Rescue Time – আপনার ইন্টারনেট ব্যবহারের আসক্তি কমিয়ে আনুন, আপনার সময়কে আরো কার্যকর করে প্রোডাক্টিভিটি বাড়ান

টিউন বিভাগ ডাউনলোড
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

আমাদের অনেক সময়গুলো সোসাল নেটওয়ার্কিং সাইটেই কাটে, ফেসবুক, টুইটার, মুভি, নাটক বিভিন্ন কিছুর কারনে কাজের কাজ কিছুই হয় না। বরং অকারনে অনেক সময় নষ্ট হয়। অনেক সময় আমরা নিজেরাই জানি না এগুলোতে আমরা অনেক সময় নষ্ট করে ফেলছি। আমরা যদি জানতে পারি কোনটাতে কতটুকু সময় ব্যয় করছি, তাহলে কতটুকু সময় ব্যয় করা উচিত তা অনুধাবন করে সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে পারব।

আমাদের টাইম ট্র্যাক করার জন্য ভাল একটি ওয়েব এপ্লিকেশন হল http://www.rescuetime.com.

https://www.rescuetime.com
আপনি rescuetime সাইটে গিয়ে sign up করুন। আপনার ইমেইলে একটা লিঙ্ক পাঠানো হবে। সেই লিঙ্কে ক্লিক দিয়ে ইমেইল ভেরিফিকেশন করুন। এবার আপনাকে rescuetime এর ট্র্যাকার সফটওয়্যার ডাউনলোড করতে হবে।

উইন্ডোজ ব্যবহারকারীদের জন্যঃ

এই লিঙ্কে যেয়ে উইন্ডোজের জন্য সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে ইন্সটল করুন। rescuetime ওপেন করে আপনার ইমেইল এড্রেসটি দিন। তারপর Active button এ ক্লিক করুন। কাজ শেষ!

এরপর থেকে আপনি rescuetime ওয়েবসাইটে ভিজিট করলেই দেখতে পারেন, আপনি সারাদিনে কি কি করেছেন। গতকালের আমার একটি স্ক্রীনশট শেয়ার করছি -


আপনি ড্যাসবোর্ডে ঢুকলে আপনি আরো অনেক কিছুর ডিটেইলস দেখতে পারেন। rescuetime অনেক ওয়েবসাইট বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে রেখেছে। যেমন ফেসবুকে ঢুকলে এটা loss time হিসেবে লাল কালারে দেখাবে। আবার stackoverflow এর মত সাইটে ঢুকলে software developing হিসেবে দেখাবে আবার google এ ঢুকলে এটা reference & learning হিসেবে দেখাবে।

ইউটিউবে ঢুকলে এটা entertainment এর ক্যাটাগরিতে  নিবে এবং loss time হিসেবে ট্র্যাক করবে। ধরুন আপনি ইউটিউবে টেকনোলজির কোন টিউটরিয়াল দেখছেন। সেটা নিশ্চয় আপনার জন্য loss time হিসেবে ট্র্যাক করা উচিত হবে না। আপনি তাহলে ঐ সময়কে productive এ সিলেক্ট করে আজকের দিনের প্রোডাক্টিভিটি হিসাব করতে পারেন।


আপনি আপনার Goal করে রাখতে পারেন। ধরুন আজকের দিনে আপনার ৬ ঘন্টা প্রোডাক্টিভ টাইম হওয়া উচিত আর ফেসবুকিং ২ ঘন্টার বেশি হওয়া উচিত না। সে অনুসারে rescue time আরেকটা ডাটা তৈরি করবে এবং আপনি কত পার্সেন্ট পূর্ণ করতে পেরেছেন তা দেখাবে।


আপনি কি কি সাইটে গিয়েছেন তাও সুন্দর করে চার্টের মাধ্যমে দেখাবে

Rescue টাইম ব্যবহার করতে পারেন। নিজেই বুঝতে পারবে নিজের কি করা দরকার।

লিনাক্স ব্যবহারকারীদের জন্য

আমি আমার উইন্ডোজ লিনাক্স দুইটাতেই ইন্সটল করে রেখেছি যাতে কোনভাবেই ট্র্যাকিং মিস না হয়। লিনাক্সের জন্য deb ফাইল এবং ফায়ারফক্স add on ব্যবহার করা লাগে। এই লিঙ্কে যেয়ে

আপনার উবুন্টুর জন্য deb ফাইল ও xpi এক্সটেনশন যুক্ত ফায়ারফক্স এড অন ডাউনলোড করে নিন।

এড অন ইন্সটলের জন্য ফায়ারফক্সে File - Open - xpi ফাইলটি সিলেক্ট করে দিন- install now. ফায়ারফক্স রিস্টার্ট দিন।

এবার deb এক্সটেনশনযুক্ত সফটওয়্যারটিতে ক্লিক দিন। Ubuntu software center আসবে কিছুক্ষন পর rescue time সফটওয়্যারের install বাটন আসবে। ইন্সটল করুন।

যদি ইন্সটল বাটন না এসে Sqlite dependancy problem দেখায়, তাহলে টার্মিনালে গিয়ে sudo apt-get update কমান্ড দিন। আপডেট শেষ হলে আবার deb ফাইলটি ওপেন করুন এবার ইন্সটল বাটন পেয়ে যাবেন।

ওরা লিনাক্সের জন্য যে সফটওয়্যারটি ডেভেলাপ করেছে সেটিতে স্টার্টয়াপ ব্যবস্থা রাখে নি। ফলে পিসি রিস্টার্স্ট দিলেই সফটওয়্যারটি আবার অন হবে না। তাই এই কাজটি করে আমি স্টার্ট আপে এনে দিব। এর জন্য Dashboard বা আপনার application লিস্টে এ গিয়ে startup Application এ যান।


add এ ক্লিক করে নিচের স্ক্রীনশটের মত লিখুন


save এ ক্লিক দিয়ে পিসি রিস্টার্স্ট করুন। পিসি অন হবার সাথে সাথেই দেখতে পাবেন rescue time ইমেইল এড্রেস এবং পাসওয়ার্ড ইনপুট করার জন্য একটি উইন্ডো এসেছে। ইমেইল এবং পাসওয়ার্ড এ ক্লিক দিয়ে Activate এ ক্লিক করুন। কাজ শেষ!

ধন্যবাদ সবাইকে। কোন কিছু না বুঝলে জানাবেন।

Level 0

আমি Mashpy Says। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 12 বছর 8 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 25 টি টিউন ও 1965 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

প্রয়োজনের সময় আমি অনেকের কাছেই প্রয়োজনীয়।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

net connection taka lagbe naki?

    @Md Akter Hossain Badal: এই এপস জাস্ট ওয়েবসাইটের এড্রেস ও টাইটেল ও সময় এই তিনটা ইনফরমেনশন কালেক্ট করে তার sqlite3 ডাটাবেজে রাখে। ১০-২০ মিনিট পর সেগুলো rescuetime.com এ আপলোড করে।

অসাধারণ একটি সফটওয়্যার, ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য |