আপনার দৈনন্দিন যে ৪ টি কাজে AI Art Generator ব্যবহার করা যায়, তা আপনি কখনো ভেবেছেন কী?

Level 15
কন্টেন্ট রাইটার, টেল টেক আইটি, গাইবান্ধা

সম্প্রতিক বছরগুলোতে এআই এর একটি বিপ্লব ঘটেছে। যেখানে সাম্প্রতিক সময়ে ChatGPT, Google Gemini এবং আরো কিছু শক্তিশালী এআই চ্যাটবট ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। ক্রিয়েটিভ কিছু তৈরি করার জন্য কিংবা বিভিন্ন কাজের আইডিয়া নেওয়ার জন্য অনেকেই এসব এআই টুলগুলো ব্যবহার করছে, যা মানুষের বিভিন্ন Prompts এর উপর ভিত্তি করে উত্তর প্রদান করে।

এআই চ্যাটবট এর পাশাপাশি সাম্প্রতিক বছরগুলোতে এআই আর্ট জেনারেটর নিয়ে ও ব্যাপক মাতামাতি হচ্ছে। যেখানে, Stable Diffusion ব্যবহার করে যেকোন ব্যক্তি Text to Image তৈরি করে নিতে পারেন। তাই, একজন ব্যক্তির কল্পনার বিষয়বস্তুকে বাস্তবে রূপ দেওয়ার জন্য অবশ্যই AI Art Generator কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে। আর আপনিও হয়তোবা ইতিমধ্যেই এই ধরনের এআই আর্ট জেনারেটর সার্ভিস ব্যবহার করে থাকতে পারেন, যা দিয়ে ক্রিয়েটিভ অনেক কিছু তৈরি করে নেওয়া যায়।

এখন, আপনি হয়তোবা কৌতুহল বসত কিংবা এআই আর্ট জেনারেটর এর কাজ দেখার জন্য দুই-একবার এ ধরনের সার্ভিস ব্যবহার করে থাকতে পারেন। কিন্তু, অনেক পেশাদার লোকেরা তাদের দৈনন্দিন কাজ গুলোকে সহজ করার জন্য বা কোন একটি বিষয় আরো ভালোভাবে বোঝার জন্য AI Art Generator এর সাহায্য নিতে পারেন। তাহলে চলুন এবার জেনে নেওয়া যাক, আপনি দৈনন্দিন কোন কোন কাজগুলো করার ক্ষেত্রে এসব এআই আর্ট জেনারেটর গুলো ব্যবহার করে সর্বোচ্চ সুবিধা নিতে পারেন।

এআই আর্ট জেনারেটর কী?

এআই আর্ট জেনারেটর কী?

AI Art Generator নিয়ে কথা বলার আগে আপনার অবশ্যই এটি নিয়ে পরিষ্কার ধারণা থাকা উচিত‌। এআই আর্ট জেনারেটর হল এমন একটি সিস্টেম অ্যালগরিদম, যা আপনার দেওয়া ইনফরমেশন এর উপর ভিত্তি করে একটি ইমেজ তৈরি করে দিতে পারে। এটি মানুষের টেক্সট ভিত্তিক বর্ণনা থেকে মানুষের কল্পনার মত করে একটি চিত্রকর্ম বা ছবি তৈরি করে দেয়।

ইমেজ তৈরি করার ক্ষেত্রে এসব এআই গুলো টেক্সট ভিত্তিক Prompt ব্যবহার করে। তাই, একজন ব্যক্তি এই মুহূর্তে যা কল্পনা করছেন, সেই কল্পনার রূপকে বাস্তবে একটি ছবিতে রূপ দেওয়ার জন্য AI Art Generator ব্যবহার করতে পারেন।

এমন অনেক কল্পনার বিষয়বস্তু রয়েছে, যা সকল ব্যক্তিরা খুব দ্রুত ভিজুয়াল রূপ দেওয়ার জন্য গ্রাফিক্সের ডিজাইন করতে পারেন না। আর এক্ষেত্রে, সেই কল্পনার বিষয়বস্তুকে যদি Text Prompt আকারে এসব এআই আর্ট জেনারেটর এ করা হয়, তাহলে সেটি কিছু সময়ের মধ্যেই একটি ক্রিয়েটিভ ডিজাইন করে দিতে পারে।

১. উপন্যাস অথবা শিশুদের বই চিত্রায়িত করা

উপন্যাস অথবা শিশুদের বই চিত্রায়িত করা

যখন শিশুদের বই লেখা কিংবা তাদের পড়ানোর কথা আসে, তখন পড়াশোনায় তাদেরকে মনোযোগ আকর্ষণের জন্য অবশ্যই বিভিন্ন চিত্রায়ন দ্বারা বুঝাতে হয়। আর এজন্যই ছোট ছোট বাচ্চাদের বইয়ের বিভিন্ন অক্ষর, বা ওয়ার্ড শেখানোর জন্য বিভিন্ন ছবি ব্যবহার করা হয়।

এছাড়াও, অভিভাবকেরা বাড়িতে তাদের ছোট বাচ্চাদেরকে বিভিন্ন জিনিস শেখানোর জন্য বিভিন্ন ছবি দেখিয়ে থাকেন। এখন, একজন লেখক কিংবা অভিভাবকেরা তাদের বাড়িতে বাচ্চাদের খুব সহজে বিভিন্ন বিষয় শেখানোর জন্য এআই আর্ট জেনারেটর টুলগুলোর সাহায্য নিতে পারেন। এক্ষেত্রে তারা এসব এআই Art Generator ব্যবহার করে কোন একটি কাল্পনিক বিষয়বস্ত কিংবা অন্য কোন বিষয়ে লেসন দিতে পারেন।

২. শিক্ষার উপকরণ উন্নত করতে AI Art Generator ব্যবহার করুন

শিক্ষার উপকরণ উন্নত করতে AI Art Generator ব্যবহার করুন

স্বাভাবিকভাবেই শিক্ষকেরা তাদের শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন বিষয়ে শেখানোর জন্য আর্ট করতে পারেন না। আর এক্ষেত্রে, বর্তমান বিশ্বে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন বিষয়ে শেখানোর জন্য এআই আর্ট গুলো বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারে। কারণ হলো, এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন কাল্পনিক এবং অজানা বিষয়বস্তু সম্পর্কে একটি ভিজুয়াল বর্ণনা দেওয়ার ক্ষেত্রে এটি দারুণ ভাবে কাজ করে। ‌

AI Art Generator গুলো ব্যবহার করে আপনি আপনার শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন বিষয়ে তাৎক্ষণিক বর্ণনা দেওয়ার জন্য ইমেজ তৈরি করতে পারবেন। এর ফলে, শিক্ষার্থীদের সেই বিষয়ে সম্পর্কে বুঝতে সহজ হবে এবং তা মনে থাকবে।

যেমন শিক্ষার্থীদের পড়ানোর সময় এমন কোন বিষয় সামনে আসতে পারে, যেই বিষয়ে কোনো ছবি এই মুহূর্তে ইন্টারনেটে নেই। উদাহরণস্বরূপ, শিক্ষার্থীদের যদি এমন কোন বিষয়ে জানাতে হয় যে, “বিজ্ঞানীদের ধারণা করা অতীত যুগের ডাইনোসর যদি বর্তমান সময়ে আমাদের উন্নত বিশ্বের শহরে থাকতো, তাহলে সেগুলো দেখতে কেমন হতো?”। তাহলে, এ ধরনের ছবি এই মূহূর্তে হয়তোবা ইন্টারনেটে পাওয়া সম্ভব নয়। ‌

এক্ষেত্রে, যদি AI Art Generator গুলোতে সঠিক Prompt ব্যবহার করা যায়, তাহলে এটি কল্পনা করা সেসব ছবিগুলোর বাস্তবিক রূপ দেখাতে পারে। আর এর ফলে, সবাইকে বুঝানো অনেক সহজ হবে।

৩. ভিডিও গেম বা অভিনয়ের জন্য আইডিয়া নিতে এআই আর্ট জেনারেটর ব্যবহার করা যায়

ভিডিও গেম বা অভিনয়ের জন্য আইডিয়া নিতে এআই আর্ট জেনারেটর ব্যবহার করা যায়

একটি ভিডিও গেম তৈরি করার সময় সেই গেমের ভেতরে থাকা বিভিন্ন কনটেন্ট এর বিষয়ে আইডিয়া নেওয়ার জন্য এআই আর্ট জেনারেটর অনেক বেশি সাহায্য করতে পারে। এটি একটি ভিডিও গেম তৈরি করার গতি এবং দক্ষতাকে অনেক বেশি বাড়িয়ে দিতে পারে। ‌

AI Art Generator ব্যবহার করার মাধ্যমে কোন একটি গেমের ব্যাকগ্রাউন্ড এবং বিভিন্ন স্থাপনা গুলোর ডিজাইন আইডিয়া চোখের পলকে তৈরি করে নেওয়া যেতে পারে।

এছাড়াও, একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার তার বিভিন্ন প্রজেক্ট এর কাজের জন্য ইউনিক ডিজাইন আইডিয়া খুঁজে পেতে এআই আর্ট জেনারেটর এর সাহায্য নিতে পারেন। যা তাকে দ্রুত সময়ে একটি ক্রিয়েটিভ গ্রাফিক্স তৈরি করতে সাহায্য করবে।

৪. ইউনিক মার্কেটিং কন্টেন্ট তৈরি এবং নিজের জন্য এআই আর্ট জেনারেটর ব্যবহার করুন

ইউনিক মার্কেটিং কন্টেন্ট তৈরি এবং নিজের জন্য এআই আর্ট জেনারেটর ব্যবহার করুন

আপনার যদি কোন একটি ব্যবসা থাকে, তাহলে আপনার সেই ডিজিটাল ব্যবসার মার্কেটিংয়ের জন্য এআই আর্ট গুলো একটি ইউনিক আইডিয়া হতে পারে। এক্ষেত্রে, আপনি আপনার ব্যবসার জন্য ইউনিক এবং নজরকড়া সব ডিজাইন করতে পারবেন। আর এর ফলে, অনেক কাস্টমারদের কাছে আপনার খুব সহজেই পৌঁছানো সহজ হতে পারে।

এছাড়াও, আপনি একজন ডিজিটাল ক্রিয়েটর হয়ে থাকলে, সোশ্যাল মিডিয়ায় আপনি নিয়মিত আপডেট থাকার জন্য ও বিভিন্ন এআই জেনারেটেড ইমেজ টিউন করতে পারেন। আর আপনি আপনার বন্ধু-বান্ধব, সহকর্মী এবং অন্যান্যদের কাছে নিজেকে ইউনিক করে তুলতে AI Art ইমেজগুলো শেয়ার করতে পারেন।

শেষ কথা

এআই চ্যাটবট এর মতো এআই আর্ট জেনারেটর ও আমাদের দৈনন্দিন কাজগুলোকে আরো অনেক সহজ করে দিতে পারে। এখন আপনি যদি আপনার কল্পনার বিষয়বস্তুকে একটি ভিজুয়াল রূপ দিতে চান, তাহলে আপনার জন্য সেরা এবং উত্তম সমাধান হলো একটি AI Art Generator ব্যবহার করা। এটি আপনাকে Text Prompt ব্যবহার করে যেকোনো ধরনের ইমেজ তৈরি করতে দেয়।

তাই, একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনার থেকে শুরু করে, আপনিও প্রতিদিন ছোট বাচ্চাদের বিভিন্ন বিষয়ে শেখানোর জন্য এ ধরনের এআই আর্ট জেনারেটর সার্ভিসগুলো ব্যবহার করতে পারেন। যা আপনাকে অথবা অন্য কোন ব্যক্তিকে নির্দিষ্ট কিছু বিষয়ে দ্রুত উপস্থাপনা করতে দেয় এবং আপনার কাজের গতি বাড়ায়। অতএব, এখন থেকে আপনিও আপনার দৈনন্দিন এসব কাজের জন্য AI Art Generator গুলো ব্যবহার করুন। ধন্যবাদ, আসসালামু আলাইকুম।

Level 15

আমি মো আতিকুর ইসলাম। কন্টেন্ট রাইটার, টেল টেক আইটি, গাইবান্ধা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 363 টি টিউন ও 93 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 61 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 3 টিউনারকে ফলো করি।

“আল্লাহর ভয়ে তুমি যা কিছু ছেড়ে দিবে, আল্লাহ্ তোমাকে তার চেয়ে উত্তম কিছু অবশ্যই দান করবেন।” —হযরত মোহাম্মদ (সঃ)


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস