আসলেই কি বাজেটে Colmi P71 স্মার্টওয়াচ পাওয়া যাবে?

Level 1
পেইজ মোডারেটর ও কন্টেন্ট রাইটার, টটেজা, চট্টগ্রাম

Colmi ব্রান্ডটি হচ্ছে চাইনিজ ব্রান্ড। যেহেতু চাইনিজ ব্রান্ড তাতে একটু সবাই বুঝি। চায়না যেকোনো কিছুরই দাম সব সময় আমাদের সাধ্যের মধ্যেই থাকে। কিন্তু সাধ্যের মধ্যে সবটুকু সুখ মাঝেমধ্যে ক্ষনস্থায়ী হয়ে যায়। অর্থাৎ, চাইনিজ প্রোডাক্ট ভাগ্যে ভালো থাকলে অনেকদিনই ঠিকে আর ভাগ্যে ভালো প্রোডাক্ট টা না পড়লে খুব বেশী দিন ঠিকেনা। তাই নিতে গিয়ে একটু ভেবে নিতে হয় আরকি। তবে এটি কিন্তু একদম প্রথমদিকের ব্রান্ড যখন বাংলাদেশে দামী স্মার্টওয়াচের ভীড়ে কমের মধ্যে ভালো একটি ব্রান্ড হিসেবে পরিচিত।
এবার তাহলে Colmi p71 smartwatch এর ব্যাপারে কিছু বলা যাক। এটি ১৬০০ টাকার মধ্যেই পাওয়া যাবে। এই স্মার্টওয়াচ দিয়ে কথাও বলা যায়। যদিও এই দামের ঘড়িতে কথা বলার সুযোগ পাওয়া যাচ্ছে সেটাই সত্যি অনেক বেশীই বলা যেতে পারে।
বক্সে যা যা পাওয়া যাবে:
১.চার্জ করার জন্য ২ পিনের ম্যাগনেটিক ক্যাবল
২.ম্যানুয়াল গাইড
আকৃতি: এটির আকৃতি চর্তুভূজাকার। এটি স্ট্রেপ সিলিকন রাবারের তৈরী। তবে নিজের পছন্দসই স্ট্রেপ নিয়েও পড়া যাবে।

এটির ডানদিকে ১টা বাটন আছে। সেই বাটন দিয়েই অনেক কিছু করা যায়। ডান দিকে নিচে মাইক্রোফোন বাটন আছে। বাম পাশের দিকে স্পীকারও আছে।

বডি ফ্রেম : এটি বডি ফ্রেম রিয়েল প্যানেলেরও হয়ে থাকে। আর প্লাস্টিকেরও হয়ে থাকে। তবে এটি যদি মেটালের হতো তাহলে খুব ভালো হতো। তবে এই দামের মধ্যে মেটাল আশা করাও উচিত না।
ডিসপ্লে : এটির ডিসপ্লে প্রায় ১.৯ ইঞ্চি।
রেজুলেশন : এটির মোটামুটি ভালোই তবে কাছ থেকেই দেখলে ভালো আরকি। দূর থেকে খুব বেশী ভালো নাও লাগতে পারে। তবে স্মার্টওয়াচ কাছ থেকেই দেখা উচিত। এটির ডিসপ্লে কালারফুল এবং IPS প্যানেল যুক্ত।
টাচ স্পন্সর: এটির টাচ স্পন্সর মোটামুটি ভালো। তবে সেনসিটিভ মনে হচ্ছিল মানে লাগছিল যে খুব বেশি টাচ হয়ে যাচ্ছে।
ব্রাইটনেস : এটির ব্রাইটনেস ইনডোরে অনেক ভালোই আছে। কিন্তু আউটডোরে সূর্যের আলোতে একটু বুঝতে কষ্ট হতে পারে।
এখন জানতাম হবে কোন অ্যাপ দিয়ে চলবে?
Pubo Where অ্যাপ দিয়ে ১০ মিটারের মধ্যে কানেক্ট ভালো ছিল। আর অ্যাপটাও ভালো। তবে চাইনিজ অন্য সব ওয়াচের মতই ইন্টারফেইস একই হয়ে থাকে। চাইনিজরা খুব বেশী আহামরি পরিবর্তন আনে না। তারা আগের গুলো থেকে কপি করে নতুন কিছু ওয়াচ উদ্ভাবন ঘটায়।
Colmi p71 smartwatch কথা বলায় কতটুকু এক্টিভ তা জানা আসলে বেশী দরকার। কারন কম দামের ঘড়িতে সব সুবিধা দিলেও কথা বলার সুবিধা কমই দিয়ে থাকে। এটিতে মোটামোটি ভালোই কথা বলা যাচ্ছে। তবে আশেপাশে যদি প্রচুর আওয়াজ হয় তবে এটি সেসব আওয়াজগুলোর জন্য কথা স্পষ্টভাবে বুঝতে কষ্ট হতে পারে।
কোম্পানি দাবী করছে IPS60 দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ অল্প স্বল্প পানি পড়লে খুব একটা সমস্যা হবেনা। কিন্তু অতিরিক্ত পানির মধ্যে ব্যবহার না করলে ভালো হবে।
আপডেট সেন্সর: এটিতে অন্য সব ওয়াচের মতই অনেক সাম্প্রতিক সেরা সেন্সরগুলো আছে। যেমন :SPO2, Heart Sensor, VP, Step counting, Female health, Music player control, game, camera, Calculator, stop watch, flash light, timer, Dial number সহ আরো অনেকগুলো থাকে। আমি শুধু মাত্র বেসিক কিছু অ্যাপসের নামগুলো দিয়েছি। তবে কিছু অ্যাপস নিয়ে আলাদা কিছু বলতে হয়।
Step Counting: এসব ওয়াচের স্টেপ কাউন্টিং এ খুব বেশি ভরসা করা যায় না। মানে আপনি ১০০ স্টেপ হাটলেও এটিতে আরো ১০-১২ স্টেপ বেশি দেখাবে। আর অনেক সময় রিকশাতেও স্টেপ দেখায়। এটি আসলে সব স্মার্টওয়াচের ক্ষেত্রেই দেখা যায়।

Heart Sensor: এটির হার্ট সেন্সর রেট খুব বেশী সঠিক নাও হতে পারে। এসব বিষয়ে আসলে ঘড়ির উপর নির্ভর করা উচিতও না।

System Language : এটির সিস্টেম ইংলিশ। আরো অনেক ভাষাও আছে। তবে বাংলা ভাষাটা নেই।

ব্যাটারী ব্যাকআপ: এই স্মার্টওয়াচের ব্যাটারী ব্যাকআপ ২৩০ এমএইচ। এটি খুব বেশী ব্যবহার না করলে ৩-৪ দিন যাবে। আর শুধু ঘড়ি হিসেবে ব্যবহার করলে ৫-৬ দিন যাবে। আর কেউ যদি প্রচুর ব্যবহার করে তবে তার ১-২ দিনই যাবে। এটি চার্জ হতে প্রায় ২ ঘন্টা সময় নেই।
এখন একটু কাজের কথায় বলি, সেটা হচ্ছে এটা নিয়ে আমার অভিমত। আমি বলবো, এই স্মার্টওয়াচ খুবই বাজেট ফ্রেন্ডলি। তবে যেহেতু চাইনিজ প্রোডাক্ট তাই যদি এই দামেও ওয়ারেন্টি পাওয়া যেত তবে একটু ভালোই হতো। কারন অনেকে কিনেই নিশ্চয়তা পায় না এটা কি আদৌ খুব টিকে যাবে নাকি টিকবেনা। এই ভয় আসলেই চাইনিজ কোনো ব্রান্ড থেকে কিছু নেওয়ার আগেই সবার মাথায় চলে আসে। তবে দাম হিসেবে এটা খুব ভালো মানের স্মার্টওয়াচ বলা যেতে পারে। আর চায়না আসলে সাধ্যের মধ্যে সবটুকু সুখ দিতে চায় তাই মানটা খুব ভালো দিতে চেয়েও পারেনা আরকি। তবে আশংকা করছি এই স্মার্টওয়াচ ভালো হতে পারে। তাই নিঃসংকোচে সাহস নিয়ে ক্রয় করতে পারেন।

Level 1

আমি আত্তিয়া ফারাহ। পেইজ মোডারেটর ও কন্টেন্ট রাইটার, টটেজা, চট্টগ্রাম। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 2 মাস 1 সপ্তাহ যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 10 টি টিউন ও 2 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 2 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

আপু কন্টেন্ট কোয়ালিটি ভালো হচ্ছে না – টেকটিউনস ট্রাষ্টেড টিউনার আবেদন করলে ডিরেক্ট বাতিল হয়ে যাবেন। ডেক্স পেজে দেখলাম একটা পোস্ট করছেন। তাই সর্তক করলাম – টিউন কোয়ালিটি আরো ভালো করুন।

    ধন্যবাদ ভাইয়া।আমার ভুলটা কি একটু দেখিয়ে দেওয়া যাবে? খুবই উপকৃত হবো

      টিউনে বিশেষ কোনো ভুল নেই! তবে টিউনের কোয়ালিটি ঠিক নেই। আপনাকে অবশ্যই কোয়ালিটির দিকে নজর দিতে হবে৷ টিউনে দেখলাম অনেক যায়গায় (★) দিয়েছেন। এইটা কোনো টিউন লেখার নিয়মে পরে না। টিউনে (•) দেওয়ার একটা অপশন পাবেন। সঠিক চিহ্নের ব্যবহার করুন। না পারলে কিভাবে টেকটিউনসে পোস্ট লিখতে হয় তা নিয়েই টেকটিউনসে টিউন আছে তা পড়ে শিখুন।

      খেয়াল করুনঃ শুধু এই টুকুই নয়! কোন টিউন লিখতে ধরলে সেই বিষয়ে অমুক জিনিস কী? কী কাজে ব্যবহার হয়? কেনো ব্যবহার করবেন? অমুক জিনিসের সুবিধা অসুবিধা কী? ইত্যাদি বিষয়গুলো নিয়ে হেডিং করে লিখুন আর প্রতিটি হেডিং এর অধিনে 1920×1080 সাইজের ইমেজ যুক্ত করুন। এইভাবে টিউনের কোয়ালিটি কিছুটা বজায় রাখুন।বাকিটা আপনি পরে এমনিই শিখতে পারবেন!