অ্যান্টি-ভাইরাস ছাড়াই সুস্থ এন্ড্রয়েড ফোন।

বর্তমানে আমরা প্রায় সবাই এন্ড্রয়েড ইউজার আর সবাই এই এন্ড্রয়েড চালিত স্মার্ট ফোনটি কে খুব যত্ন সহকারে ব্যবহার করি, যাতে কোন প্রকার সমস্যা না হয়।  যখন ফোনটি স্লো হয়ে যায় তখন মনে করি ফোনে ভাইরাস প্রবেশ করেছে। অনেকে এন্ড্রয়েড ফোনে বিভিন্ন ধরনের অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করেন। গুগল প্লে স্টোরে বহু বাজারচালিত অ্যান্টি ভাইরাস পাওয়া যায়। কিন্তু অনেকেই জানেন না, এন্ড্রয়েডে অ্যান্টি ভাইরাস ইন্সটল করার দরকারই নাই। অন্তত জায়েন্ট সার্চ ইঞ্জিন গুগলের দাবি। গুগলের এন্ড্রয়েড বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী আদ্রিয়ান লুডউইগ বলেন, গুগল নিজেই সব সময় ‘ম্যালওয়্যার’ এর জন্য “স্ক্যান” করে। সব মিলিয়ে মাত্র এক শতাংশের কম এন্ড্রয়েড ফোনে  মেলওয়্যার জনিত সমস্যা মিলেছে। অ্যান্টিভাইরাস আপনার ফোনের স্পেস ও ব্যাটারী ক্ষয় করে। এন্ড্রয়েডে আর কোন কাজে লাগেনা এই অ্যান্টিভাইরাস। গুগলের এন্ড্রয়েড বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী আদ্রিয়ান লুডউইগ বলেন,  প্রতিটি এন্ড্রয়েড ডিভাইসে গুগল নিজে সপ্তাহে এক বার করে স্কেন করে।

সূত্রঃ nayadiganta

Level 0

আমি জামান। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 4 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 104 টি টিউন ও 291 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

link koi

Ludwig reportedly said:
I don’t think 99% plus
users even get a benefit
from [anti-virus]. There’s
certainly no reason that
they need to install
something in addition to
[the security we provide].
If I were to be in a line
of work where I need that
type of protection it would
make sense for me to do
that. [But] do I think the
average user on Android
needs to install [anti-
virus]? Absolutely not.