গেমস জোন [পর্ব-৭৪] :: টাইমশিফট (২০০৭/FPS/পেন্টিয়াম ৪)

টিউন বিভাগ গেমস
প্রকাশিত

গেমস জোন

টাইমশিফট একটি সাইন্স ফিকশন 1st পারসন শুটার ভিডিও গেম, তৈরি করেছে সাবের ইন্টারএকটিভ এবং প্রকাশ করেছে সিয়েরা এন্টারটেইমেন্ট। গেমটি মাইক্রোসফট উইন্ডোজ, এক্সবক্স ৩৬০ এবং প্লে-স্টেশন ৩ গেম কনসোল এর জন্য অক্টোবর-নভেম্বর ২০০৭ সালে মুক্তি পায়।

টাইমশিফট

 

তৈরিকারক:

সাবের ইন্টারএকটিভ

প্রকাশক:

সিয়েরা এন্টারটেইমেন্ট

ইঞ্জিণ:

সাবের ৩থ্রি ইঞ্জিণ এবং হ্যাভোক ৪.৫ ফিজিক্স

খেলা যাবে:

মাইক্রোসফট উইন্ডোজ,

প্লে-স্টেশন ৩,

এক্সবক্স ৩৬০

মুক্তি পেয়েছে:

অক্টোবর - নভেম্বর ২০০৭ সালে

ধরণ:

1st পারসন শুটার

খেলার ধরণ:

সিঙ্গেল এবং মাল্টিপ্লেয়ার

সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টস:

মাইক্রোসফট উইন্ডোজ এক্সপি অপারেটিং সিস্টেম,

পেন্টিয়াম ৪ ২.৪ গিগাহাটস গতির প্রসেসর (কোর ২ ডুয়ো হলে ভাল),

১ গিগাবাইট র‌্যাম (২গিগা হলে ভাল),

রাডিয়ন এক্স১০৫০ গ্রাফিক্স card (জিফোস ৮৬০০জিটিএস হলে ভালো),

৮ গিগাবাইট ফ্রি HardDisk স্পেস,

ডাইরেক্ট এক্স ৯.০সি

 

প্লট:

ভবিষ্যৎ এর বিজ্ঞানীরা একটি উপযুক্ত টাইম মেশিন বানানোর প্রজেক্ট শুরু করেন। তারা প্রজেক্ট থেকে দুটি ডিভাইস তৈরি করেন। একটি হলো আলফা স্যুট এবং আরেকটি হলো বেটা স্যুট। আলফা স্যুট একটি প্রোটোটাইপ জাম্প স্যুট। আর বেটা স্যুট হলো মিলিটারী গ্রেড মোডেল যাতে এক্সট্রা কিছু ফিচার রয়েছে।

প্রজেক্টটির পরিচালক ডা. এইডেন ক্রোণ আলফা স্যুট নিয়ে অতীতে ভ্রমণ করেন। সেখানে তিনি নিজেকে রাজা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেন এবং গোটা দুনিয়াকে আয়ত্তে নিয়ে নেন।

গেমটির প্লেয়ার, একজন নিম্নস্তরের নাম না জানা বিজ্ঞানী বেটা স্যুটটি নিয়ে ডা. ক্রোণ এর পিছু পিছু ফলো করেন। এরপর সে ১৯৩৯ সালে একটি জায়গায় যায় যার নাম আলফা ডিস্ট্রিক। যাওয়ার সময় বেটা স্যুট এর কিছু পাট নষ্ট হয়ে যায়, যার কারণে প্লেয়ারকে “অকুপেন্ট রেবিলিয়ন” তে নামতে বাধ্য হয়।

এরপর অকুপেন্ট রেবিলিয়নে ক্রোণ একটি বিশাল ওয়ার-মেশিন দিয়ে প্রায় ধ্বংস করে দেন, তবে প্লেয়ার ক্রোণকে হারাতে সক্ষম হয়। ক্রোণকে মেরে তার আলফা স্যুট থেকে কিছু পাট নিয়ে বেটা স্যুটটি রিপেয়ার করেন। এরপর অকুপেন্ট রেবিলয়নের কমান্ডার ধন্যবাদ স্বরুপ প্লেয়ারকে অরিজিনাল টাইমলাইন উপহার দেয় যা দিয়ে প্লেয়ার তার মেয়ে বন্ধুকে বাঁচাতে পারবে। উল্লেখ্য যে, প্লেয়ার এর মেয়ে বন্ধু ক্রোণ এর বোমের বিস্ফোরণে মারা গিয়েছিল।

অরিজিনাল টাইমলাইনে ফেরত গিয়ে প্লেয়ার বোমটি নিক্রিয় করে এবং তার মেয়ে বন্ধুটির কাছে যায়। তবে তার মেয়ে বন্ধুটি তাকে চিনতে পারে না। তাই প্লেয়ার যখনই তার স্যুট এর মাস্ক খুলতে যায় তখনই প্যারাডক্স একটিভ হয় এবং তাকে অজানা এক জায়গায় ট্রান্সপোট করে দেয়।

গেম-প্লে:

টাইমশিফট গেমটির মূল ফিচার হলো টাইম কে কনট্রোল করা, টাইমকে স্লো করা, টাইমকে স্টপ করা এবং টাইমকে রিওয়াইন্ড করা। এটার সাহায্যে প্লেয়ার টাইমকে স্টপ করে শত্রুর অস্ত্র ছিনিয়ে নিতে পারে। এছাড়াও টাইম রিলেটেড পাজল গেম-প্লেও রয়েছে। এই সব ফিচার ব্যবহারে স্ক্রিণ এর রং পাল্টে যাবে। যেমন স্লো টাইম করলে স্ক্রিণ এর রং নীল হবে, রিওয়াইন্ড করলে রং হবে হলুদ এবং স্টপ করলে হবে সাদা।

অরিজিনাল ভাবে প্রকাশ করার কথা ছিল আটারী দ্বারা ২০০৬ সালে। তবে সিয়েরা গেমটির প্রকাশনা স্বত্ত কিনে নেয় তাই বছর খানেক দেরী হয় গেমটি প্রকাশে। মূলত গেমটি এক্সবক্স ৩৬০ এর জন্য তৈরি।

Reviewer

Score

GamePro3.75/5.0
GameSpot6.5/10[6]
GameTrailers8.2/10[7]
PC PowerPlay6/10
Game Informer7.75/10
IGN7.6/1IGN AU
8.5/10[8]
Team Xbox7.9/10
X-Play2/5
XGN Entertainment8.5

ডাউনলোড:

http://lyzta-games.blogspot.com/2013/04/download-timeshift-repack-pc-game-full.html

http://www.facebook.com/games.zone.bd

Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 661 টি টিউন ও 428 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 119 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

ভাল graphics এর নতুন কোন game দেন।