অ্যান্ড্রোয়েড যখন সব কিছু [পর্ব-০৪] :: অ্যান্ড্রোয়েড এর সেরা ৫ টি কোড এডিটর! প্রোগ্রামিং এর দৌড়ে অ্যান্ড্রোয়েড পিছিয়ে থাকবে কেন?

Level 7
সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা
————————–— بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ ————————–—

সুপ্রিয় টেকটিউনস কমিউনিটি, সবাইকে আমার আন্তরিক সালাম এবং শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি অ্যান্ড্রোয়েড যাদের একমাত্র অবলম্বন তাদের জন্য অ্যান্ড্রোয়েড দিয়ে গুরুত্বপূর্ণ সব কাজে সহাযোগিতা করতে আমার চেইন টিউনের চতুর্থ পর্ব।

অত্যাধুনিক প্রযুক্তির এই যুগে একজন মানুষের সবচেয়ে বড় সঙ্গী হলো তার স্মার্টফোন। স্মার্টফোন দেখেই আমরা রাতে ঘুমাতে যাই আবার আবার স্মার্টফোনের সাহায্যেই আমরা জেগে উঠি। আমাদের জীবনের প্রত্যেক পরতে পরতে স্মার্টফোনের অবদান মিশে আছে। বিনোদন, প্রয়োজন সব মিলিয়ে স্মার্টফোনকে শ্রেষ্ঠ সঙ্গী বলতে এখন অনেকেই দ্বিধাবোধ করেন না। তবে স্মার্টফোনগুলো দিয়ে কিছুদিন আগে পর্যন্ত শুধু বিনোদন কিংবা কথা বলার প্রয়োজনগুলোই মেটানো যেতো। কিন্তু স্মার্টফোন প্রযুক্তির ক্রমাগত উন্নয়ন, অ্যান্ড্রোয়েড এর নিত্য নতুন অপারেটিং সিস্টেম সব মিলিয়ে স্মার্টফোন যে এখন স্বল্প পরিসরে কম্পিউটারের চেয়ে এগিয়ে যাচ্ছে সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। এখন স্মার্টফোন দিয়ে শুধু কথা বলা, গেইমিং কিংবা ছবি তোলা নয় বরং স্মার্টফোন দিয়ে ভিডিও এডিটিং, গ্রাফিক্স ডিজাইন, মিউজিক স্টুডিও, এমনটি প্রোগ্রামিংও করা যায়। আপনারা স্মার্টফোন দিয়ে বেসিক লেভেলের কাজ করলেও প্রোগ্রামিং করেছেন এমন লোক খুঁজে পাওয়া কঠিন। তবে আজকে আমি আপনাদের পরিচয় করিয়ে দিবো এমন কিছু কোড এডিটর এর সাথে যার সাহায্যে আপনারা স্মার্টফোনকে প্রোগ্রামিং এর কাজে ব্যবহার করতে পারবেন। বিশেষ করে প্রোগ্রামিং কেন্দ্রিক ফ্রিল্যান্সার যারা আছেন তাদের কাজের ক্ষেত্রে অগ্রগতিটা এখন একটু বেশি হবে। কারন রাস্তায় হাটতে হাটতেও স্মার্টফোনের সাহায্যে সব ধরনের কোডিং করতে পারবেন। তবে চলুন স্মার্টফোনে কোডিং করার উপকরণগুলোর সাথে পরিচিত হওয়া যাক। যদিও গুগল প্লে স্টোরে জনপ্রিয় স্মার্টফোন অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রোয়েড এর জন্য অনেকগুলো কোড এডিটর রয়েছে তবে তাদের সবগুলোই কিন্তু ফিচারের দিক থেকে শতভাগ কার্যকর না। আমি সবগুলো অ্যাপ্লিকেশন থেকে সেরা ৫টি অ্যাপ্লিকেশন নিয়ে আজকের টিউনটি সাজিয়েছি। আশা করছি এই ৫টি অ্যাপ্লিকেশন সব ধরনের প্রোগ্রামিং এর জন্যই সহায়ক হবে।

Quoda – সব সুবিধা যেখানে এক ফ্রেমে বন্দি

Quoda হলো অ্যান্ড্রোয়েড এর জন্য সবচেয়ে ভালো কোড এডিটর। এটা খুবই শক্তিশালী কোড এডিটর এবং এতে সোর্সকোড এডিটিং এর প্রায় প্রত্যেকটি ফিচার রয়েছে। কম্পিউটার প্রোগ্রামার, ওয়েব ডিজাইনার, ডেভেলপার প্রত্যেকের জন্যই এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপ্লিকেশন। কারন এতে যেমন রয়েছে ওয়েব বেইসড প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজগুলো ব্যবহারের সুযোগ তেমনি রয়েছে কম্পিউটার প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজগুলো লিখা কিংবা এডিটিং এর সহজ পন্থা। তাহলে চলুন একজন প্রোগ্রামারের জন্য অ্যাপ্লিকেশনটি কী কী সুবিধা দিবে একটু জেনে নেওয়া যাক।

গুরুত্বপূর্ণ ফিচার সমূহঃ

  • এতে রয়েছে সিনটেক্স হাইলাইটিং, অটো সাজেশন, লাইন বুকমার্কিং, অটো ইনডেনটেশন ইত্যাদির মতো বহু সুবিধা।
  • সিনটেক্স হাইলাইটিং ফিচারস প্রায় প্রত্যেকটি পরিচিত ল্যাংগুয়েজ যেমন, HTML, XML, CSS, JavaScript, PHP, C, C++, C#, Java, ActionScript, Lisp, Markdown, Haskell থেকে শুরু করে আরও অনেক ল্যাংগুয়েজ এর ক্ষেত্রে কাজ করবে।
  • এটা কোড টেমপ্লেট এবং কোড স্নিপেটস সাপোর্টেড।
  • টাইপিং স্পিডকে বোস্ট করার জন্য এতে রয়েছে আরও এক্সট্রা কিছু বাটন।
  • এছাড়াও ফাইন্ড এবং রিপ্লেস, টিউমেন্ট এবং আনটিউমেন্ট, প্রিভিউ HTML ফাইলস, ওয়েব সোর্স কোড ডাউনলোডার, HTML ক্লিনার ইত্যাদি তো আছেই।
  • উপরন্তু যেকোন ফাইলকে FTP / FTPS সার্ভারের মাধ্যমে আপলোড করতে পারবেন। এছাড়াও রয়েছে জনপ্রিয় ক্লাউড ফাইল শেয়ারিং সাইট যেমন ড্রপবক্স, গুগল ড্রাইভ, স্কাইড্রাইভ ইত্যাদি সাইটে সরাসরি ফাইল আপলোডের সুযোগ। এই সুবিধাটা পরবর্তি সবগুলো কোড এডিটরে রয়েছে। তাই এটাকে আর পুনরায় লেখা হবে না।

ডাউনলোড - Quoda

DroidEdit – অ্যান্ড্রোয়েড এর Notepad++

DroidEdit হলো সবচেয়ে পরিচ্ছন্ন, সহজ এবং অসাধারন ইউজার ইন্টারফেইস সমৃদ্ধ কোড এডিটর। এটি কম্পিউটারের বহুল ব্যবহৃত Notepad++ কোড এডিটরের মতো সুবিধা সম্পন্য। Notepad++ এর অ্যান্ড্রোয়েড ভার্সনও বলতে পারেন। এটি মাল্টি-ল্যাংগুয়েজ সাপোর্টেড কোড এডিটর। কম্পিউটারের বেসিক কোড এডিটরগুলোর মতোই আপনি এটাতেও প্রায় ২০০টির অধিক ল্যাংগুয়েজ এর জন্য সিনটেক্স হাইলাইটিং সুবিধা পাবেন। FTP ব্যবহার করতে পারবেন সেটা আগেই বলেছি। তবুও বিশেষ ফিচারগুলো জেনে নিতে পারেন নিচে থেকে।

গুরুত্বপূর্ণ ফিচার সমূহঃ

  • এতে রয়েছে আকর্ষনীয় থিম, যা কোড এডিটরের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করবে। রয়েছে থিম কাস্টমাইজেশনের সুযোগ।
  • দ্রুত কোডিং এর জন্য রয়েছে বিল্ট-ইন ইমেট প্লাগিন। যা মূহুর্তের মধ্যে বিশাল বিশাল কোডগুলোকে কীওয়ার্ড এর মাধ্যমে লেখার সহজ সুযোগ করে দিবে।
  • এছাড়াও এতে রয়েছে লাইন র‍্যাপ, সার্চ এবং রিপ্লেস, এবং দ্রুত টাইপিং এর জন্য এক্সট্রা বাটন। এছাড়াও রুটেট ডিফাইসে সিস্টেম ফাইলগুলোও এর মাধ্যমে এডিট করতে পারবেন।

ডাউনলোড - DroidEdit

AWD – Android Web Developer

AWD মানে হলো অ্যান্ড্রোয়েড ওয়েব ডেভেলপার (Android Web Developer)। এটা মুলত ওয়েব ডেভেলপমেন্টের জন্য তৈরী করা হয়েছে। এতে রয়েছে ওয়েব ডেভেলপমেন্টের জন্য যাবতীয় গুরুত্বপূর্ণ ফিচার। এর সাহায্যে HTML, CSS, JavaScript এবং PHP কোড লিখতে এবং এডিট করতে পারবেন। এতে রয়েছে ফুল স্ক্রিন ইন্টারফেইস যা আপনাকে কোডিংয়ে অনেক সুবিধা দিবে। এতে বেসিক এবং এডভান্স কোড এডিটর ফিচার সংযুক্ত আছে বিশেষ করে এরর চেকিং। এছাড়া এটি উপরোক্ত এডিটরগুলো মতোই সবগুলো সুবিধা দিতে পারে। তাছাড়া এই এডিটর দিয়েই ওয়েব সাইটের প্রিভিউ দেখতে পারবেন। ভাবতে পারছেন কত্তো মজার জিনিস!

ডাউনলোড - AWD (Android Web Developer)

AIDE – Android IDE

AIDE শব্দটি এসেছে Android IDE থেকে। অ্যাপ্লিকেশনটি মূলত অ্যান্ড্রোয়েড অ্যাপস ডেভেলপমেন্টের জন্য তৈরী করা হয়েছে। এর সাহায্যে আপনি অ্যান্ড্রোয়েড ডিভাইসের মাধ্যমেই কোন প্রকার কম্পিউটার সিস্টেমের সহায়তা ছাড়ায় অ্যান্ড্রোয়েড অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপ করতে পারবেন। এছাড়াও আপনি জানতে পারবেন কীভাবে জাভা এবং অ্যান্ড্রোয়েড অ্যাপস ডেভেলপ করা যায়। কারন এতে রয়েছে স্টেপ বাই স্টেপ প্রোগ্রামিং অধ্যায়। যা একশন প্রাথমিক লেভেলের ব্যবহারকারীকেও জাভা এবং অ্যান্ড্রোয়েড অ্যাপস ডেভেলপার বানিয়ে দিতে পারে।

AIDE অ্যাপ্লিকেশনটি আপনাকে Java, C/C++, HTML5, CSS এবং JavaScript ব্যবহার করে অ্যান্ড্রোয়েড অ্যাপস, জাভা অ্যাপস কিংবা PhoneGap অ্যাপস ডেভেলপ করতে সাহায্য করবে। এতে রয়েছে ভিজুয়াল ডিজাইনার অপশন যার মাধ্যমে আপনি XML কোড ছাড়ায় অ্যাপস এর ইন্টারফেইস ডিজাইন করতে পারবেন। স্মার্টকোড নেভিগেশন, এরর চেকিং, কোড কমপ্লিশন সব কিছু মিলিয়ে অ্যাপ্লিকেশনটি অ্যান্ড্রোয়েড ইউজারদের ডেভেলপার হওয়ার স্বপ্ন পূরণ করবে। তবে সবচেয়ে আনন্দের ব্যাপার হচ্ছে অ্যাপ্লিকেশনটিকে আপনি জনপ্রিয় কম্পিউটার IDEs For Android, Eclipse এবং Android Studio স্টুডিও এর সাথে তুলনা করতে পারবেন। কারন যেকোন একটিতে ডেভেলপ করা কোড অন্যগুলোতে অনায়াসেই ব্যবহার এবং স্থানান্তর করতে পারবেন।

ডাউনলোড - AIDE (Android IDE)

CppDroid – অ্যান্ড্রোয়েড এ কম্পিউটার কোড ডেভেলপমেন্ট

কম্পিউটারে যারা C/C++ ডেভেলপমেন্টের জন্য Eclipse অথবা Code Block সফটওয়্যার ব্যবহার করেন তাদের জন্য CppDroid অ্যাপ্লিকেশনটি অ্যান্ড্রোয়েড এ একই সুবিধা সুবিধা দিবে। এতে রয়েছে GCC কম্পাইলার। যা কোন প্রকার সমস্যা ছাড়ায় C/C++ কোডগুলোকে এডিট করতে, কম্পাইল করতে এবং এক্সিকিউট করতে সাহায্য করবে। এতে রয়েছে বিভিন্ন প্রকার ডেমো এবং প্রাকটিস প্রোগ্রাম যা আপনাকে C/C++ এর বেসিকগুলো শিখতে সাহায্য করবে।

এই অ্যাপসটিও অন্যন্য কোড এডিটরের মতোই সিনটেক্স হাইলাইটিং কোড কমপ্লিশন, এরর এনালাইসিস, ডায়াগনোসিস, ফাইল এবং টিউটরিয়াল নেভিগেশন ইত্যাদি সুবিধা দিবে। তাছাড়া যেকোন ফাইলকে ক্লাউডে আপলোড কিংবা ডাউনলোড সুবিধা তো থাকছেই। এখন প্রশ্ন হলো এতো এতো কোড এডিটরের সুবিধার মাঝে আপনি কোনটা ব্যবহার করবেন? উত্তর হলো আপনার প্রয়োজনের সাথে যেটা মিলে যাবে সেটাই ব্যবহার করবেন। তবে আপনাদের কোনটা সবচেয়ে বেশি ভালো লাগলো কিংবা এর বায়রেও আপনারা কোনটা ব্যবহার করেন সেটা আমাকে জানাতে ভুলবেন না যেন।

ডাউনলোড - CppDroid

আপনাদের জন্য এই সিরিজের অন্যন্য টিউনগুলোঃ

শেষ কথা

টিউনটি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে অথবা বুঝতে যদি কোন রকম সমস্যা হয় তাহলে আমাকে টিউমেন্টের মাধ্যমে জানাতে ভুলবেন না। কারন আপনাদের যেকোন মতামত আমাকে সংশোধিত হতে এবং আরো ভালো মানের টিউন করতে উৎসাহিত করবে। সর্বশেষ যে কথাটি বলবো সেটা হলো, আসুন আমরা কপি পেস্ট করা বর্জন করি এবং অপরকেও কপি পেস্ট টিউন করতে নিরুৎসাহিত করি। সবার সর্বাঙ্গিন মঙ্গল কামনা করে আজ এখানেই শেষ করছি। দেখা হবে আগামী টিউনে।

আপনাদের জন্য » সানিম মাহবীর ফাহাদ

➡ ইমেইলে আমার সকল টিউনের আপডেট পেতে সাবস্ক্রাইব করুনঃ টেকটিউনস » সানিম মাহবীর ফাহাদ 🙄

Level 7

আমি সানিম মাহবীর ফাহাদ। সুপ্রিম টিউনার, টেকটিউনস, ঢাকা। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 176 টি টিউন ও 3500 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 159 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আগে যা শিখেছিলাম এখন তা শেখানোর কাজ করছি। পেশায় একজন শিক্ষক, তবে মনে প্রাণে টেকনোলজির ছাত্র। সবার দোয়া প্রত্যাশি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

আমাদের এলাকায় অপটিকেল ফাইবার লাইনের কাজ চলছে। তাই ইন্টারনেট কানেকশনে সাময়িক সমস্যার কারনে ইউজারস ক্লাউডে ফাইলগুলো আপলোড করতে পারিনি। তবে কানেকশন ঠিক হওয়া মাত্রই আমি ফাইলগুলো আপলোড করে টিউন আপডেট করে দিবো। সাময়িক সমস্যার কারনে আমি আন্তরিক ভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি।

ভাইয়া web master tools.apk টাও অনেক সুন্দর।।সময় পেলে ট্রাই করে দেখবেন।।

ধন্যবাদ ভাই । কাজে লাগবে ।

ভাই আগের টিউন গুলোর লিনক দেন প্লিস

সত্যিই খুব অসাধারণ

অসাধারন টিউনস প্রিয়তে রাখলাম।

সানিম মাহবীর ফাহাদ ভাইয়া। আপনাকে ধন্যবাদ। আপনার পোস্টগুলো সবসময় সুন্দর এবং মানসম্মত হয়। আমি। আমি এর আগেও আপনার টিউনগুলো থেকে অনেক উপকৃত হয়ছি।

আমি CppDroid এবং CcTools বর্তমানে ব্যবহার করছি।
দোয়া করি আল্লাহ আপনাকে এই সুন্দর কাজের জন্য উত্তম পুরস্কার প্রদান করুন। আমীন।

    ধন্যবাদ রহুল আমিন ভাই, আপনার দোয়ায় যেন আমার সব সময়ের পাথেয় হয়। আপনার জন্যও শুভ কামনা।

আজ আপনার ফেসবুক পেজটা সার্চ করতে গিয়ে হঠাৎই আপনার ফেসবুক আইডিটা পেয়ে গেলাম। অনেক সুন্দর করে মনযোগ দিয়ে আপনার প্রোফাইলটা দেখলাম সাথে পোস্ট গুলাও। খুব ভালো লাগলো। আপনার টিউনগুলা শুধু নয়, আপনি মানুষটাও সত্যি একক ও অসাধারণ। খুব বিস্ময়ের সাথে লক্ষ্য করলাম আপনার বাড়ি জামালপুর। গর্বে বুকটা ভরে গেলো যে আমিও জামালপুরেই থাকি।
যাই হোক, আবারো অনন্য একটি টিউনের জন্য ধন্যবাদ।
আর হ্যা, ফেসবুকে আপনাকে ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট পাঠানোর মত দুঃসাহসী কাজটুকু করে ফেলেছি, পারলে একসেপ্ট করে আমার ফ্রেন্ডলিস্টটাকে ধন্য কইরেন।

    যে ছেলে প্রথম টিউন করেই টেকটিউনসের নজরে আসে সে আমার এলাকার শুনে ভালো লাগলো। নিজের জেলার হয়ে কিছু করার হয়তো সময় এসেছে। আশা করি সুন্দর সুন্দর টিউন করে আমাদের সব সময় প্রযুক্তির সুরে মাতিয়ে রাখবেন।

    সুন্দর টিউমেন্টের জন্য অনেক ধন্যবাদ প্রতীক ভাই 🙂 আর ফেসবুকে আপনার রিকোয়েস্ট একসেপ্ট করা হয়েছে।

সব সময়ের মত অসাধারন টিউন,
সংগ্রহে রাখলাম !

ভালো।।কিন্তু এর চেয়ে আরও ভালো ও সম্পূর্ণ ফ্রি সফটওয়্যার আছে।।ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য

    আসলে ভালোর কোন শেষ নেই এবং এর মাত্রা ব্যক্তিবিশেষে আলাদা। টিউমেন্টের জন্য ধইন্যা 🙂