কন্টেন্ট কপিরাইট চেক করার সেরা কয়েকটি সাইট

সবাই কেমন আছেন? আশা করি ভাল। আজকে আমি আপনাদের সাথে কিছু আর্টিকেল চেক করার সাইট বা টুলস এর সাথে পরিচয় করিয়ে দিবো। যে গুলো দিয়ে আপনারা সহজেই ক্লাইন্ট অথবা নিজেদের আর্টিকেল গুলো চেক করাতে পারেন। তাছাড়া আশা করি ব্লগিং এর ক্ষেত্রেও এগুলো অনেক দরকারী। তাহলে আসুন শুরু করি।

1) The Plagiarism Checker :

এই সাইটটি দিয়ে আপনি আপনার আর্টিকেলের প্রতিটি sentence খুজে বের করতে পারেন। এই সাইটির টুলস ব্যবহার ও খুবেই সহজ আপনি শুধু আনার আটিকেলটি কপি করে ব্যাঙ্ক বক্সে পেস্ট করবেন তারপর “check the paper” ক্লিক করবেন। তাছাড়া আপনি আপনার ওয়ার্ড ফাইলটি আপলোড করে আপনার কন্টেন্ট চেক করতে পারেন। এই সাইটটে অনেক বড় বড় আর্টিকেল সাপোর্ট করে তাই বিনা দ্বিধায় চেক করতে পারেন।

2) Small SEO Tools – Plagiarism Checker :

আরেকটি ভাল plagiarism চেকার টুলস এর সাইট। বাংলাদেশের অনেক নামকরা কন্টেন্ট রাইটার আর মার্কেটাররা এই সাইট এর সাজেষ্ট করে থাকে। এইটার মধ্যে ইজি চেক এর অপশন থাকাতে এইটা খুব তাড়াতাড়ি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। আপনার আর্টিকেলটি চেক করাতে প্রথমে সাইট এ যান, দেখবেন নিচে ব্যাঙ্ক বক্স আছে সেখানে আর্টিকেলটি পেষ্ট করুন তারপর “check Unique”। এবং তারপর আপনার আর্টিকেলটি কতটুকু ইউনিক তা % আকারে দেখাবে।

3) PlagiarismChecker.com :

এই সাইটটিকে আরেকটি অসাধারণ plagiarism চেকার হিসাবে বিবেচিত করা হয়। এটি সবচেয়ে জনপ্রিয ব্লগারদের কাছে, আপনি সাইটটির টুলস ব্যবহার করতে প্রথমে সাইটটি অপেন করবেন। তারপর হোম পেইজেই দেখবেন একটি সার্চ বক্স, সেখানে আপনার আর্টিকেলের টাইটেল, কিছু অংশ দিয়ে সার্চ দিবেন। তাহলেই আপনি দেখতে পারবেন, আপনার অজান্তে কতজন আপনার পোষ্টটি কপি করেছে আর অন্য জায়গায় পোষ্ট করেছে :p । সাইটি যে দিকটি তাকে অসাধারণ করেছে তা হলো, আপনি চাইলে একটি গুগল এলার্ট তৈরি করতে পারেন এবং যখন কেও আপনার পোষ্টটি অনুরূপ ভাবে কপি করে পাবলিশ করবে গুগল আপনাকে ইমেইল এর মাধ্যমে এলার্ট করবে। তারপর আপনি রিপোর্ট করতে পারেন কপি পোষ্টটির বিরুদ্ধে। আর সাইটটি পাবলিশারদের জন্য অসাধারণ করে ডিজাইন করা।

4) Dupli Checker :

সাইটটি আপনি অপেন করলেই দেখতে পারবেন মিলিয়ন ভিজিটর এই সাইটটি দিয়ে আর্টিকেল চেক এর জন্য ব্যবহার করেন। এ্ই সাইটটির টুলস দিয়ে আপনি খুব সহজ ভাবে কিছু স্টেপ পুরণ করেই আর্টিকেল চেক করাতে পারেন। আপনি একসাথে প্রায় ২০০০ ওয়ার্ডের আর্টিকেল চেক করাতে পারেন। তাছাড়া আপনি .doc, .Docx এবং txt ফাইল আপলোড এর মাধ্যমে চেক করাতে পারেন।

5) Article Checker :

আপনি যখন এই সাইটটি প্রথম ভিডিট করবেন কিছুই বুঝবেন না। আশা করি আমাকে কিছু বকাও দিতে পারেন কিন্তু সাইটটি নিয়ে কিছুক্ষন ঘাটাঘাটি করেন তারপর বুঝবেন আপনি কি পাইলেন! দেখুন সাইটটিতে ৩টি বক্স, এর মধ্যে প্রথম এবং তৃতীয়টি আপনাকে সাহায্য করবেন ওয়েবপেইজ খোঁজার জন্য। আর দ্বিতীয়টি আপনাকে টেক্সট খোজঁতে সাহায্য করবে। আপনি Google বা Yahoo ব্যবহার করে সার্চ করতে পারেন।

6) Plagiarism Checker :

সবার শেষে এই সাইটটি এর Plagiarism চেকার এই টুলসটি অনেক জনপ্রিয়, যদিও এটা সবার শেষে দিলাম কিন্তু মার্কেটারদের কাছে এটি একটি নির্ভর যোগ্য আর জনপ্রিয় চেকার । ইউজার ফ্রেন্ডলি এবং নির্ভরযোগ্যতার জন্য এটি সবার প্রিয়। আপনি এই চেকার টুলস দিয়ে মাত্র দুইটি স্টেপ অতিক্রম করেই ডকুমেন্ট অথবা ওয়েবপেইজ চেক করাতে পারেন। প্রথমে আপনি আপনার আর্টিকেল টেক্স কপি করে ব্যাঙ্ক বক্সে পেস্ট করুন এই ক্ষেত্রে সব্বোর্চ্চ ১৫০০ ওয়ার্ড পযর্ন্ত রাখুন প্রতিবার সার্চের ক্ষেত্রে। এইবার ব্যঙ্ক বক্সে আর্টিকেল টেক্স দেওয়া হলে “Search” বাটনে ক্লিক করুন। তারপর সার্চ রেজাল্টটি রিডাইরেক্টেড হয়ে রেজাল্ট পেইজ আসতে একটু সময় লাগতে পারে, তারপর আপনার রেজাল্টটি আপনি পাবেন। দ্বিতীয় পদ্ধতিটি হচ্ছে কম্পিউটারের ব্রাউজ করে ফাইল এটার্চ করে আপলোডের মাধ্যমে সার্চ করা। আপনি যখন আপলোড করবেন তখন আপনার আপলোডটি successfully দেখিয়ে একটি মেসেজ আসবে তারপর আপনার আগের মতই “Search” বাটন ক্লিক করে ডকুমেন্টটি সার্চ করতে হবে।

শেষ কথাঃ

আশা করি আজকের পোষ্টটি আপনাদের ভাল লেগেছে। পোষ্ট কন্টেন্ট রাইটার সর্বপরি সবারেই ইনশাল্লাহ অনেক উপকারে আসবে। অনেকে হয়তো বা আগে থেকেই সাইট গুলোর সম্পর্কে জানেন কেও বা নতুন। পোষ্টে কোন ভুল ক্রুটি হয়ে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন।

সবাইকে ধন্যবাদ,

আপনার মন্তব্য, আপনার কেমন লাগলো? এবং নিজের কিছু ট্রিক্স থাকলে আমাদের জানানঃ

আমার ফেইসবুক             আমার ব্লগ

Level 0

আমি Readul Haque। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 12 বছর 5 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 41 টি টিউন ও 268 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

ধন্যবাদ শেয়ার করবার জন্য।

    @জুবায়ের আহমেদ: আপনাকেও ধন্যবাদ