আর কোন দিন আপনার কম্পিউটারে আসবে না ভাইরাস! কিভাবে? জেনে নিন আজকের টিউন থেকে

Level 1
৯ম শ্রেনী, আলহাজ্ব ওয়াজেদুল ইসলাম খান উচ্চ বিদ্যালয়, কিশোরগঞ্জ সদর

প্রিয় টেকটিউনস কমিউনিটি, কেমন আছেন সবাই? আশাকরি ভালো আছেন। আমরা সবাই কমবেশী ভাইরাস নামটার সাথে পরিচিত। অনেক আবার ভাইরাস সম্পর্কে অনেক কিছু জানি। হয়তো সেটা মানব দেহের ভাইরাস। করোনা ভাইরাস সম্পর্কে আমরা সবাই জানি, এটা হলো মানবদেহের ভাইরাস। তবে আমি আজকে আপনাদের বলবো আইসিটি যন্ত্রের ভাইরাস সম্পর্কে।

মানবদেহের মতো ভাইরাস আইসিটি যন্ত্রেরও সমস্যা সৃষ্টি করে থাকে। তাহলে চলুন জেনে নিই আইসিটি ভাইরাস কি? ভাইরাসের কাজ কি? এই আইসিটি ভাইরাসের প্রতিকার কি? আইসিটি ভাইরাস সম্পর্কে বিস্তারিত বলার চেষ্টা করবো আপনাদের।

ভাইরাসঃ

ভাইরাস হলো এমন একটি সফটওয়্যার যা তথ্য উপাত্তকে আক্রমন করে এবং যারা নিজের সংখ্যা বৃদ্ধি করার ক্ষমতা রাখে। ভাইরাস এর ইংরেজী বানান হলো VIRUS। VIRUS এর পূর্ণরূপ হলো Vital Information Resources Under Siege যার অর্থ হয় গুরুত্বপূর্ণ তথ্যসমূহ দখলে নেওয়া বা ক্ষতি সাধন করা। নিউ হেভেন ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ফ্রেড কোহেন ১৯৮৩ সালে ভাইরাস (VIRUS) নামকরণ করেছেন।

ভাইরাস মূলত কোন কম্পিউটার বা আইসিটি যন্ত্রে প্রবেশ করার পর ভাইরাসে সংখ্যা বৃদ্ধি হতে থাকে এবং বিভিন্ন তথ্য উপাত্তকে আক্রমন করে, এক পর্যায় সম্পূর্ণ কম্পিউটার বা আইসিটি যন্ত্রকে আক্রমন করে অচল করে দেয়। অতি পরিচিত কিছু ভাইরাস হলো স্টোন, ভিয়েনা, সিআইএইচ ইত্যাদি।

কম্পিউটার বা আইসিটি যন্ত্র ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার লক্ষসমূহঃ

  • নতুন প্রোগ্রাম ইনস্টলের ক্ষেত্রে বেশী সময় লাগছে;
  • চলমান কাজের ফাইলগুলো বেশী সময় লাগছে;
  • মেমরী কম দেখাচ্ছে ফলে গতি কমে গেছে;
  • কাজ চলাকালীন কম্পিউটার বা আইসিটি যন্ত্র অফ হয়ে যাচ্চে বা রিস্টার্ট হচ্ছে;
  • প্রোগ্রাম বা ফাইল অপেন (Open) হতে সময় বেশী লাগছে;
  • ফোল্ডার বিদ্যামান ফাইলগুলোর নাম পরিবর্তন হয়ে গেছে ইত্যাদি।

ভাইরাস কম্পিউটার বা আইসিটি যন্ত্রের যা যা ক্ষতি করতে পারেঃ

  • ডেটা বিকৃতি বা Corrupt করে দিতে পারে;
  • কম্পিউটারে সংরক্ষিত ফাইল মুছে দিতে পারে;
  • কম্পিউটারের মনিটরের ডিসপ্লেকে ‍বিকৃত করে দিতে পারে;
  • কম্পিউটার বা আইসিটি যন্ত্রের সিস্টেমের কাজকে ধীরগতি সম্পন্ন করে দিতে পারে;
  • কম্পিউটারে কাজ চলাকালীন আচমকা অবাঞ্চিত বার্তা প্রদর্শন করে দিতে পারে ইত্যাদি।

এন্টিভাইরাস

এন্টিভাইরাস হলো ভাইরাস ধ্বংস বা ভাইরাসের আক্রান্ত হওয়া থেকে মুক্তি পাওয়ার অন্য একটি সফটওয়্যার। এন্টিভাইরাস মূলত ভাইরাসের প্রতিষেধক। কম্পিউটার বা আইসিটি যন্ত্র আক্রান্ত হলে এন্টিভাইরাস এটিকে নির্মূল করে। ভাইরাস সংক্রমন থেকে রক্ষা পেতে এন্টিভাইরাস ইউটিলিটি ব্যবহার করা হয়। এই ইউটিলিটিগুলো প্রথমে আক্রান্ত কম্পিউটারে ভাইরাসের চিহ্নের সাথে পরিচিত ভাইরাস চিহ্নগুলো মিলকরণ করে। তারপর এন্টিভাইরাস তার পূর্বজ্ঞান ব্যবহার করে সংক্রমিত অবস্থান থেকে আসল প্রোগ্রাম ঠিক করে। নতুন ভাইরাস আবিষ্কৃত হওয়ার সাথে সাথে এন্টিভাইরাস আপডেড করলে এর শক্তি ও কার্যক্ষমতা প্রতিনিয়ত উন্নত হয়।

ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য আজকাল বিনামূল্যে ইন্টারনেট থেকে এন্টিভাইরাস পাওয়া যায়। এবং এই এন্টিভাইরাস ডাউনলোড ও ইনস্টল করে আইসিটি যন্ত্রের নিরাপত্তা অধিকাংশই নিশ্চিত হওয়া যায়। উল্লেখযোগ্য কিছু ফ্রি এন্টিভাইরাসের নাম ও অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের লিংক দেওয়া হলোঃ

  • এভিজি এন্টিভাইরাস সফটওয়্যার (অফিসিয়াল ওয়েবসাইট @ এভিজি)
  • এভাস্ট এন্টিভাইরাস সফটওয়্যার (অফিসিয়াল ওয়েবসাইট @ এভাস্ট)
  • এভিরা এন্টিভাইরাস সফটওয়্যার (অফিসিয়াল ওয়েবসাইট @ এভিরা)

শেষ কথাঃ

আপনারা এতক্ষনে জেনে গেছেন যে ভাইরাস কি? ও তার প্রতিকার কি? আশাকরি এখন আপনারা নিজেদের কম্পিউটার বা আইসিটি যন্ত্র নিরাপত রাখতে পারবেন। এই তিনটা এন্টিভাইরাস দিয়ে প্রায় অধিকাংশ ভাইরাস ধ্বংষ করা যায়।

 

Level 1

আমি মো. সানজিদ। ৯ম শ্রেনী, আলহাজ্ব ওয়াজেদুল ইসলাম খান উচ্চ বিদ্যালয়, কিশোরগঞ্জ সদর। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 2 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 8 টি টিউন ও 12 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 3 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস