যে ৬ টি বিষয়ে কখনোই AI Chat Bot কে প্রশ্ন করা উচিত নয়, বিপদে পড়ার আগে জেনে নিন!

Level 15
কন্টেন্ট রাইটার, টেল টেক আইটি, গাইবান্ধা

বর্তমানে এআই চ্যাটবট গুলো অনেক বেশি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে, চ্যাটজিপিটি এর মত শক্তিশালী Chat Bot সামনে আসার পর থেকে, মানুষজন তাদের নানা বিষয়ের সমস্যার সমাধানের জন্য এআই চ্যাটবট এর উপর নির্ভরশীল হচ্ছে। এর অন্যতম বড় কারণ হলো, এসব এআই চ্যাটবট গুলো মানুষের মতো করেই অনেক বেশি নির্ভরযোগ্য তথ্য প্রদান করতে পারে।

যদিও, চ্যাটজিপিটি ছাড়া ও এরকম আরো অনেক Chat Bot রয়েছে, যেগুলো ও মানুষের প্রতিটি প্রশ্নের উত্তর আত্মবিশ্বাসের সাথে দিয়ে থাকে। কিন্তু, এসব এআই চ্যাটবট গুলো আপনাকে যেসব তথ্য দেয়, সেগুলো কিন্তু সবসময় সঠিক হবে না এবং বিশেষ কিছু কাজের ক্ষেত্রে আপনাকে সবসময় Chat Bot গুলো পরিহার করা উচিত। আর তা না হলে, আপনি পরবর্তীতে অনেক বড় বিপদে ও পড়তে পারেন।

এআই চ্যাটবট গুলো অনেক প্রশ্নের নির্ভরযোগ্য উত্তর দিতে পারলেও, এগুলোর কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে। আর আপনাকে এসব চ্যাটবট এর সীমাবদ্ধতা গুলোর ব্যাপারে জানা গুরুত্বপূর্ণ এবং সেসব বিষয় মাথায় রেখেই এআই চ্যাটবট গুলোতে প্রশ্ন করা উচিত। তাহলে চলুন এবার দেখে নেওয়া যাক, চ্যাটজিপিটি এর মত এআই চ্যাটবট গুলোতে আপনার কোন ধরনের প্রশ্ন কখনোই করা উচিত নয়।

১. চিকিৎসা সংক্রান্ত প্রশ্ন কিংবা রোগ নির্ণয়ের জন্য এআই চ্যাটবটে প্রশ্ন করবেন না

চিকিৎসা সংক্রান্ত প্রশ্ন কিংবা রোগ নির্ণয়ের জন্য এআই চ্যাটবটে প্রশ্ন করবেন না

যদিও এআই চ্যাটবট অনেক কিছুতে নির্ভরযোগ্য এবং সঠিক উত্তর প্রদান করতে সক্ষম, কিন্তু এটি সঠিক চিকিৎসা নির্ণয় প্রদান করতে সক্ষম নয়। যদিও, কখনো কখনো চ্যাটবট গুলো আপনার ইনপুট করা শারীরিক লক্ষণ গুলোর ব্যাপারে জেনে একটি প্রাসঙ্গিক রোগ নির্ণয় করে দিতে পারে, কিন্তু চ্যাটবট গুলোতে প্রশ্ন করা আর গুগলে শারীরিক লক্ষণ বর্ণনা করে রোগ খোঁজা একই কথা।

উভয় ক্ষেত্রেই আপনি ভুল ইনফরমেশন পাবেন। কেননা, অনেক রোগের লক্ষণ হিসেবে একই ধরনের শারীরিক লক্ষণ দেখা যায়। আর একজন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার আপনার লক্ষণ গুলো দেখার পাশাপাশি অতীত আরো হিস্টোরি শোনার পর আপনাকে ব্যবস্থাপত্র প্রদান করবে।

আর আপনি কখনোই ইন্টারনেটে লক্ষণ দেখে রোগ নির্ণয় করার জন্য সার্চ করতে যাবেন না। কেননা, সেখানে অনেক লোকই বিভিন্ন রোগীর লক্ষণ গুলো দেখেন এবং এরপর গুরুতর উদ্বেগের সম্মুখীন হন। এআই চ্যাটবট গুলো ও আপনার ক্ষেত্রে এরকম উত্তর প্রদান করতে পারে, যা আপনার সমস্যাকে আরও অনেক বেশি খারাপ করে তুলতে পারে। তাই, আপনার নিজের সাথেই চিকিৎসা সংক্রান্ত পরামর্শের জন্য অবশ্যই চ্যাটজিপিটি কিংবা এরকম অন্য কোন চ্যাটবটের সাথে পরামর্শ করবেন না।

২. কোন প্রোডাক্ট এর রিভিউ জানা

কোন প্রোডাক্ট এর রিভিউ জানা

এআই চ্যাটবট চ্যাটবট গুলো সহজেই আপনার একটি পণ্যের মূল্য এবং সেই পণ্যটি সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য প্রদান করতে পারে। কিন্তু, এটি এমনভাবে সেসব পণ্যগুলো রিভিউ করে, যার ফলে আপনি পণ্যটির প্রতি আকৃষ্ট হতে পারেন। আর যে কারণে, এটি আপনাকে কখনোই একটি সঠিক রিভিউ দিতে পারেনা।

এছাড়াও, রিভিউ এর সংজ্ঞা অনুসারে, একটি পণ্যের রিভিউ করার ক্ষেত্রে অবশ্যই পর্যালোকের ব্যক্তিগত মতামত, সেটি ব্যবহার করার অভিজ্ঞতা এবং তারপর তার দৃষ্টিকোণ থেকে মতামত প্রদান করতে হয়।

কিন্তু, এআই এর কোন জিনিস দেখা, ঘ্রাণ নেওয়া, স্পর্শ করার, স্বাদ নেওয়া বা শোনার ক্ষমতা নেই। তাই, এআই চ্যাটবট একটি পূর্ণ সম্পর্কে যে ধরনের দাবি করবে, তা অনেক ক্ষেত্রেই অযৌক্তিক এবং তাকে যা শেখানো হয়েছে সেটির বহিঃপ্রকাশ।

উদাহরণস্বরূপ, যদি এআই চ্যাটবট কে কোন একটি ফোন সম্পর্কে রিভিউ করার জন্য বলা হয়, তাহলে বাস্তবিকভাবে এআই চ্যাটবট টির সেই ফোনটির হাতের স্পর্শের অনুভূতি, স্মার্টফোনটির স্পিকারের কোয়ালিটি, ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরের Reliability, হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার এর পারফরম্যান্স অনুভব করতে পারে না। এমনকি, এটি সেই ক্যামেরা এটি সেই মোবাইলের ক্যামেরা কোয়ালিটি সম্পর্কে ও সঠিক বর্ণনা করতে পারে না, যেমনটি একজন মানুষ থাকতে পারবে।

এআই চ্যাটবট দিয়ে কোন পণ্যের রিভিউ না করে, বরং বিদ্যমান কোন রিভিউকে সারসংক্ষেপ করার জন্য বলতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনি কোন একটি রিভিউ আর্টিকেল সম্পূর্ণভাবে কপি করে এআই চ্যাটবট কে সেটি সংক্ষিপ্ত করার জন্য বলতে পারেন। এছাড়াও আপনি যদি আসলেই এআই চ্যাটবট ব্যবহার করে কোন প্রোডাক্ট এর রিভিউ জানতে চান, তাহলে Bing ব্যবহার করুন, যেটিতে ChatGPT Built-in রয়েছে।

৩. আইনি পরামর্শ পেতে

এআই চ্যাটবট থেকে আইনি পরামর্শ

যদিও ইতিমধ্যে কিছু প্রতিষ্ঠান আইনি কাজের জন্য বিশেষ AI Legal Assistants তৈরি করেছে, যা আমাদের আইনি ব্যবস্থা পরিবর্তন আনার চেষ্টা করছে। কিন্তু, এআই কিন্তু সকল দেশের আইনি পরামর্শ দেওয়ার ক্ষেত্রে নির্ভরযোগ্য সমাধান নয়।

এআই চ্যাটবট এবং একজন আইনজীবীর মধ্যে সুস্পষ্ট পার্থক্য হল, এআই চ্যাটবট এর সাধারণ জ্ঞানের অভাব রয়েছে। সাধারণভাবে একজন মানুষ বা একজন আইনজীবী নতুন তথ্য প্রমাণ অনুসন্ধান করতে পারে এবং চতুরতার সাথে ত্রুটিগুলো সামনে নিয়ে আসে। আর, একজন আইনজীবী তার কাছে থাকা ডেটার বাহিরে ও চিন্তা করতে পারে, যা এআই চ্যাটবট গুলো করতে পারেনা।

একটি এআই Chat Bot শুধুমাত্র আপনার দেওয়ার ডেটা ব্যবহার করতে পারে এবং এটিকে পূর্ব নির্ধারিত যে প্রক্রিয়ায় নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে, এটি সেরকম প্রতিক্রিয়া দিতে পারে। এছাড়াও, এআই পরিস্থিতি বিবেচনায় আবেগ দিয়ে কোন একটি বিচারের ফলাফল কী হতে পারে এবং আপনি সেটির জন্য কী সমাধান পাবেন, তা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই নির্ধারণ করতে পারবে না।

তাই, আইনি পরামর্শের জন্য এআই চ্যাটবট কে প্রশ্ন করা বাদে Google এ প্রশ্ন করতে পারেন, যেখানে আপনি হয়তোবা সেই বিষয়টি নিয়ে কোন আইনজীবীর বক্তব্য খুঁজে পাবেন; যায় এআই চ্যাটবট এ পাওয়া সম্ভব নয়।

৪. সংবাদ অনুসন্ধান করতে

এআই চ্যাটবট দিয়ে সংবাদ অনুসন্ধান

এআই চ্যাটবট ব্যবহার করে কোন সংবাদ অনুসন্ধান করার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় এবং প্রধান সমস্যাগুলো হল, এক্ষেত্রে জবাবদিহিতা এবং প্রাসঙ্গিকতা থাকে না। উদাহরণস্বরূপ, আপনি যখন একটি সংবাদ পড়েন, তখন আপনি সেই সংবাদের পেছনে প্রকাশনা এবং সাংবাদিকের সম্পর্কে জানেন। এর অর্থ হল, আপনাকে দেওয়া সেই তথ্যের জন্য কেউ একজন দায়বদ্ধ রয়েছে এবং আপনি সেই সংবাদের ক্ষেত্রে একটি বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জন করতে পারছেন।

কিন্তু অন্যদিকে, যদি একটি এআই চ্যাটবট এর কথা বিবেচনা করা যায়, তাহলে এখানে সেই সংবাদের গল্প লেখার পেছনে কোন ব্যক্তি নেই। এর পরিবর্তে, এআই চ্যাটবট টি ইতিমধ্যেই ওয়েবে Available তথ্যগুলো থেকে আপনাকে একটি সংক্ষিপ্ত তথ্য প্রদান করবে। এর মানে হলো, সেই তথ্যের কোন প্রাথমিক উৎস নেই এবং আপনি জানেন না যে, সেই তথ্য কোন সোর্স থেকে এসেছে। অতএব, এআই চ্যাটবট থেকে পাওয়া তথ্য ততটা নির্ভরযোগ্য ও নয়।

দ্বিতীয়ত হল, সংবাদের প্রসঙ্গ। এআই চ্যাটবট থেকে আপনি যে খবরটি পড়ছেন, সেটি যেহেতু বিভিন্ন উৎস থেকে প্রাপ্ত তথ্যের একটি সারাংশ, তাই এক্ষেত্রে সেই গল্পের কোন প্রাসঙ্গিকতা থাকে না। আর চ্যাটবট টি ও জানে না যে, তার দাবি করা তথ্য সত্য কিনা। বরং, এটি শুধুমাত্র এমন ভাবে তথ্যগুলো উপস্থাপন করে, যেখানে মনে হয় তার উপস্থাপন করা তথ্যগুলো সত্য।

তাই, আপনাকে যদি কোন আপডেটেড তথ্য খুঁজতে হয় কিংবা কোন সংবাদ জানতে হয়, তাহলে কোন ভাবেই এআই চ্যাটবট ব্যবহার করা উচিত নয়। এটি আপনাকে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ভুল তথ্য দিবে, যা আপনাকে সেই ঘটনা সম্পর্কে সুস্পষ্ট বর্ণনা দিতে পারে না। যা আপনার জন্য অনেক ক্ষেত্রে বিপদজনক হতে পারে।

৫. রাজনৈতিক মতামত নেওয়া

এআই চ্যাটবট এর কাছ থেকে রাজনৈতিক মতামত নেওয়া

এআই চ্যাটবট এর কোন ব্যক্তিগত পছন্দ নেই। যে কারণে, অনেক ক্ষেত্রেই এআই চ্যাটবট কে রাজনৈতিক মতামত এবং পরামর্শ চেয়ে প্রশ্ন করা হলে, এটি সেই উত্তর দিতে অপারগতা জানায়। এছাড়াও আপনি কোন ব্যক্তি সম্পর্কে জানতে চেয়ে কিংবা আপনিও কোন রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার উদ্দেশ্যে কোন বক্তব্য লিখে নিতে চাইলে, এটি আপনাকে সেই তথ্য প্রদান করে না।

রাজনৈতিক বক্তব্য গুলো বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই প্রত্যেকটি ব্যক্তির আদর্শ এবং দর্শনের উপর ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে। আর তাই, রাজনৈতিক কোন প্রশ্ন এআই চ্যাটবট যথাযথভাবে দিতে পারেনা। এটি শুধুমাত্র সেই ব্যক্তি সম্পর্কে কিছু ভালো দিক অথবা খারাপ দিকগুলোর সংমিশ্রণে একটি সারসংক্ষেপ দিয়ে থাকে।

তাই, এআই চ্যাটবট ব্যবহার করে কখনোই আপনার রাজনৈতিক প্রশ্ন করা কিংবা মতামত নেওয়া উচিত নয়।

৬. কমার্শিয়াল কনটেন্ট লেখা

এআই চ্যাটবট দিয়ে কমার্শিয়াল কনটেন্ট লেখা

এআই চ্যাটবট গুলোর সবচেয়ে বড় সুবিধার পয়েন্ট হলো, এগুলো তাৎক্ষণিক-ভাবে অনেক বড় কন্টেন্ট তৈরি করতে পারে, যা একজন মানুষ দ্বারা করা সম্ভব হতো না। একজন মানুষের যা লিখতে কয়েক ঘণ্টা সময় লাগতে পারে, সেখানে চ্যাটবট গুলো সেটি কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই করে দেয়।

যদিও এআই চ্যাটবট গুলো আপনাকে বিভিন্ন বিষয়ের উপর একটি তথ্যপূর্ণ কনটেন্ট লিখে দিতে সক্ষম, কিন্তু এটি বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এই হিউম্যান রাইটারদের কে রিপ্লেস করতে পারে না। এখনো পর্যন্ত এআই চ্যাটবট গুলো বিশেষ করে ChatGPT প্রায়ই ভুল এবং Repetitive Content সরবরাহ করে, যা কখনোই বাণিজ্যিক কনটেন্ট হিসেবে ব্যবহার করা যায় না।

যদিও বর্তমানে গুগল এআই দ্বারা তৈরি করা কন্টেন্ট Allow করে, কিন্তু নির্ভরযোগ্যতার দিক থেকে এআই কনটেন্ট অনেক বেশি পিছিয়ে থাকে। এর কারণ হলো, কোন একটি বিষয়কে এটি মানুষের মত করে উপস্থাপন করতে পারে না। আর তাই বলা যায় যে, ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য চ্যাটবট গুলোর উপর পুরোপুরি নির্ভর করে গেলেও, সামগ্রিকভাবে বিভিন্ন আর্টিকেল, নিউজ স্টোরি, সোশ্যাল মিডিয়া ক্যাপশন এবং আরো অনেক কিছু লেখার জন্য এটি একটি Bad আইডিয়া।

তার চাইতে বরং আপনি কন্টেন্ট লেখার সময় এআই চ্যাটবট এর কাছ থেকে সেই বিষয়ে ধারণা নিন এবং তারপর কনটেন্ট গুলো দেখে নিজের মত করে আরো বিস্তারিত দেখুন।

শেষ কথা

এআই চ্যাটবট গুলো ভবিষ্যতে কীভাবে প্রযুক্তি বিশ্ব এবং আধুনিক সমাজকে ব্যাপকভাবে প্রভাবিত করবে, তা সঠিকভাবে বলা বেশ কঠিন। অন্যান্য প্রযুক্তির মতোই এটিও বৈপ্লবিক। আর চ্যাটবট গুলো এরকম অনেক সমস্যা তৈরি করে, যা আমাদের সমাধান করা দরকার।

তবে মজার বিষয় হলো, মাইক্রোসফট এখন ChatGPT এর মতো Chat Bot কে সরাসরি তাদের সার্চ ইঞ্জিন Bing এ একীভূত করেছে। আর খুব শীঘ্রই হয়তোবা Google তাদের Google Bard করে গুগল সার্চ ইঞ্জিন এর সাথে একীভূত করবে। এআই চ্যাটবট গুলো বরাবরই আমাদের দৈনন্দিন কাজগুলোকে আগের তুলনায় অনেক বেশি সহজ করেছে এবং এতে আমাদের প্রোডাক্টিভিটি ও অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে, এসব চ্যাটবট গুলো ব্যবহার করার সময় আমাদেরকে অবশ্যই সতর্ক থাকতে হয়, যেন আমরা এসব প্লাটফর্মে এমন কোন প্রশ্ন না করি, যা আমাদের জন্য বিপদজনক হতে পারে।

আর আজকের এই টিউনে আমি এরকমই ৬ টি বিষয় নিয়ে আলোচনা করলাম, যেসব বিষয়ে এআই চ্যাটবট গুলোতে আপনার কখনোই প্রশ্ন করা উচিত নয়।

Level 15

আমি মো আতিকুর ইসলাম। কন্টেন্ট রাইটার, টেল টেক আইটি, গাইবান্ধা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 3 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 364 টি টিউন ও 93 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 61 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 3 টিউনারকে ফলো করি।

“আল্লাহর ভয়ে তুমি যা কিছু ছেড়ে দিবে, আল্লাহ্ তোমাকে তার চেয়ে উত্তম কিছু অবশ্যই দান করবেন।” —হযরত মোহাম্মদ (সঃ)


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস