গুগুল এডসেন্স- বাংলা সাপোর্ট ও বাংলা ওয়েবসাইট এ করনীয় কাজের পরামর্শ

সবাইকে স্বাগতম আবারো। অনেক দিন পর লিখতে বসলাম। পড়াশুনা এবং কাজের চাপে এতদিন লিখতে পারিনি। সে যাই হোক, আপনারা নিশ্চই এখন জানেন গুগুল এডসেন্স বাংলা সাপোর্ট দিয়েছে। এটা বর্তমান বাংলা ভাষী ব্লগারদের জন্য নিঃসন্দেহে অত্যন্ত আনন্দের সংবাদ। যারা লেখালিখি করেন, এবং যারা অনলাইন অনলাইন এডভারটাইজ সম্পর্কে জানেন তারা নিশ্চই গুগুল এডসেন্স সম্পর্কেও জানেন।

গুগল অ্যাডসেন্স কি?

গুগল অ্যাডসেন্স হচ্ছে অত্যান্ত কার্যকরী ও বিশ্বের বৃহত্তম একটি অনলাইন অ্যাডভার্টাইজিং নেটওয়ার্ক যার মাধ্যমে বিশ্বের বড়-বড় ব্লগার ও ওয়েবমাষ্টাররা তাদের ব্লগ/ওয়েবসাইট মনিটাইজ করে টাকা আয় করে থাকেন। গুগল তাদের বার্ষিক আয়ের বড় একটি অংশ গুগল অ্যাডসেন্স থেকে করে থাকে।

কিভাবে গুগুল এডসেন্স কাজ করে?

এইটা খুবই সহজ একটা পদ্ধতি। আপনাকে গুগল অ্যাডসেন্স এর পাবলিশার হতে হবে এবং আপনার ব্লগ/ওয়েবসাইট বা ইউটিউব চ্যানেলে অ্যাডসেন্স এর বিজ্ঞাপন প্রচার করতে হবে। কেউ যদি সেই বিজ্ঞাপন দেখে ক্লিক করে তাহলে আপনে প্রতি ক্লিকের জন্য নির্দিষ্ট পরিমান টাকা পাবেন। এছাড়া শুধু মাত্র আপনার ব্লগ/সাইটের বিজ্ঞাপন দেখানোর জন্যও আপনি অল্পকিছু পরিমান টাকা পাবেন। আর এই বিজ্ঞাপনগুলো গুগল তাদের আরেকটি প্রোগ্রাম গুগল অ্যাডওয়ার্ডস এর মাধ্যমে বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছ থেকে সংগ্রহ করে থাকে।

গুগুল এডসেন্স থেকে আপনি কি পরিমাণ আয় করতে পারবেনঃ

এটা কোন ভাবেই নির্দিষ্ট করা সম্ভব নয়। এটা নির্ভর করবে অনেক টা আপনার সাইটের ট্রাফিক, ভিজিটর, টপিক এসবের উপর। ইউরোপিয়ান দেশ থেকে আপনার সাইট ভিজিট হলে বা এড এ ক্লিক পরলে ভালো এমাউন্ট পাবেন। এশিয়ান দেশ গুলো থেকে হলেও পাবেন। তবে ইউএসএ/কানাডা/ইংল্যান্ড থেকে যত এড এ ক্লিক পরবে, অন্যন্য দেশের তুলনায় সেখান থেকে বেশি পাবেন।

 

বাংলায় গুগুল এডসেন্স ও আপনার করনীয় কাজঃ

১। প্রথমেই আপনার একটি ভালো হোষ্টিং সাপোর্ট সহ একটি লাইভ সাইট থাকতে হবে।

২। আপনার সাইটের ডোমেইন বয়স ৬+ মাস হলে ভালো।

৩। চেষ্টা করবেন প্রতিদিন লেখা লিখতে। মনে রাখা দরকার, আপনি যদি কপি পেষ্ট করে ব্লগ বা আর্টিকেল প্রকাশ করার চেষ্টা করেন তবে গুগুল এডসেন্স পাবার চিন্তা বাদ দিন।

৪। কোন ভাবেই আপনার কপি পেষ্ট লেখা দেয়া যাবে না, এমন লেখা লিখতে হবে যেটি মানুষের কাজে লাগবে।

৫। যেহেতু এখন বাংলায় গুগুল এডসেন্স আপনি এপ্লাই করতে পারবেন, সেহেতু আপনার খেয়াল রাখতে হবে বাংলা লেখা যেন আপনার শুদ্ধ হয়।

৬। আপনার ব্লগের অবশ্যই একটি কাষ্টম ডোমেইন নেম থাকতে হবে যেমন গুগল ডট কম। অনেকেই দেখা যায় যে ব্লগার বা ওয়ার্ডপ্রেসে একটা ব্লগ করে বা একটা ফ্রি ডোমেইন নিয়ে ফ্রী হোস্টিং এ হোস্ট করে অ্যাডসেন্স এর জন্য আবেদন করেন, এক্ষেত্রে আপনার অ্যাডসেন্স একাউন্ট অনুমোদন না পাওয়ার সম্ভাবনা ৯৯%।

৭। লগের জন্য এবাউট, কন্টাক্ট, প্রাইভেসি পলিসি/ডিসক্লেইমার পেজ তৈরী করুন।

৮। ব্লগের জন্য কিছু এস.ই.ও. এর কাজ করুন এবং প্রতিদিন যাতে কিছু সার্চ ট্রাফিক আসে সেই পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

৯। যদি অন্য কোন এড নেটওয়ার্ক এর এড ব্যবহার করে থাকেন তাহলে সেগুলো মুছে দিন।

১০। এপ্লাই করতে গুগুল এডসেন্স পেইজে চলে যান!

এপ্লাই করা খুব সহজ। আপনার শুধু লাগবে একটি মেইল আইডি। মেইল আইডি দিয়ে এপ্লাই করে ফেলুন।

বাংলায় গুগুল এডসেন্স সাপোর্ট হয়েছে এই বিজ্ঞপ্তিটি যাচাই করতে চাইলে গুগুল এডসেন্স এর নিজস্ব বিজ্ঞপ্তি টি দেখতে এখানে যেতে পারে।

বাংলায় গুগুল এডসেন্স।

উপসংহারঃ

আমি খুব সহজ ভাবে অল্প কথায় গুগুল এডসেন্স এপ্লাই করার আগে, বিশেষ করে বাংলা ওয়েব সাইটের জন্য এখানে লিখেছি। আশা করছি আপনাদের এই লেখা অনেক কাজে দিবে। গুগুল এডসেন্স সম্পর্কে, এর আরো টিপস জানতে এখানে গিয়েও দেখতে পারবেন, এটাও অনেক ভালো হেল্প করবে আপনার ব্লগ লেখা ও অন্যন্য ব্যাপারে।

আমার এই টিউন টি ভালো লাগলে শেয়ার করুন। আরো কিছু জানার থাকলে টিউমেন্ট করুন!

সবাইকে অনেক ধন্যবাদ। 😎

Level 0

আমি মেহেদী হাসান। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 4 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 7 টি টিউন ও 2 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমি মেহেদী হাসান, আমি ওয়েব ডেভেলপার হিশেবে কাজ করছি বিভিন্ন অনলাইন মার্কেটপ্লেসে। শখের বশে ব্লগ আর্টিকেল লিখি। আর্টিকেল রাইটার হিশেবে আমার অভিজ্ঞতা প্রায় ৫ বছর। আমার ব্লগ সাইট www.tutsroom.com থেকে আপনারা আমার সম্পর্কে বিস্তারিত সব জানতে পারবেন। টেকটিউনস ব্লগে আমি আপনাদের কে নিয়মিত ভালো কিছু টেকনোলজি লেখা উপহার দিতে পারবো...


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস