অ্যান্ড্রয়েড এর জন্য নিয়ে নিন কিছু টাটকা এপ্স এর প্রো এবং আপডেট ভার্সন

নিয়ে নিন কিছু টাটকা টাটকা এপ্স এর প্রো এবং আপডেট ভার্সন,পুরানো গুলোকে ময়লার ঝুড়িতে ফেলুন।

১। প্রথমে যেই এপটি নিয়ে এলাম এর নাম Android Assistant Pro. 700 কিলোবাইটের একটি এপ,তবে এর মাধ্যমে অনেক অনেক কাজ করা যায়।কথায় আছে না ছোট মরিচের ঝাল বেশি?এপটিও ঠিক তেমনি।এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু কাজ হলো ফোন বুস্ট করা,এপ্স কে ফোন মেমরী থেকে অতিরিক্ত মেমরীতে নিয়ে যাওয়া,এপ্স ইন্সটল/আনইন্সটল করা,ফোনের সকল সাউন্ড নিয়ন্ত্রন করা,ফোনের কনফিগ জানা সহ আরো অনেক জটিল সব কাজ করা যায় এই এপটি দিয়ে,আজ আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম এর সর্বশেষ পেইড ভার্সন।যা আগের থেকে আরো উন্নত আরো আপডেট।নিচ থেকে এপটি নামিয়ে নিন। ডাউনলোড করতে এই লিংকে ক্লিক করেন।

২। দ্বিতীয় যেই এপটি নিয়ে কথা বলবো সেটি হলোঃ Greenify.এই এপের নাম শুনেন নাই এমন এন্ড্রয়েড ব্যবহারকারী খুজে পাওয়া দুষ্কর।আজ যেই ভার্সুটি নিয়ে এলাম এটি সর্বকালের সেরা ভার্সন,এই ভার্সনে আপনারা রুট কিংবা Xposed Installer ছাড়াই User Apps+System Apps ফ্রীজ করতে পারবেন,যা আগে রুট ছাড়া কখনোই সম্ভব ছিলো না।এই এপটি হলো হ্যাক ভার্সন।এর মধ্যে সকল ফিচার আনলক করা আছে।বর্তমানে এই এই এপ ছাড়া আমি অচল।আমার দেখা সেরা ব্যাটারি সেভার এপ এটি।বাকি সব লাউ,আর লাউ মানে কদু,একই জিনিস।নিচ থেকে নামিয়ে নিন,জানি না অন্য কোথাও এই ভার্সন পাবেন কি না। ডাউনলোড করতে এই লিংকে ক্লিক করেন।

৩। তারপরে যেই এপটির কথা বলবো সেটি হলো MX Player Pro.এই এপ এখন সব থেকে জনপ্রিয়,কেননা এই এপ ছাড়া ভিডিও দেখার কথা ভাবা যায় না।ভিডিও দেখার জন্য এক নাম্বার এপ এটি।আজ নিয়ে এলাম এর সর্বশেষ ফাইনাল ভার্সন,যা আগের থেকে আরো বেশি শক্তিশালি,আগের সকল বাগ দূর করা হুয়েছে এই এপটিতে। আর দেরী কিসের ? নিচ থেকে এপটি নামিয়ে ফেলুন,আর প্লে করুন যেকোন ভিডিও। ডাউনলোড করতে এই লিংকে ক্লিক করেন।

৪। ফেসবুক থেকে ভিডিও ডাউনলোড করবেন নাকি Youtube থেকে ভিডিও ডাউনলোড করবেন?শুধু ভিডিও ডাউনলোড করবেন নাকি আবার MP3 ডাউনলোড করবেন,এম্বি বেশি নাই,তাই কম এম্বির মধ্যে ভিডিও নামাবেন?এই সব কিছু করতে পারবেন একটি এপ দিয়ে,এপটির নাম SNAPTUBE.এই এপের মাধ্যমে আপনি ফেসবুক,ইউটিউব থেকে যেকোন ফরমেটের ভিডিও অডিও ডাউনলোড করতে পারবেন তাও আবার হাই স্পীডে।আর কথা বাড়াবো না,নিজেরাই ব্যবহার করে যাচাই করে আমাকে জানান এপটি কেমন,নিচ থেকে নামিয়ে নিন। ডাউনলোড করতে এই লিংকে ক্লিক করেন।

৫। Stellio Music Player: অনেক প্লেয়ার তো ব্যবহার করলেন,তবে Stellio Music Player কি কখনো ব্যবহার করেছেন?যদি না করে থাকেন তাহলে অনুরোধ একটাই,একবার হলেও ব্যবহার করবেন,এই প্লেয়ার টি মূলত PowerAMP কে নকল করে বানানো,যার সকল ফিচার PowerAMP এর মত হুবুহু।তবে এটি লাইসেন্স নিয়ে কোন ঝামেলা করে না,নিচ থেকে নামিয়ে নিন। ডাউনলোড করতে এই লিংকে ক্লিক করেন।

 

Level 2

আমি কায়ছারুল আলম। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 67 টি টিউন ও 223 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 4 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

Student


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

ভাল হয়েছে । শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।