মজিলা ফায়ারফক্স এর দরকারি এডঅন-নামা।

এই কম্পিউটারের যুগে মজিলা ফায়ারফক্স ভীষণ জনপ্রিয় ব্রাউজার।  ওয়েব ডিজাইনার থেকে শুরু করে ফেসবুকপ্রেমী পর্যন্ত মোটামুটি সবাই  মজিলা ফায়ারফক্স পছন্দ করে।  এর অনেক রকম কারন হতে পারে। গুড লুকিং, হাতের কাছে সব টুল পাওয়া যায়, ইচ্ছা মত কাস্টমাইস করা যায়, নিওমিত নতুন ভার্সন বের হয়। আর একটি কারন হল এই ব্রাউজারে কিছু চমকপ্রদ এড-অন ব্যাবহার করা যায়। আমরা হয়তো হাতে গুনা কিছু ফেমাস এড-অন সম্পর্কে জানি। তবে আমরা আজ আমন কিছু এড-অনের সাথে পরিচিত হবো যেগুলো সম্পর্কে জানার পর আপানি হয়তোএদের ভেতর আপানার দরকারি এড-অন টুলসটি খুজে পাবেন।

Adblock plus: মাঝে মধ্যে দেখা যায় অনেক কিছু ডাউনলোড করার পর  আমাদের কম্পিউটারে বিরক্তিকর অনেক এড ঢুকে যায়। এডব্লক প্লাস আপনার মজিলা ব্রাউজারে এই বিরক্তিকর অবস্থা থেকে দূরে রাখবে।

Window Resizer 1.0: এর মাধ্যমে আপনার ব্রাউজার উইন্ডোটি রিসাইজ করতে পারবেন। ইউটিউব ভিডিও দেখার জন্য আপনার কাজে লাগতে পারে। ব্যাবহার করে দেখতে পারেন।

FireShot: এটি দিয়ে ওয়েব সাইট এর স্ক্রীন শর্ট তুলতে পারবেন।  আপনার কম্পিউটারএর  snipping tools এর জমজ ভাই তবে মানে উন্নত।

Web Developer: যারা ওয়েব ডিজাইন এবং ওয়েব ডেভেলপমেন্টের সাথে যুক্ত তাদেরকেতো নতুন করে কিছু বলার নাই। নতুন যারা শিখছে তাদের জন্য, এই টুলটি খুবই গুরুত্তপূর্ন। ইন্সটল করার পর এর টুলবার ব্রাউজারে দেখতে পাবেন। html, css edit, validation, responsive কাঠামো দেখতে পারবেন এবং আরো অনেক কাজ করতে পারবেন। নিজেই ব্যাবহার করে দেখুন।

Firebug: সবার কাছে মোটামুটি পরিচিত এই টুলের মাধ্যমে সিএসএস কে এডিট করা আউটপুট ব্রাউজারে দেখতে পারবেন।

FireFTP: দারুন একটা টুল। এটি দিয়ে আপনি এফটিপি সফটওয়ার ছাড়াও সার্ভার এ ফাইল আপলোড করতে পারবেন।

IE Tab: এটি দিয়ে আপনার ওয়েব সাইটটি Internet Explorer এ open না করে সরাসরি মজিলা ফায়ারফক্স -এ রান করতে পারবেন। এডঅনটি ইন্সটল করার পর যে সাইটটি আইইতে দেখতে চান সেখানে মাউজ এর রাইট বাটন ক্লিক করার পর দেখতে পাবেন।

ColorZilla: HTML, CSS নিয়ে যারা কাজ করেন তারা এটা খুব ভালো চিনেন। এর মাধ্যামে আপনার পছন্দের কালারটি কপি করতে পারেন।

Total Validator: এটি দিয়ে যে কোন সাইটের ব্রোকেন লিংক সহ সব ধরনের ভ্যালিডেশন করা যায়।

Measure It:  কোন ওয়েব পেজের যে কোন ইলিমেন্ট এর সাইজ পরিমাপ করতে চান? তো Measure It ব্যাবহার করুন।

Font Finder 0.5c: কোন লিখা কোন ফন্টে আছে টা জানার জন্য এটি ব্যাবহার করা যায়।  লেখা  সিলেক্ট করে রাইট বাটন ক্লিক করলে ফাইন্ড ফন্ট দেখতে পারবেন এবং ফন্ট জানতে পারবেন।

Level 1

আমি অনেক অপেক্ষা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 12 টি টিউন ও 42 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

    Level 1

    @প্রতিবাদী ছেলে: কোন যায়গা থেকে কপি করলাম??? প্রমান দেখান। আসলে আপনাদের সমস্যাটা কি??? কেও কষ্ট করে কিছু করলে আপনাদের এত চুলকানি কেন?? কপি করা হয় নাই। তাও বলছেন কপি পেস্ট। তার উপর নামের সাথে লাগাইসেন প্রতিবাদি ছেলে। এত আজাইরা চুলকানি থাকার পরেও আপনি কিভাবে প্রতিবাদি ?? আসলেই আল্লাহর দুনিয়াতে আজিব প্রানির অভাব নাই।

tx…..google chorme er o chai…

ধন্যবাদ

Level 1

স্বাগতম 🙂 আমার ফ্যান পেজে লাইক দিতে পারেন :p https://www.facebook.com/monerakashh?fref=ts