আপনার ছবি দিয়ে FaceApp এর মাধ্যমে তরুণ কিংবা বৃদ্ধ বয়সের মুখচ্ছবির প্রতিরুপ ক্রুন

সময়ের স্রোতে গা ভাসিয়ে অনেকেই ফেসঅ্যাপ দিয়ে নিজের ছবি সম্পাদনা করে ফেসবুকে তা টিউন করছেন। ফেসঅ্যাপ নিয়ে আজকাল সবাই কথা বলছে। এটি এমন একটি অ্যাপ যা মানুষের ছবি এডিট করে তাদের তরুণ কিংবা বৃদ্ধ বয়সের মুখচ্ছবির প্রতিরুপ দেখাতে পারে। এই অ্যাপের মাধ্যমে নিজেদের চেহারার ছবি এডিট করে সেগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করছেন বিশ্বের হাজার হাজার মানুষ। কিন্তু গত কয়েক দিনে যখন থেকে ফেস এডিটিংয়ের এই অ্যাপটি ভাইরাল হয়েছে। বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে জানানো হয়, সবাই এখন ফেসঅ্যাপ নিয়ে কথা বলছে। অ্যাপটি ছবি সম্পাদনা করে চেহারায় তারুণ্য বা বয়সের ভাঁজ দেখাতে পারে। নিজের ছবির ক্ষেত্রে এ অভিজ্ঞতা কেমন হয়, তা দেখতেই অনেকে ফেসঅ্যাপের বুড়ো ফিল্টার ব্যবহার করছেন। কিন্তু অনেকেই ফেসঅ্যাপের বিরুদ্ধে ব্যবহারকারীর তথ্য কৌশলে সংগ্রহের অভিযোগ তুলছেন। ফেসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ অবশ্য এক বিবৃতিতে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে। ফেসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ বলছে, তাদের সাইটে ছবি আপলোডের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই সব ছবি মুছে ফেলা হয়। ফেসঅ্যাপে ডিভাইসের ছবি আপলোডের অনুমতি দিলেও তারা কেবল নির্বাচিত ছবিটিই আপলোড করে। ডিভাইসের সব ফাইল তারা আপলোড করে না।

apkmodus.com

তবে ফেসঅ্যাপের পক্ষ থেকে এসব অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। তারা বলছে, পেইড সাবসক্রিপশন মডেলের মাধ্যমে তারা অর্থ আয় করে। তারা কোনো নিয়মবহির্ভূত কাজ করছে না। সম্প্রতি গুগল, ফেসবুকের তথ্য বেহাত হওয়ার ঘটনার পর থেকে অনেকেই সচেতন হয়েছেন। এর আগেও একাধিক অ্যাপ এই ধরনের কাজ করে কয়েক কোটি মানুষের ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নিয়েছে। অনলাইন দুনিয়ায় এখন সবচেয়ে দামি জিনিস গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্য। আপনার তথ্য অন্যের হাতে তুলে দেওয়ার আগে দ্বিতীয়বার ভাববেন নিশ্চয়ই?

এখন, সিদ্ধান্ত আপনার এই অ্যাপটি ডাউনলোড করবেন কি করবেন না। যদি ডাউনলোড করতে চান তাহলে এই লিঙ্কে গিয়ে ডাউনলোড করে নিন।

Level 2

আমি কায়ছারুল আলম। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 67 টি টিউন ও 223 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 4 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

Student


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

বর্তমান যুগ ডিজিটার যুগ হয়ে গেছে।তাই যেকোনো সমস্যার জন্য আমরা ইন্টারনেটের উপর নির্ভরশীল হয়ে পড়ছে।যেকোনো বিষয় জানতেই আমরা গুগলে গিয়ে সার্চ করি।কিন্তু বর্তমানে কিছু নতুন সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে যার ব্যাখা গুগলে নেই বা থাকলেও বিদেশি ভাষায় থাকায় বুঝতে পারছেন না।এক্ষেত্রে আপনি একটি সাইটে আসতে পারেন।এই সাইটে আপনি ফ্রীতে আপনার সমস্যার কথা জানাতে পারবেন।আবার অন্যের সমস্যার সমাধান জানলে তার প্রশ্নের উত্তর দিয়ে সাহায্য করতে পারবেন।এই সাইটে প্রশ্ন করার পদ্ধতিঃ ১।প্রথমে এখানে গিয়ে রেজিস্ট্রেশন করুন ও ইমেইল কনফারম করুন।২।আপনার একাউন্টে লগিন করুন।৩।উপরে Ask a question লেখা বক্সে ক্লিক করুন বা এখানে ক্লিক করুন।৪।প্রথম বক্সে আপনার প্রশ্নটি এক কথায় লিখুন এবং দ্বিতীয় বক্সে আপনার সমস্যার বর্ণনা দিন।৫।এবার নিচে থেকে ক্যাটাগরি ঠিক করে প্রশ্নটি করুন।ব্যাস কাজ শেষ।এবার আপনি ১২ ঘন্টার মধ্যে আপনার প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন।

একটি শয়তানী খেলা
وَّ لَاُضِلَّنَّہُمۡ وَ لَاُمَنِّیَنَّہُمۡ وَ لَاٰمُرَنَّہُمۡ فَلَیُبَتِّکُنَّ اٰذَانَ الۡاَنۡعَامِ وَ لَاٰمُرَنَّہُمۡ فَلَیُغَیِّرُنَّ خَلۡقَ اللّٰہِ ؕ وَ مَنۡ یَّتَّخِذِ الشَّیۡطٰنَ وَلِیًّا مِّنۡ دُوۡنِ اللّٰہِ فَقَدۡ خَسِرَ خُسۡرَانًا مُّبِیۡنًا ﴿۱۱۹﴾ؕ
ওয়ালা উদিল্লান্নাহুম ওয়ালা উমান্নিইয়ান্নাহুম ওয়ালা আ-মুরান্নাহুম ফালাইউবাত্তিকুন্না আ-যানাল আন‘আ-মি ওয়ালাআ-মুরান্নাহুম ফালাইউগাইয়িরুন্না খালকাল্লা-হি ওয়ামাইঁ ইয়াত্তাখিযিশশাইতা-না ওয়ালিইইয়াম মিন দূ নিল্লা-হি ফাকাদ খাছিরা খুছরা-নাম মুবীনা-

‘আর অবশ্যই আমি তাদেরকে পথভ্রষ্ট করব, মিথ্যা আশ্বাস দেব এবং অবশ্যই তাদেরকে আদেশ দেব, ফলে তারা পশুর কান ছিদ্র করবে এবং অবশ্যই তাদেরকে আদেশ করব, ফলে অবশ্যই তারা আল্লাহর সৃষ্টি বিকৃত করবে’। আর যারা আল্লাহর পরিবর্তে শয়তানকে অভিভাবকরূপে গ্রহণ করে, তারা তো স্পষ্টই ক্ষতিগ্রস্ত হল।