ফেসবুক ব্যবহার করে মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা উর্পাজন করা সম্ভব পর্ব:১

আপনি শিরোনাম দেখে বুঝতেই পারছেন আজকের ব্লগ কোন টপিক নিয়ে লেখা হয়েছে। আপনি কি জানেন বর্তমানে ফেসবুক ব্যবহার করে অনেকেই লক্ষ লক্ষ টাকা উপার্জন করেছে। আজ সে বিষয়ে বিস্তারিত বলবো। আশাকরি ধর্য ধরে পুরো পোষ্টটি আমার পড়বেন এবং অবশ্যই কিছু হলেও জ্ঞান অর্জন করতে পারবেন। তো চলুন শুরু করা যাক।

প্রথমেই চিন্তা আসতে পারে যে,

১.ফেসবুক ব্যবহার করে আবার কি ভাবে ইনকাম করা যায়
২.ফেসবুকে ইনকাম করতে হলে কি কি করা লাগে
৩.কিভাবে ফেসবুক থেকে টাকা উত্তোলন করবো
৪.ফেসবুকে আবার কি কি পদ্ধতি গ্রহন করতে হবে

ইত্যাদি আরও অনেক প্রশ্ন আছে যা আপনাদের মাথায় আসতে পারে প্রথম ধাপে।

প্রথম ধাপ: সবার প্রথমে আপনার একটি এন্ড্রয়েড স্মার্টফোন বা একটি কম্পিউটার বা একটি ল্যাপটপ থাকা লাগবে। এই তিনটি ডিভাইসের যেকোন একটি ডিভাইস থাকলেই হবে। ডিভাইস গুলো যে খুব উন্নতমানের কনিফিগারেশন থাকা লাগবে তা কিন্তু নয়। মোটামুটি ইন্টারনেট চালিয়ে সুবিধা পাওয়া যায় এমন ডিভাইস হলেই হবে।

দ্বিতীয় ধাপ: আপনার একটি ডিভাইসের ব্যাবস্থা করে ফেললেন এখন আপনার কাছে থাকা লাগবে একটি ইন্টারনেট সংযোগ। যেটা আপরার লাগবেই। কারন আপনি অনলাইন কাজ করবেন সেখানে ইন্টারনেট আবশ্যক।

তৃতীয় ধাপ: এই ধাপটি হচ্ছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ধাপ। আপনার ডিভাইস আছে, ইন্টানেট সংযোগ রয়েছে এখন আপনার প্রয়োজন হবে একটি ফেসবুক আইডি ও ফেসবুক পেজ। যেহেতু আপনি ফেসবুক থেকে টাকা উর্পাজন করবেন সেহেতু আপনার ফেসবুক একাউন্ট থাকা আবশ্যক। আপনার যদি ফেসবুক আইডি না থাকে তাহলে আপনাকে একটি সুন্দর ভাবে একটি ফেসবুক আইডি খুলতে হবে। ফেসবুক আইডি কিভাবে খুলে তার জন্য আমি আরেকটি ব্লগ লিখে রাখবো আপনারা অবশ্যই আমার সেই ব্লগ দেখে ফেসবুক আইডি খুলতে পারেন।

চতুর্থ ধাপ: এই ধাপে আপনার যে বিষয়টা অবশ্যই জানা উচিত তা হচ্ছে ফেসবুক পেজ থেকে আগে শুধু মাত্র টাকা ইনকাম করা যেত কিন্তু এখন আপনার ফেসবুক পার্সোনাল আইডি থেকেও টাকা ইনকাম করা যাচ্ছে। আপনি প্রথমত যে কোন একটি বিষয় সিলেক্ট করতে পারেন প্রথম পযার্য়ে পরে অন্যটি নিয়েও কাজ করতে পারেন।

পঞ্চম ধাপ: আপনি যে ফেসবুকে কন্টেন্ট বানিয়ে কাজ করবেন তা কোন বিষয়ের উপর কন্টেন্ট বানাবেন এটা আপনাকে নিধার্রিত করতে হবে। তার আগে আপনি নিজেকেই প্রশ্ন করেন যে আপনি কোন বিষয়ে পারদর্শী। কেননা আপনি যে বিষয়ে পারদর্শী আপনি সে বিষয় নিয়ে কন্টেন্ট তৈরি করলে আপনি খুব ভালো মানের কন্টেন্ট তৈরি করতে পারবেন। উদাহারণ স্বরুপ আপনি রান্না করতে ভালোবাসেন তাহলে আপনি বিভিন্ন রান্না নিয়ে কন্টেন্ট তৈরি করতে পারেন।

আবার আপনি যদি গেম খেলতে পারেন তাহলে আপনি গেম খেলে সেই ভিডিও দিয়ে কন্টেন্ট তৈরি করতে পারেন। ইত্যাদি আরও অনেক ক্যাটাগরি রয়েছে। আপনি যে বিষয়ে দক্ষ সে বিষয়ে আপনি কন্টেন্ট তৈরি করবেন এটা আমার পরমর্শ থাকলো। ভুলেও অন্যের কন্টেন্ট কপি করার চেষ্টা করবেন না তাহলে আপনার আইডি ব্যান হয়ে যেতে পারে। সব সময় ইউনিক কন্টেন্ট তৈরি করার চেষ্টা করবেন।

ষষ্ঠ ধাপ: কন্টেন্ট তৈরি করার পর আপনাকে ফেসবুকের নিয়ম অনুযায়ী আপলোড করতে হবে। আপনি নিয়মিত কন্টেন্ট আপলোড করতে থাকবেন দেখবেন আসতে আসতে আপনার কন্টেন্ট রিচ হওয়া শুরু করবে। আপনি নিয়মিত ইউনিক কন্টেন্ট আপলোড করতে থাকেন। যদি কোনো ভিউ না আসে আপনি চিন্তা করবেন না। আপনি হতাশ হবে না।

কেননা অনেকেই আছে যখন দেখে তার ভিডিওতে কোন প্রকার ভিউ আসছে না কন্টেন্ট রিচ হচ্ছে না তখনি হতাশ হয়ে পরে আর কন্টেন্ট বানানো ছেড়ে দেয় এক কথায় হাল ছেড়ে দেয়। তখন আর সে সফল হয়ে উঠতে পারে না।

এছাড়ারও আরও অনেক বিষয় রয়েছে যা  ফেসবুক ব্যবহার করে টাকা ইনকাম পর্ব ২ বিস্তারিত দিব আশাকরি উপকৃত হবেন আমার ব্লগ টিউন পরে। যদি আমার টিউন আপনাদেন ভালো লাগে অবশ্যই টিউমেন্ট করে জানাবেন। সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন।

Level 0

আমি মাহফুজ আহমেদ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 মাস 1 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 4 টি টিউন ও 1 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস