পদার্থবিজ্ঞান এর কিছু মাত্রা সমীকরণ ও সূত্র

    • পদার্থ বিজ্ঞানের গুরুত্বপূর্ণ

 

    মাত্রা সমীকরণ

:
সরণ : [L]
বেগ :[LT-1]
ত্বরণ :[LT-2]
ভরবেগ :[MLT-1]
বল :[MLT-2]
বলের ঘাত :[MLT-1]
কৌণিক বেগ :[T-1]
কৌণিক ত্বরণ :[T-2]
কৌণিক ভরবেগ :[ML2T-1]
চক্রগতির ব্যাসার্ধ :[L] জড়তার
ভ্রামক : [ML2]
দন্দের ভ্রামক : [ML2T-2]
বলের ভ্রামক : [ML2T-2]
কাজ : [ML2T-2]
ক্ষমতা :[ML2T-3]
শক্তি : [ML2T-2]
মহাকর্ষীয় প্রাবল্য : [LT-2]
মহাকর্ষীয় ধ্রুবক : [M-1L3T-2]
মহাকর্ষীয় বিভব :[L2T-2]
স্থিতিস্থাপক গুণাঙ্ক :[ML-1T-2]
পৃষ্ঠটান : [MT-2]
সান্দ্রতা গুণাঙ্ক :[ML-1T-2]
পৃষ্ঠশক্তি : [MT-2]

*

    ওহমের সূত্র (Ohm’s Law)

মান বিজ্ঞানী ড: জর্জ সাইমন ওহম কারেন্ট, ভোল্টেজ এবং রেজিস্ট্যান্সের মধ্যে সম্পর্ক নির্ণয় করেন, এ সম্পর্কই ওহমের সূত্র (Ohm's Law) নামে পরিচিত।
কোন পরিবাহীর মধ্য দিয়ে সুষম উষ্ণতায় প্রবাহিত কারেন্ট ঐ পরিবাহীর দুপ্রান্তের ভোল্টেজের সমানুপাতিক।

অথবা

কোন পরিবাহির ভিতর দিয়ে স্থির তাপমাত্রায় প্রবাহিত কারেন্ট ঐ পরিবাহির দুপ্রান্তের বিভব পার্থক্যের সমানপাতিক এবং রেজিস্ট্যান্সের বাস্তানুপাতিক।

ওহমের সূত্র মতে, কোন পরিবাহীর দুই প্রান্তের বিভব পার্থক্য V এবং প্রবাহিত কারেন্ট I হলে,

V α I

বা, V = IR এখানে, R = পরিবাহীর রেজিস্ট্যান্স (সমানুপাতিক ধ্রুবক)

ওহমের সূত্রের সীমাবদ্ধতা:

ওহমের সূত্রকে যদিও ইলেকট্রিসিটির গুরু বলে মানা হয়, এর কিছু সীমাবদ্ধতা আছে

১. ওহমের সূত্র DC এর ক্ষেত্রে প্রযোজ্য, AC এর ক্ষেত্রে নয়।
২. তাপমাত্রা পরিবর্তন হলে ওহমের সূত্র প্রযোজ্য নয়।
৩. তাপমাত্রা স্থির থাকলেও সিলিকন কার্বাইডের ক্ষেত্রে ওহমের সূত্র প্রযোজ্য নয়।
৪. জটিল সার্কিট সমূহ ওহমের সূত্রের সাহায্যে সমাধান করা যায় না।

*

Level 0

আমি তানভীর হোসেন। Student, College, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 2 বছর 4 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 8 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস