অনলাইনে আয়ের এ পথ সে পথ, আপনি যাবেন কোন পথে । অনলাইনে আয় শুরু করুন ঠিক এখন থেকেই ।

আসসালামু আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহ । আশা করি আল্লাহর অশেষ রহমতে ভালো আছেন  সবাই । আর ভালো থাকাটাই সব সময়ের জন্য প্রত্যাশা ।  ব্যস্ততার কারণে এখন আর টিউন করার সময় হয়ে উঠেনা । কিন্তু টেক টিউনের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে সময় বের করে ছোট একটি টিউন করার জন্য ছুটে আসলাম ।

অনলাইনে আয়ের এ পথ সে পথ, আপনি যাবেন কোন পথে ।  সকল পথই যদি আপনার কাছে নতুন হয়, তবে এ পথটি চেষ্টা করে দেখুন ।

আর দেখুন আয় শুরু করা যায় কিনা??? নিচের  লেখাটি অনুসরণ করে কাজ শুরু করুন ।

অনলাইনে আয় করতে গেলে পর্যাপ্ত দক্ষতা থাকা প্রয়োজন ।  কোন একটি বিষয়েও ভালো জ্ঞান না থাকলে সে বিষয়ে আপনি আয়ের আশা করতে পারেন । ধরে নিচ্ছি আপনি কিছুই পারেননা ।  কম্পিউটারে ভালোভাবে রিফ্রেশতো দিতে পারেন । তবে কাজ শুরু করার জন্য সেটিই যথেষ্ট । বাকীটা কাজ শুরু করলেই আস্তে আস্তে পেরে পাবেন ।

আমার সীমাবদ্ধ জ্ঞানে আমি চেষ্টা করেছি নিচের চেষ্টায় তৈরী আর্টিকেল  online earning  সাইটে পোস্ট করে সবাইকে কিছু একটা শিখাতে ।  তারই ধারাবাহিকতায় এ লেখাটি ।

কথা না বাড়িয়ে শুরু করি ।  ধরে নিচ্ছি আপনার কোন জীমেইল একাউন্ট নেই ।  আর থাকলে কেমন হবে সেটি পরবর্তী ধাপেই বুঝতে পারবেন কি করতে হবে ।

১। প্রথমেই একটি জীমেইল একাউন্ট তৈরী করে নিন ।  জীমেইল একাউন্ট তৈরী করতে যান  www.gmail.com- এ

http://e-aiman.blogspot.com/

২। এখন যান http://www.blogger.com -এ, এখানে আপনার ইউজান নেম এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করুন

 

৩। লগইন করার পর ব্লগার প্রোফাইল পেজটি কন্টিনিউ করে ব্লগার ড্যাশবোর্ড পেজ-এ যান ।

http://e-aiman.blogspot.com/

৪। সেখানে গিয়ে নিউ ব্লগ-এ ক্লিক করুন । আপনার পছন্দের যে বিষয়ে ব্লগ বানাবেন তার নাম দিন ।

 http://e-aiman.blogspot.com/

৫। ব্লগের টাইটেল দিয়ে  ডোমেইন নেম দিন তারপর একটি টেমপ্লেট পছন্দ করে ক্রিয়েট ব্লগ-এ ক্লিক করুন ।

http://e-aiman.blogspot.com/

৬। এখন স্টার্ট পোস্টিং-এ ক্লিক করে আপনার প্রথম পোস্ট লেখা শুরু করে দিন ।

http://e-aiman.blogspot.com/

৭। প্রতিদিন ১-৩টি আর্টিকেল পোস্ট করুন ।  আর পোস্টগুলো মিনিমাম ২০০ শব্দের যেন হয় সেদিকে খেয়াল রাখবেন ।

আমার কথায় আপনিকি বিরক্ত??? এরকম টিউন আগেও হতে পারে ।

আমি চেষ্টা করছি বিষয়টি সহজভাবে উপস্থাপন করতে ।

চলুন. এবার একটি জোকস দেখি, আশা করি কিছুটা বোর কাটবে এটি পড়লে..

যথারীতি আমরা আবার কাজ করি...

৮। ১ মাস পর ব্লগার এর গো টু পোস্ট লিস্ট আইকন-এ ক্লিক করে ড্যাশবোর্ড  থেকে আর্নিং অপশন-এ যান ।  এখান থেকে এডসেন্স এর জন্য আবেদন করুন ।

http://e-aiman.blogspot.com/

৯। আবেদন করার সময় আপনার সঠিক নাম, ঠিকানা এবং ব্যাংকের ভেলিড নাম সহ তথ্য দিন ।

১০। ১৫ দিনের মধ্যে আপনার একাউন্ট চালু হেওয়ার বিষয়ে ইমেইল আসবে ।  ২/৩ দিনেও আসতে পারে কিংবা তার চেয়ে বেশী সময়ও লাগতে পারে ।

১১। আপনার এডসেন্স একটিভ হয়ে গেলে সেটিতে লগইন করে নতুন এড তৈরী করুন ।

http://e-aiman.blogspot.com/

১২। তৈরী করা এড কোড ব্লগার ড্যাশবোর্ড এর এড এ গ্যাজেট অপশন-এ ক্লিক করে এইচটিএমএল/জাভা স্ক্রিপ্ট সেকশনে পেস্ট করুন ।

http://e-aiman.blogspot.com/

১৩। ব্যাস হয়ে গেলো । আপনি এখন আয়ের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত ।  চালিয়ে যান, হাল ছেড়ে দিবেননা ।

সর্বশেষে আপনার আর্নিং এর হোমপেজটি দেখতে ঠিক উপরের ছবিটির মতই হেবে ।

এখন চেষ্টা করুন আপনার সাইটে ভিজিটর বাড়াতে । লেখা পর্যাপ্ত থাকলে ভিজিটর আনা সহজ হয় ।  আর আপনি ভালো লিখতে না পারলে গুগলে সার্চ দিয়ে কিছু লেখা কপি করে সেগুলো এডিট করে তারপর পোস্ট করুন ।  প্রতিটি সেন্টেন্স এর ২/৩টি ওয়ার্ড  এর প্রতিশব্দ পরিবর্তন করে লেখা পোস্ট করে দিন ।  কপি পেস্ট করে হুবহু লেখা দেয়া থেকে বিরত থাকবেন ।  আর গুগল এডসেন্স পেয়ে যাওয়ার পর তাদের নিয়ম কানুন গুলো মেনে চলুন । ভুলেও নিজের এডে নিজে ক্লিক করবেন না ।  আপনার একাউন্ট-এ ১০০ ডলার হয়ে গেলে গুগল সরাসরি আপনার ব্যাংক একাউন্টে পাঠিয়ে দিবে ।

আপনিকি আমার লেখা বুঝতে পেরেছেন??? যদি বুঝতে পারেন । তবে আয় করা আপনার জন্য সহজই হবে । আয় শুরু করার জন্য কাজ শুরু করুন । বাকী কথা আয় শুরু হোক, তারপর বলবো ।

সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ ।

লেখাটি পূর্বে  আমার ব্লগ-এ  প্রকাশিত ।

অনেক ধন্যবাদ সবাইকে ।

আমার ফেসবুক

শুভ কামনা রইলো সবার জন্য  ।

Related Post :

Level 2

আমি Obaid Ullah Aiman। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 107 টি টিউন ও 350 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

Computer Science & Engineering www.facebook.com/obaid.aiman


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

bangla website a ki hobe?

ওয়া আলাইকুমুসসালাম ওয়া রহমাতুল্লাহ ।
এত্ত সুন্দর সহজ ভাবে বুঝিয়ে টিউনটি করার জন্য আপনাকে
অসংখ্য ধন্যবাদ ।
আমি আপনার নিকট হতে
আরো কয়েকটি কথা জানতে খুবই
আগ্রহী । এতে আমার পাশাপাশি অনেকেই উপকৃত হতে পারবে আশাকরি ।

১. যদি পারসনাল ভাবে ডোমেইন ও হোষ্টিং কিনে ওয়েবসাইট করে এই গুগল এডসেন্স ব্যাবহার করতে চাই তাহলে কি হবে ? হলে কিভাবে করতে হয় ?

২. আর বাংলা দিয়ে কিভাবে করে ? সরাসরি ইংলিশ ব্লগপোষ্ট সাইট খুলে এডসেন্স পেয়ে তারপর বাংলাতে পোষ্ট করা শুরু করতে হবে নাকি ?

৩. ইনকাম কিভাবে হয় ? ভিজিটর সাইটে ঢুকলেই নাকি এডে ক্লিক করলে ? কত সেন্ট করে দেয় ?

৪. যদি কেউ অন্য মোবাইল বা পিসি দিয়ে এ্যডে ক্লিকায় তাহলে কি সমস্যা হবে ?

৫. টাকা উত্তোলোনের ক্ষেত্রে কোন ব্যাংক ভালো ? এবং কত টাকা ফি ? আর সময় কিরকম লাগে ।

আপনার প্রতি শ্রদ্ধারেখে গভীর প্রত্যাশা নিয়ে আপনার উত্তরের অপেক্ষায় রইলাম……

    @মোঃ আসাদউল্লাহ আসাদ: ১। পারসোনালি ডোমেইন এবং হোস্টিং কিনে আপনি ওয়েবসাইট তৈরী করে গুগল এডসেন্স ব্যবহার করতে চাইলে এই এড্রেসে গিয়ে আবেদন করতে হবে ।
    ২। বাংলা দিযে ব্লগ বানাতে পারেন । তবে ব্লগস্পটে ব্যবহৃত এডসেন্স ডোমেইন হেোসস্টিং নেয়া বাংলা সাইটে সাপোর্ট করবে না ।
    ৩। ইনকাম ভিজিটর আসা এবং এডে ক্লিক দুইভাবেই হয় । কত সেন্ট করে হয় তা কোন নির্দিষ্ট নেই । যে এড বাংলাদেশে এক ক্লিক করলে .০৩ জমা হবে সেই এড ইউএসএতে ক্লিক পড়লে ১.৮০ও জমা হয় । এটা কান্ট্রি অনুযায়ী বিভিন্ন হয় । তবে আনুমানিক ১০০০ ভিজিটর আসলে ১ ডলার আর্নিং হয় । আর ক্লিক পড়লে আরো বাড়তি কিছু হবে ।
    ৪। এ কাজটা না করাই বেটার, গুগলের রোবটিক্স সফটওয়ার আপনাকে চিহ্নিত করে এডসেন্স ব্যান কর দেবে, তাছাড়া আপনার বিবেককেই জিজ্ঞেস করুন এভাবে আয় করা বৈধ হবে কিনা ।
    ৫। টাকা উত্তোলনের ক্ষেত্রে অনলাইন যে কোন ব্যাংক ভালো, তবে আমার মতে ডিবিবিএল বেটার । প্রথমবার 20-25 ডলার কাটবে এরপর থেকে আর কোন চার্জ কাটবে না । সময় লাগে ১৫ দিনের মত । অনেক ধন্যবাদ ।

আপনার লেখা দেখে মনে হচ্ছে যেন কন ব্যাপার না সবাই পারবে । আর এই কথা গুলো তো আগে অনেক টিউনার বলেছেন ।
অ্যাডসেন্স অ্যাপ্লাই তো ৬ মাসের আগে করা যায় না ।

    @নীলোৎপল বেদী: মন্তব্য করার জন্য অনেক ধন্যবাদ । ছয় মাস আগে এডসেন্স এর জন্য আবেদন করা যায় না, কথাটি সঠিক নয় । আমি নিজেই পেয়েছি ১ মাস পর আবেদন করে, আরেকটি ওয়েবসাইট দিয়েও পেয়েছি ২ মাস পর আবেদন করে । আমার আরেকজন বন্ধুকে করে দিয়েছি, সেটাও ২ মাস পর আবেদন করা হয়েছিলো আর একটিভ হয়ে গেছে মাত্র ৭ দিনে ।

আজাইরা টিউন

ধন্যবাদ কাজের উপযোগী টিউন করার জন্য। বাট, এখানে আমার বেশ কিছু বিষয় জানার ছিল রিভিউ দিলে উপকৃত হই।
১। নতুন ব্লগ করলে অ্যাডসেন্স অ্যাপ্লাই তো ৬ মাসের পূর্বে হবার নয়!
২। ইউটিউব হতে প্রেরিত অ্যাডসেন্স কোড ব্লগে সংযুক্ত করা যাবে কি?
৩। আপনার টিউন অনুযায়ী যে ইমেইলের মাধ্যমে ব্লগ সাইট ওপেন করেছি সেই ইমেইল দ্বারা অ্যাডসেন্স একাউন্টের জন্য আবেদন করতে হবে নাকি অন্য জিমেইল দ্বারাও করা যাবে?
৪। ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে অ্যাডসেন্সকে অযথা ক্লিক প্রতিরোধ করার জন্য প্লাগিন রয়েছে। ব্লগস্পট সাইটে এমন প্রটেকশনের ব্যবস্থা আছে কি?

    @ফেরী ওয়ালা: আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ ।
    ১। ছয় মাস আগে এডসেন্স এর জন্য আবেদন করা যায় না, কথাটি সঠিক নয় । আমার পূর্বের মন্তব্য দেখতে পারেন ।
    ২। আমার জানামতে ইউটিউব থেকে প্রেরিত এডসেন্স কোড ব্লগে কাজ করেনা , কেননা ইউটিউব থেকে প্রাপ্ত এডসেন্স হোস্টেড ডোমেইন এর জন্য প্রযোজ্য । ননহোস্টেড ডোমেইন-এ এটি সাপোর্ট করেনা ।
    ৩। যে ইমেইল দ্বারা ব্লগ সাইট ওপেন করেছেন সেটি দিয়েই ট্রাই করতে হবে । অন্য ইমেইল দিয়ে করতে চাইলে অন্য ইমেইল দিয়ে আরেকটি ব্লগ বানিয়ে সেটিকে পূর্বের মত রেডি করতে হবে ।
    ৪। ব্লগস্পট সাইটে ক্লিক প্রতিরোধের জন্য প্লাগইন থাকতে পারে, আমার জানা নেই । তবে নিয়ম কানুন মেনে চললে সমস্যা হওয়ার কথা নয় ।

      @Obaid Ullah Aiman: অসংখ্যক ধন্যবাদ, রিভিউ করার জন্য। ভাইয়া সর্বশেষ আরো কয়েকটি তথ্য জানতে চাচ্ছি রেস্পন্স করলে উপকৃত হই।
      ১। আপনি বলেছেন-ইউটিউব থেকে প্রাপ্ত এডসেন্স হোস্টেড ডোমেইন এর জন্য প্রযোজ্য । এখানে কথা হচ্ছে আমার পেইড ডোমেনটি যদি প্রাথমিকভাবে ব্লগস্পট সাইটে রিডাইরেক্ট করি তাহলে অ্যাডসেন্স ব্যবহার করা যাবে কি?
      ২। পরবর্তীতে যখন দেখলাম উক্ত ব্লগটি ভাল চলছে। অতপর ব্লগটির পোস্ট সমূহ পেইড হোস্টিং ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে ট্রান্সপার করলাম। তাহলে পূর্বের অ্যাডসেন্স একাউন্ট নতুন হোস্ট সাইটে যোগ করলে সমস্যা হবে কি? মানে গুগল যদি মনে করে পূর্বের ব্লগ সাইট হতে কন্টেন্ট চুরী করা হয়েছে! এখানে সমাধানের কোন পথ আছে কি? কেননা, গুগলের তো বুঝা উচিত পূর্বের সাইটটি আমারই ও সেখানকার কন্টেন্ট নতুন সাইটে ট্রান্সপার করেছি।
      ৩। সাইটে এডসেন্স এর পাশাপাশি ইনফোলিংক, ইয়ালিক্স মিডিয়া কি ব্যবহার করা যাবে?
      ৪। আপনার সাইটে এক সময় অ্যাডসেন্স দেখেছিলাম, বর্তমানে দেখছিনা। তার মানে কি অ্যাডসেন্স ব্লগস্পট সাপোর্ট করছেনা?
      ৫। আরেকটি ব্যাপার কনফার্ম হতে চাচ্ছি ব্লগে অনেক লেখনই লিখেছেন কিভাবে ইউটিউব হতে অ্যাডসেন্স নিয়ে ব্লগস্পট সাইটে ব্যবহার করা যাবে। অপরদিকে আপনি টিউনে উল্লেখ করেছেন ইউটিউব থেকে প্রেরিত এডসেন্স কোড ব্লগে কাজ করেনা। তাহলে এটি কি সর্বশেষ আপডেট?

vai full bangla version based website a ki domain hosting cara blogging kore adsence pawa jay apni sure?????? and visitor barabo kivabe

    @ইবরাহীম খলীল: এডসেন্স কিছুদিন আগেও বাংলা সপোর্ট করতো না । কিন্তু এখন করে । তবে আমার পরামর্শ পাশাপাশি ইংরেজী সাইট নিয়েও কাজ করুন । বাংলা দিয়ে পাওয়া যত কঠিন হবে, ইংরেজী দিয়ে পাওয়া তত সহজ হবে । এটা আমার পরামর্শ । এবার বাকীটা আপনার সিদ্ধান্ত । অনেক ধন্যবাদ ।

ভাই আপনার সাইটেও তো এডসেন্স নাই।

গুগোল এডসেন্স ছাড়া ভালো আরও কয়েকটি এড কোম্পানির নাম বলতে পারবেন? যেগুলো বাংলা ব্লগসমূহ হতে পাওয়া এবং ব্যাবহার করা সহজ হবে….. 🙂

    @সাকিব হাসনাইন: বিড ভারটাইজার, চিটিকা, ইনফোলিংক, আমাদের এড, ক্লিকসর এসব এপ্লাই করে দেখতে পারেন ।

      @Obaid Ullah Aiman: ভাইয়া আমার প্রশ্নগুলোর এনসার দিলেন না কিন্তু । এখনো অপেক্ষায় আছি । ২য় কম্মেন্ট দেখুন ।