তাদেরকে সুরফেইসে পাঠায় ডার্ক ওয়ানকে মারার জন্য।

আরটর ডার্ক ওয়ানকে খুঁজে পেতে সক্ষম হয়, ডার্ক ওয়ান তখন একটি শিশুতে পরিণত হয়েছে, মানে বেঁচে থাকা ডার্ক ওয়ান একটি শিশু!! তবে তারা দুজন নাজি রিচ সৈন্যদের দ্বারা আটক হয়ে যায়। পরে একজন সৈনের সহযোগীতায় আরটম রিচে পালিয়ে আসতে পারে এবং তারা দুজন মেট্রো টানেলে যুদ্ধ করতে থাকে। তারা যখন একটি রেড লাইন সেটেলমেন্ট এ এসে পড়ে তখন পাভেল (নাজি সৈন্য) এর আসল পরিচয় আরটম জানতে পারে, পাভেল একজন হাই-রেঙ্ক রেড লাইন অফিসার। পরে আরটম কে আটক করার চেষ্ঠা করে রেড লাইন। তবে পারে না, সেখান থেকে পালিয়ে আসার সময় আরটম জানতে পারে যে রেড লাইনের প্রধানে একটি পরিকল্পনা রয়েছে যে ডি৬ কে বন্ধি করে পুরো মেট্রোকে নিজের দখলে নেবার।

সেখান থেকে পালিয়ে খানের সহযোগীতায় আরটম ডার্ক ওয়ান শিশুকে বাঁচাতে সক্ষম হয়। এরপর আরটম এর সামনে আসে কয়েকটি ফ্ল্যাশব্যাক। যেখানে আরটম জানতে পারে যে অতীতে আরটম যখন শিশু ছিল তখন এই ডার্ক ওয়ানই তাকে বাঁচিয়েছিল। এরপর আরটম সিদ্ধান্ত নেয় যে ডার্ক ওয়ানকে সে বাঁচাবে। ডার্ক ওয়ানকে পোলিসে ফিরেয়ে দিতে গিয়ে আরটমের সাথে প্রথমে লেসনিটস্কি এবং পরে পাভেলের সাথে কনফ্রন্ট হয়। ডার্ক ওয়ান তার পাওয়ারের ব্যবহার করে তাদের মন পড়তে পারে। এখানে শত্রুদের উপর হামলা / প্রতিশোধ কিংবা তাদের ক্ষমা করে দেওয়া দুটোই তোমার হাতে।

ডার্ক ওয়ান এবং আরটম পোলিসে আসে, পোলিস হলো মেট্রোর সেন্ট্রাল স্টেশন। পোলিসে তখন হ্যানসা, রেড লাইন এবং রিচ এর ভিতর শান্তি চুক্তি স্থাপিত হচ্ছে। সেখানে ডার্ক ওয়ান তার টেলিপ্যাথিক পাওয়ার দিয়ে রেড লাইন লিডার চেয়ারম্যান কে সবার সামনে তার পাপের বর্ণনা দেয়, যেখানে সে বলে যে, এই শান্তি চুক্তি একটি উছিলা মাত্র, যার উছিলায় জেনারেল করবাট ডি৬ তে হামলা করতে পারবে।

আরটম, মিলার, খান এবং দ্যা র‌্যাঞ্জারসরা এখন করবাট সৈন্যদের বিরুদ্ধে ফাইনাল যুদ্ধ ঘোষণা করে। করবাট সৈন্যরা যখন প্রায় পরাজিত হবে হবে অবস্থা তখন তারা ডি৬ ধ্বংসের অর্ডার দেয়। এরপর গেমটির শেষ হবে দুটি উপায়ে। মানে গেমটির এন্ডিং দুইরকম। কি কি তা তুমি নিজে খেলে পরখ করে দেখে নিও।

ডাউনলোড:

http://skidrowcrack.com/metro-last-light-limited-edition-multi-9-2/

 আমার লেখা গেমস জোন শুধুমাত্র ফেসবুকে আমার নিজস্ব এবং গেমস জোনের আসল পেজ http://www.facebook.com/games.zone.bd এই পেজটাতে আমি শেয়ার করে থাকি। বাকি কোনো পেজে আমার গেমস জোনের পোষ্ট শেয়ার করা হয় না। যদি করে থাকে তাহলে তারা আমার পারমিশন ছাড়াই এ কাজ টি করেছে। আপনারা যদি ফেসবুকে আমার গেমস জোনের পোষ্ট সমূহ অন্যান্য পেজে পেয়ে থাকেন তাহলে একটু কষ্ট করে আমাকে জানিয়ে দেবেন প্লিজ। বহু কষ্ট করে বহু সময় খরচ করে গেমস জোনের এক একটি পর্ব লিখি আমি।

গেমস জোন মুলত টিউনারপেজ (www.tunerpage.com) ব্লগে আমি নিয়মিত এবং প্রথম থেকে লেখা আরম্ভ করেছিলাম। সেখানে গেমস জোনের মোট পর্বের সংখ্যা এখন পর্যন্ত ১৭৪টি। আমি নিজে টিউনারপেজ, টেকটিউনস এবং বাংলা ফ্যামিলি ব্লগে গেমস জোন টিউন করে থাকি। আগে পিসি হেল্পলাইনে করতাম এখন করি না। তাই আপনারা যদি নিচের ৪ টি ব্লগের বাইরে অন্য কোনো ব্লগে আমার গেমস জোনের কপি দেখে থাকেন তাহলে দয়া করে কমেন্টে জানান অথবা ফেসবুকেও আমাকে জানাতে পারেন (fb.com/talented.fahad)

http://www.tunerpage.com

http://www.techtunes.com

http://www.banglafamily.com

http://www.pchelplinebd.com

>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>><<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<

Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 661 টি টিউন ও 428 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 127 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

chorom ,,games ta