বর্তমান সময়ে জনপ্রিয় ৫ টি AI কোডিং এসিস্ট্যান্ট!

Level 4
Sonic টিউনার, টেকটিউনস, গাইবান্ধা, রংপুর

আসসালামু আলাইকুম। টেকটিউনস এর নতুন আরো একটি টিউনে আপনাকে স্বাগতম। আমি স্বপন আছি আপনাদের সাথে, আশাকরি সকলেই অনেক ভালো আছেন। বন্ধুরা বর্তমানে অনলাইনে অনেক বেশি ব্যবহৃত আর বহুল পরিচিতি একটি অটো বট হলো Open AI এর বানানো Chat GPT। Chat GPT কে কেন্দ্র করে বর্তমানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান নানানরকম সার্ভিস প্রদান করে আসছে। এই সার্ভিসগুলো মূলত Open AI এর প্রদান করা ওপেন সোর্স অথবা GPT API যা দ্বারা আপনি হুবুহু নিদিষ্ট কাজের জন্য আলাদা আর ইউনিক অটো বট বানাতে পারবেন। তো এই বিষয় নিয়ে আমরা অন্য কোনো একদিন আলোচনা করবো ইনশাআল্লাহ। বর্তমানে এই AI এসিস্ট্যান্ট গুলোর জনপ্রিয়তা আকাশছোঁয়া। এই AI এসিস্ট্যান্ট দিয়ে আপনি আপনার প্রতিদিনের অনলাইনে থাকা অনেক কঠিন কাজগুলোও খুব সহজে সম্পূর্ণ করতে পারবেন।

বর্তমানে তেমনি কঠিন আর ব্যয়বহুল সেই সাথে জনপ্রিয় একটি বিষয় হলো কোডিং শেখা। আপনি যদি অনলাইনে বিভিন্ন কোর্স করতে চান। তাহলে আপনাকে এই কোর্সগুলো নেওয়ার জন্য আপনার সামর্থ্যের চেয়েও বেশি অর্থ প্রদান করে সেই কোর্সগুলো নিতে হবে। এছাড়াও আপনি যদি কারো থেকে শিখতে চান তাহলে সেটিও সম্ভব না। কারণ বর্তমানে এই কোডিং এতো জনপ্রিয় যে, যারা আজকে কোডিং বিষয়ে এক্সপার্ট তারা অনলাইনে কোডিং কাজগুলো নিয়েই বিজি। তারা সেখান থেকেই অনেক বেশি অর্থ ইনকাম করতে পারছেন। তারা সামান্য কিছু অর্থের জন্য আপনাকে পারসোনাল ভাবে কোডিং শেখাতে কিংবা তাদের মূল্যবান সময় নষ্ট করতে চাইবে না। যার ফলে কোডিং বিষয়ে অনেক বেশি স্বপ্ন থাকলেও সঠিক গাইডলাইনের অভাবে তা পূরন করা সম্ভব নয়।

তবে বর্তমানে প্রযুক্তির সাথে তাল মিলিয়ে তৈরি হয়ে চমৎকার সব কোডিং শেখার কিংবা কোডিং করার AI কোডিং এসিস্ট্যান্ট। এই AI কোডিং এসিস্ট্যান্ট গুলোকে আপনি আপনার নিজের মতো করে ব্যবহার করতে পারবেন অথবা আপনার দরকারি সব কোডিংগুলো করে নিতে পারবেন। এই AI কোডিং এসিস্ট্যান্টগুলো নিয়ন্ত্রণ করতে আপনার বারতি কোনো প্রোগামিং জ্ঞান থাকার প্রয়োজন পরবে না। আপনি শুধুমাত্র ইংরেজিতে টিউমেন্ট অথবা কোনো বিষয়ে আদেশ করেই আপনার যাবতীয় সকল কাজগুলো খুব সহজেই করে নিতে পারবেন। AI কোডিং এসিস্ট্যান্ট দ্বারা আপনি সকল ভাষায় প্রোগ্রামিং করতে পারবেন। জনপ্রিয় কয়েকটি প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ হলোঃ

  1. পাইথন
  2. জাভাস্ক্রিপ্ট
  3. জাভা
  4. সি+
  5. পিএইচপি ইত্যাদি।

আমি আপনাদের ধারণা দেওয়ার জন্য শুধুমাত্র হাতে গোনা এই কয়েকটি জনপ্রিয় প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজের নাম বললাম। এগুলো ছাড়াও আজকের টিউনে আলোচনা করা দূর্দান্ত এই AI কোডিং এসিস্ট্যান্ট গুলো দিয়ে সকল ধরনের প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ শেখা সহ মেশিন লার্নিং, ন্যাচারাল ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিং, ডাটা সায়েন্স ইত্যাদি সকল কাজগুলো খুব সহজেই করতে অথবা শিখতে পারবেন। আপনি আপনার যে কাজের জন্য টিউমেন্ট করবেন সেই কমেন্টগুলো অবশ্যই ইংরেজিতে করবেন৷ তাহলে এই Ai কোডিং এসিস্ট্যান্টগুলো থেকে আউটপুট অনেক ভালো পাবেন।

মনে করুন, আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে একটি ডায়নামিক  কন্টাক পেজ বানাতে চাচ্ছেন তাহলে টিউমেন্ট দিবেন - Make Dainamic Contact Page Code For WordPress. আশাকরি এই টিউমেন্ট বিষয়টি আপনাদের বোঝাতে পেরেছি। তো চলুন আর কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক আমাদের আজকের টিউন সেরা ৫ টি Ai কোডিং এসিস্ট্যান্ট নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা।

১. Amazon CodeWhisperer - আমাজন কোড উইসপার

Amazon CodeWhisperer হলো জনপ্রিয় একটি কোড কমপ্লিশন টুল যা বিখ্যাত মার্কেট প্রতিষ্ঠান আমাজনের প্রযুক্তি দ্বারা তৈরি করা হয়েছে। এটি প্রোগ্রামারদের তাদের প্রতিদিনের যেকোনো কাজের কোডগুলো অনেক সহজে আর খুব অল্প সময়ে লিখে দিয়ে সহায়তা করে। Amazon CodeWhisperer বিশেষ করে যারা মার্কেটপ্লেসে কোডিং নিয়ে কাজ করে তাদের কাছেই অনেক বেশি জনপ্রিয়। জনপ্রিয় এই কোডিং টুলটি আপনি ব্রাউজার এক্সটেনশনেও ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়াও আপনি এই জনপ্রিয় Amazon CodeWhisperer পপুলার সকল কোড এডিটরে বা IDE-তে লিখতে পারবেন। জনপ্রিয় কিছু কোড এডিটর হলোঃ Visual Studio Code, IntelliJ IDEA, PyCharm, ইত্যাদি। Amazon CodeWhisperer ফিচারগুলো হলো:

  1. অটোমেটিক কোড কমপ্লিশন: আমাজন CodeWhisperer দ্বারা যে কেউ খুব সহজে প্রোগামিং করার জন্য অটোমেটিকভাবেই কোড কমপ্লিশন করতে পারবেন। আপনি যখন কোনো কোড লিখবেন তখন এই Amazon CodeWhisperer আপনাকে অটোমেটিক ভাবেই কিছু কোড সাজেস্ট করতে থাকবে যা অনেকটাই সঠিক হওয়ার সম্ভবনা থাকে৷ যার ফলে আপনার সামান্য অভিজ্ঞতা থাকলেই আপনার কাছে কোড লেখা অনেক বেশি সহজ হয়ে যাবে।
  2. স্নিপেড সাপোর্ট: Amazon CodeWhisperer প্রোগ্রামারদেরকে উন্নত বিষয়গুলো নিয়ে কোড নিয়ে অনেক বেশি সহায়তা প্রদান করে থাকে৷ এই CodeWhisperer অনেক উন্নত কোড লেখার সময় আপনাকে ডিফল্ট ভাবেই উপযুক্ত স্ট্রাকচার বা প্রসেস প্রদান করবে। যার ফলে আপনার কাজগুলো সুন্দর আর গোছানো হবে৷
  3. ডকুমেন্টেশন প্রস্তাবনা: CodeWhisperer আপনাকে আপনার লেখা কোডগুলোর জন্য বিভিন্ন ডকুমেন্টস প্রদান করবে। যার দ্বারা আপনি আপনার লেখা কোডগুলোর গাইডলাইন্স এর কোডগুলোর আউটপুট সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা পাবেন।
  4. কোডিং অ্যাক্সেসিবিলিটি চেক: Amazon CodeWhisperer আপনাকে আপনার করা কোডগুলো ব্যাকগ্রাউন্ডে রান করাতে অনেক সাহায্য করবে। যার ফলে আপনি আপনার কোডের পারফর্মেন্স, সিকিউরিটি, কোড ভ্যালিডিটি ইত্যাদি সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা পাবেন। যার ফলে কোথায় পরিবর্তন করলে আরো ভালো হবে সেই বিষয়টি ক্লিয়ার বুঝতে পারবেন।

Amazon CodeWhisperer দ্বারা আপনি জনপ্রিয় সকল প্রোগামিং ল্যাংগুয়েজ গুলো ব্যবহার করে কোডিং করতে পারবেন। উল্লেখযোগ্য জনপ্রিয় কিছু কোডিং ল্যাংগুয়েজ হলো Python, JavaScript, Java, C+, C#, ইত্যাদি সহ সকল জনপ্রিয় প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ গুলো মেইনফ্রেম অথবা ইন্টিগ্রেটেড ডেভেলপমেন্ট এনভায়রনমেন্ট (IDE) বা কোড এডিটরে কোডিং করেও কাজ করতে পারবেন।

Amazon Code Wishperper

Official Website @ Amazon Code Whisperer

২. GitHub Copilot - গিটহাব কপিলট

GitHub Copilot একটি জনপ্রিয় সম্পূর্ণ এবং স্বয়ংক্রিয় কোড লেখার টুল যা প্রোগ্রামারদের বিভিন্ন বিষয়ে কোড লেখার জন্য সহায়তা করে। জনপ্রিয় এই কোড লেখার টুলটি আপনি আপনার ব্রাউজার এক্সটেনশনে সহায়ক হিসাবেও Vs Code দ্বারা কোডিং করার জন্য ব্যবহার করতে পারবেন। GitHub Copilot মূলত প্রোগ্রামারদের সুবিধাজনক এবং অতি দ্রুত কোডিং কাজ সম্পূর্ণ করতে সহায়তা করে থাকে৷ GitHub Copilot জনপ্রিয় ফিচারগুলো হলো:

  1. স্নিপেড সাপোর্ট: GitHub Copilot দ্বারা কোডিং করার সময় টুলসটি আপনাকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে বিভিন্ন কোড লেখার জন্য প্রয়োজনীয় নির্ভুল নির্দেশনা প্রদান করে থাকে। যখন কোনো প্রোগ্রামার কোড লিখতে শুরু করে তখন স্বয়ংক্রিয়ভাবে সিস্টেম ডিটেক্ট করে। সে অনুযায়ী হতে পারে এমন কোডিং নির্দেশনাগুলো প্রদান করে থাকে।
  2. স্ট্রিং ম্যানিপুলেশন: Copilot স্ট্রিং ম্যানিপুলেশন অনেকটা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই কাজ করে। যখন স্ট্রিং কোড নির্মাণ করা হয়, তখন Copilot সেই প্রোগ্রামের আগে লেখা আরো কিছু কোড থেকে কমন আর কানেকশন থাকতে পারে এমন বিষয়গুলো তুলে ধরে৷ যার ফলে কোডিংগুলো একটির সাথে আরেকটি সংযোগ স্থাপন করে অনেক সুবিধা হয় এবং পুরো প্রসেস নির্ভুল কোডিং করা সম্ভব হয়।
  3. লেখার স্টাইল উপর ভিত্তি করে কোড লেখা: GitHub Copilot ব্যবহার করে আপনি যখন কোডিং লিখতে ধরবেন তখন স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার সম্পুর্ন কোডিং লেখার স্টাইল আপনার সামনে তুলে ধরা হবে। আপনি কোনো স্টাইলে কোডিং লিখতে চান তা আপনার থেকে জেনে নেওয়া হবে যেমন, যখন আপনি কোনো লুপ লিখছেন, তখন Copilot আপনাকে সাধারণ লুপ স্টাইল নিয়ে লিখবেন কিনা সেটা জনতে চাইতে পারে। তারপর আপনার ইচ্ছামতো স্টাইল নিলে কোডিং লেখা শুরু করতে পারেন।
  4. ভাষা সাপোর্ট: GitHub Copilot অন্যান্য সকল প্রোগামিং টুলসগুলোর মতোই একাধিক প্রোগ্রামিং ভাষা ব্যবহার করে কোডিং লেখা সম্ভব। এখানে আপনি কতোটা উন্নত কোডিং করতে চাচ্ছেন তা উপর নির্ভর করে কোডিং ল্যাংগুয়েজ বাছাই করতে পারেন। বর্তমানে এই GitHub Copilot টুলস ব্যবহার করে জাভাস্ক্রিপ্ট, পাইথন, রাবি, টাইপ স্ক্রিপ্ট, পিএইচপি, জিএস, এবং মার্কডাউন মতো জনপ্রিয় সকল ভাষায় কোডিং করা যায়।

GitHub Copilot

Official Website @ GitHub Copilot

৩. Tabnine - টাবাইন

Tabnine একটি AI-powered কোড কমপ্লিশন টুল যা প্রোগ্রামারদের নির্ভুলভাবে কোড লেখতে সহায়তা করে। জনপ্রিয় এই কোড কমপ্লিশন টুলটি আপনি আপনার ব্রাউজারে এক্সটেনশন হিসাবেও ব্যবহার করতে পারবেন যা আপনি জনপ্রিয় সকল কোড এডিটর যেমন Visual Studio Code (VS Code), IntelliJ IDEA, PyCharm, Sublime Text, Atom, Vim ইত্যাদি এপ্লিকেশন মাধ্যমে কোডিং কাজ সম্পূর্ণ কর‍তে পারবেন। Tabnine প্রোগ্রামিং টুলসটি বর্তমানে জনপ্রিয় সকল ফিচারগুলো যুক্ত করা আছে৷ কেউ যদি নতুন অবস্থায় কোডিং শিখতে চায় তাহলেও বেশ ভালোভাবেই শিখতে পারবেন। কারণ বর্তমানে জনপ্রিয় এই AI-powered Tabnine টুলস কোডিং শেখা থেকে শুরু করে কোডিং করা পযন্ত সকল ফিচার সুন্দরভাবে যুক্ত করা হয়েছে৷
Tabnine জনপ্রিয় ফিচারগুলো হলো:

  1. স্নিপেড সাপোর্ট: Tabnine প্রোগ্রামারদেরকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে স্নিপেটগুলি প্রদান করে যার কারণে প্রোগ্রামারদের কোডিং করতে অতিরিক্ত সময় নষ্ট হয় না। Tabnine স্নিপেটগুলো মূলত প্রোগ্রামারদের কোড লেখার গুরুত্বপূর্ন স্ট্রাকচার অথবা নির্দেশনা প্রদান করে থাকে।
  2. অটোমেটিক কোড কমপ্লিশন: Tabnine প্রোগ্রামারদেরকে অটোমেটিক কোড কমপ্লিশন প্রদান করে। যখন কোনো প্রোগ্রামার কোড লিখবে তখন সেই কোডের সম্ভাব্য পরবর্তী অংশ কি হতে পারে তা নির্দেশনার মাধ্যমে প্রদান করে থাকে৷ এতে কোডিং ভুল হওয়ার সম্ভবনা অনেক কমে যায়।
  3. কোড ফরম্যাটিং: Tabnine জনপ্রিয় আর শক্তিশালী AI-powered অ্যালগরিদম ব্যবহার করে খুব ভালোভাবেই আগের বেস কোড এবং পরবর্তী বেস কোড সহ কমিউনিটির সকল ডাটা পরিচালনা করতে পারে। সেই সাথে সকল বিষয়ের উপর বিবেচনা করে অটোমেটিক কোড সাজাতে পারে। এটি একটি শক্তিশালী কোড কমপ্লিশন সিস্টেম, যা প্রোগ্রামারদের কোড লেখার প্রক্রিয়াকে আরো অনেক বেশি সহজ করে তুলেছে।

Tabnine

Official Website @ Tabnine

৪. Replit - রিপ্লিট

Replit হলো একটি জনপ্রিয় অনলাইন ইন্টারেক্টিভ প্লাটফর্ম যা প্রোগ্রামিং এবং কোডিং সম্পর্কিত উন্নত এবং সহজ মাধ্যমগুলো প্রদান করে থাকে। Replit টুলস থেকে কোডিং করা অথবা কোডিং শেখা দুটিই খুব সহজ। কারণ এখানে অনেক সুন্দরভাবে কোডিং করে তা বিস্তারিত ভাবেই বিশ্লেষণ করা হয়। এটি ইন্টিগ্রেটেড ডেভেলপমেন্ট সিষ্টেম (IDE) অথবা ওয়েব ব্রাউজারের মধ্যমে চালানো যায়। এছাড়াও বর্তমানে Replit টুলসটি শিক্ষার্থীদের প্রোগামিং ভাষা শেখার কন্য জনপ্রিয় একটি মাধ্যম হয়ে উঠেছে। Replit দ্বারা সফটওয়্যার প্রকৌশলীদের, ওয়েব ডেভেলপারদের এবং বিভিন্ন কোডিং প্রকল্পের কাজের জন্য সফলভাবে ব্যবহার করা হয়। Replit প্রধান ফিচারগুলো হলো:

  1. মাল্টিল্যাংগুয়েজ সাপোর্ট: Replit প্রোগ্রামিং টুলসটিতে সকল ধরনের ভাষার প্রয়োজনীয় কম্পাইলার, ইন্টারপ্রেটার বা রানটাইম ডেটা হিসাবে সংরক্ষন করতে পারে। এখানে আপনি আপনার ইচ্ছামতো প্রায় সকল জনপ্রিয় ভাষাগুলো দিয়েই কোডিং করতে পারবেন। এখানে সার্পোট করে এমন কিছু জনপ্রিয় প্রোগামিং ল্যাংগুয়েজ যেমন Python, JavaScript, Java, C+, C#, Ruby, Go, PHP, ইত্যাদি। আপনি আপনার নিজের পছন্দমত ভাষায় কোড লিখতে অথবা কোডিং শিখতে পারবেন।
  2. সরাসরি কোড রান: Replit থেকে আপনি কোডিং করার পর সেই কোডিং সেখানেই লাইভ রান করে টেষ্ট করতে পারবেন। এছাড়াও আপনি যখন কোড লিখতে থাকবেন তখন সেই নিদিষ্ট কোডের আউটপুট কি হচ্ছে তা আপনি নিচেই লাইভ ডেমো হিসাবে দেখার সুযোগ পাবেন। যা দ্বারা আপনি খুব সহজেই আপনার কোড দ্বারা নিদিষ্ট ডিজাইন সম্পুর্ন করতে পারবেন।
  3. কোড সংরক্ষণ এবং শেয়ার: Replit দ্বারা কোনো কোডিং করার পর সেগুলো আপনি সেখানেই সুরক্ষিতভাবে সংরক্ষন করতে পারবেন অথবা সেভ করে রাখতে পারবেন। এছাড়াও আপনি আপনার কোডগুলো নিদিষ্ট ফাইল অথবা ফরমেটে আপনার ডিভাইসে সেভ করে রাখতে পারবেন। সেই সাথে প্রয়োজন অনুযায়ি আপনি তা একাধিক ইউজারের সাথে শেয়ার করতে পারবেন। এতে আপনি অনেক দ্রুত যেকোনো সমস্যার সমাধান করতে পারবেন।

Replit

Official Website @ Replit

৫. OpenAI Codex - ওপেন এআই কোডেক্স

OpenAI Codex হলো একটি শক্তিশালী প্রেট্রেনেড ল্যাঙ্গুয়েজ মডেল, যা মুলত প্রোগ্রামিং এবং কোড লেখাকে উদ্দেশ্য করেই তৈরি করা হয়েছে। এই শক্তিশালী কোডিং লেখার AI tools বানিয়েছে জনপ্রিয় AI ওপেন সোর্স নির্মাতা OpenAI। এই প্রজেক্টটি বানানোর অগ্রিম সংবাদ কোথাও প্রকাশ করা হয় নি৷ সরাসরি অনলাইনে উদ্ভাবন করা হয়েছে। যার কারণে আমরা এই শক্তিশালি কোডিং প্রজেক্টটিকে একটি গোপনীয় প্রজেক্ট বলতেই পারি৷

প্রোগ্রামিং ভাষায় কোড লেখার জন্য Codex পদ্ধতিতে উন্নত নিউরাল নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে, যা বিভিন্ন ধরনের কোড প্যাটার্ন, সন্তান ফাংশন, প্রোগ্রামিং লজিক এবং সাধারণ ভাষায় প্রোগ্রামিং সংজ্ঞার সাথে হুবুহু মিলে যায়। সাধারণভাবে আপনি এই OpenAI Codex দ্বারা বানানো কোনো প্রজেক্ট দেখলে বুজতেই পারবেন না এটি আসলে মানুষ নাকি রোবট দিয়ে কোডিং করে বানানো হয়েছে। OpenAI Codex জনপ্রিয় ফিচারগুলো হলো:

  1. সহজভাবে কোড লেখা: Codex একটি জনপ্রিয় কোডিং করার প্লাটফর্ম। যার দ্বারা আপনি খুব সহজেই অনেক উন্নত মানের বিশাল বড়ো প্রোগ্রামিং কাজগুলো নির্ভুলভাবেই করতে পারবেন। OpenAI Codex দ্বারা বানানো যেকোনো কোডের সঠিক স্নিপেড, ফাংশন সাইনেচার এবং প্রোগ্রামিং লজিক সুন্দর করে সাজানো গোছানো থাকে। যার কারণে যে কেউ খুব সহজেই কোডিং টি কোন কাজের জন্য করা হয়েছে তা বুঝতে পারবে।
  2. ভাষা সার্পোট: OpenAI Codex অন্যন্য জনপ্রিয় প্রোগ্রামিং টুলসগুলোর থেকেও অনেক বেশি ভাষায় কোডিং লিখতে পারে, যেমন Python, JavaScript, Java, C+, C#, Ruby, Go, PHP সহ আরো অনেক। আপনি যে ভাষা দিয়ে কোডিং লিখতে চান তা শুধুমাত্র টিউমেন্ট দিয়ে অথবা ভাষা নির্বাচনের মাধ্যমেই সম্পুর্ন করতে পারবেন।
  3. সহজেই কোড জেনারেট করা: শক্তিশালী এই Open Ai Codeing প্রজেক্ট দিয়ে আপনি পারবেন না এমন কোনো কাজ হয়তো অনলাইনে খুঁজে পাবেন না। আপনার প্রয়োজন অনুযায়ি কপনি কি চাচ্ছেন সে বিষয়ে বিস্তারিত বর্ননা দিয়েই স্বয়ংক্রিয়ভাবে কোড জেনারেট করতে পারবেন। এর জন্য আপনার কোনো ধরনের পূর্বঅভিজ্ঞতা প্রয়োজন নেই।
  4. ডকুমেন্টেশন দিয়ে সাহায্য: আপনি কোনও একটি জিনিস দেখলেন সেটি আপনার পছন্দ হলো সেটি কিভাবে বানানো হয়েছে সেই সম্পর্কে প্রশ্ন করতে পারেন। Codex আপনাকে সঠিক ডকুমেন্টেশন প্রদান করবে। সেই সাথে কাজটি যদি কোডিং কাজ হয় তাহলে সেখানে কিভাবে কোডিং করা হয়েছে তা আপনাকে বিস্তারিত ধারনা দিবে। এছাড়াও Codex নতুনদের জন্য একটি আদর্শ শিক্ষক হতে পারে। কারণ এর কোডিং দক্ষতা আর কোডিং বিশ্লেষণের দক্ষতা মনোমুগ্ধকর। যার ফলে খুব সহজেই নতুনরা কোডিং শিখতে অথবা কোডিং করতে পারবেন।

OpenAI Codex

Official Website @ OpenAI Codex

শেষ কথা

আজকের টিউনে আলোচনা করা ৫ টি AI কোডিং এসিস্ট্যান্ট যেগুলো আপনি আপনার অনলাইনের প্রতিদিনের কাজগুলোকে আরো বেশি সহজ করার জন্য ব্যবহার করতে পারেন। সময়ের সপ্লতার কারণে এই কোডিং এসিস্ট্যান্টগুলো নিয়ে বিস্তারিত তথ্য দিতে পারলাম না। তারপরেও যতেষ্ট চেষ্টা করেছি যাতে আপনাদের সামান্য উপকার হয়। কোডিং এসিস্ট্যান্টগুলোর সবগুলো ফিচার আপনার ফ্রি-তেই ব্যবহার করতে পারবেন না। কারণ মানুষ হাজার হাজার টাকা দিয়ে সার্ভিস রান করে থাকে আপনাকে তো আর সব ফ্রিতে দিবে না। তারপরেও ফ্রিতে যা পাবেন তা দিয়েই আশাকরি আপনাদের কাজগুলো আরামছে সম্পুর্ন করতে পারবেন। এগুলো নিয়ে কোথাও কোনো তথ্য দিতে ভুলে গেলে অবশ্যই আমাকে টিউমেন্ট করে জানাবেন। আমি উপযুক্ত আর গঠনমূলক পরামর্শ হলে অবশ্যই টিউনে সংযুক্ত করে দিবো।

তো বন্ধুরা এই ছিল আমাদের আজকের টিউন, সেরা ৫ টি AI কোডিং এসিস্ট্যান্ট! আশাকরি টিউন টি আপনাদের একটু হলেও হেল্পফুল হবে। আজকের মতো এখানেই বিদায় নিচ্ছি, দেখা হবে পরবর্তী টিউনে নতুন কোন বিষয় নিয়ে। ততক্ষণ অবধি সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন এবং টেকটিউনস এর সাথেই থাকবেন।

Level 4

আমি স্বপন মিয়া। Sonic টিউনার, টেকটিউনস, গাইবান্ধা, রংপুর। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 1 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 67 টি টিউন ও 28 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 3 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

টেকনোলজি বিষয়ে জানতে শিখতে ও যেটুকু পারি তা অন্যর মাঝে তুলে ধরতে অনেক ভালো লাগে। এই ভালো লাগা থেকেই আমি নিয়মিত রাইটিং করি। আশা করি নতুন অনেক কিছুই জানতে ও শিখতে পারবেন।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস