মোটর সম্বন্ধে খুঁটিনাটি আলোচনা ও কিছু প্রশ্ন-উত্তর।

প্রিয় বন্ধুরা,

টেকটিউনে এটা আমার প্রথম লেখা। কোন প্রকার ভুল ত্রুটি হলে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন। আজ আমি আপনাদের সাথে মোটর নিয়ে কিছু বিষয় শেয়ার করবো।

মোটর কিঃ

সাধারণ কথায় যা দিয়ে আমরা বাসাবাড়িতে পানি তুলি, তাকেই মোটর বলে ডাকি (ক্ষেত্র বিশেষে পাম্প ও বলে)। হ্যাঁ, অনেকটা এরকমই। কিন্তু কিসের জন্য আমরা একই জিনিস কে দুইটি ভিন্ন নামে ডাকি? যেমন একটা জেনারেটর আর আরেকটা মোটর?

একে আমরা এ জন্যই মোটর বলে ডাকি কারণ এই যন্ত্রটি ইলেকট্রিক শক্তি কে মেকানিক্যাল শক্তিতে পরিণত করে। অর্থাৎ আমরা একে চালাতে ইনপুট হিসেবে দিচ্ছি বৈদ্যুতিক শক্তি আর আউটপুটে আমরা এর দ্বারা অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজ করিয়ে নিতে পারছি।

অর্থাৎ, মেশিনের যে দুটি ভাগের কথা বলেছিলাম একটি মোটর আর আরেকটি জেনারেটর, সেই দুটির মধ্যে এটিই হল মোটর, যা কিনা ইলেকট্রিক্যাল শক্তিকে মেকানিক্যাল শক্তিতে পরিণত করতে পারে এবং আমাদের দৈনন্দিন কাজ সম্পাদনে সাহায্য করে।

মোটরের প্রকারভেদঃ

প্রধানত মোটরকে ২ ভাগে ভাগ করা হয়, যথাঃ ১) এসি মোটর ২) ডিসি মোটর ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং এবং মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এ আগ্রহীদের জন্য মোটর সম্পর্কে জানা খুবই প্রয়োজন। বিশেষ করে যাদের রোবট ও রোবোটিক্স এর উপর কাজ করার ইচ্ছা। কারণ রোবটের মুভমেন্ট কন্ট্রোলিং এরজন্য ভিন্নভিন্ন মোটর ব্যবহারের প্রয়োজন পড়ে। নামেই পরিচয় বিধায় এসি মোটর আর ডিসি মোটর এর ব্যাখ্যায় গেলাম না।

এছাড়াও ইন্ডাকশন মোটর, সিনক্রোনাস মোটর প্রভৃতি বিভিন্ন ভাগে ভাগকরা যায়, তবে তা নিয়ে আজ লিখবো না। সামনে কোনো এক লেখায় ইন্ডাকশন মোটর, সিনক্রোনাস মোটর সহ আরো বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলবো।

মোটরের কন্সট্রাকশন বা গঠনঃ

আসলে গঠন প্রনালী নিয়ে এক্সট্রা কিছু বলার দরকার পড়েনা। কারন ডিসি মোটর আর ডিসি জেনারেটর এর গঠন প্রনালী প্রায় একই। খুব বেশি পার্থক্য বা এক্কেবারেই কোন পার্থক্য নেই বলা চলে। তবে ডিসি মোটর আর ডিসি জেনারেটর এর কাজের ধরনে আকাশ-পাতাল তফাৎ আছে। দুটিরই কাজ পুরোপুরি ভিন্ন। তবে মোটরের ক্ষেত্রে আরও অতিরিক্ত বিষয় আছে যেগুলো আমরা পরবর্তি লেখাতে আলোচনা করবো।

 

আপনার কোন প্রকার প্রশ্ন থাকলে অবশ্যই টিউমেন্ট করবেন বন্ধু। আজ এই পর্যন্ত।

Level 1

আমি Nazmul Islam। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 6 বছর 8 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 12 টি টিউন ও 96 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 4 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 2 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

আমার মনে হয় এক পর্বের এপিসোডেই শেষ করা যেত

    ভাইয়া, আরো কিছু বিষয় আছে যেগুলো প্রশ্ন-উত্তর আকারে দেওয়া হবে। বেশি বড় লেখা লিখতে সময় সাপেক্ষ হয়ে যায় আবার অনেক পাঠক বেশি সময়ের কারনে পড়তে চাই না। তাই পর্বভিত্তিক ভাগ করে নেওয়া হয়েছে। ধন্যবাদ।